ইউক্রেনের জন্য সৌদি আরবের ৪০ কোটি ডলার মানবিক সহায়তা ঘোষণা

0
14

 

%E0%A6%87%E0%A6%89%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%B0%20%E0%A6%9C%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%AF%20%E0%A6%B8%E0%A7%8C%E0%A6%A6%E0%A6%BF%20%E0%A6%86%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A7%87%E0%A6%B0%20%E0%A7%AA%E0%A7%A6%20%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%9F%E0%A6%BF%20%E0%A6%A1%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%B0%20%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%95%20%E0%A6%B8%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A7%9F%E0%A6%A4%E0%A6%BE%20%E0%A6%98%E0%A7%8B%E0%A6%B7%E0%A6%A3%E0%A6%BE

ইউক্রেনের জন্য সৌদি আরবের ৪০ কোটি ডলার মানবিক সহায়তা ঘোষণা

ইউক্রেনের জন্য আজ শনিবার ৪০ কোটি মার্কিন ডলার মানবিক সহায়তা ঘোষণা করেছে সৌদি আরব। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সির প্রতিবেদনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। খবর এএফপির।

এসপিএর প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি যুবরাজ বলেছেন, উত্তেজনা নিরসনে প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা দেবে রিয়াদ। মধ্যস্থতার প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে সৌদি আরব প্রস্তুত আছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা আরও বেড়েছে। সংঘাতকে কেন্দ্র করে যে জ্বালানিসংকট তৈরি হয়েছে, তা শিথিলের জন্য তেল উৎপাদন বাড়াতে সৌদি আরবকে চাপ দিয়েছিল ওয়াশিংটন। সৌদি আরব তা প্রত্যাখ্যান করায় টানাপোড়েন শুরু হয়।

সম্প্রতি সৌদি নেতৃত্বাধীন তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর জোট ওপেক প্লাস তেল উৎপাদন কমিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেয়। রাশিয়া ও পশ্চিমা মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে সমঝোতার অংশ হিসেবে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে সৌদি আরব।

ওয়াশিংটন অভিযোগ করেছে, ওপেক প্লাস মস্কোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হচ্ছে। গত বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সৌদি আরবকে কঠোর পরিণাম ভোগের হুমকি দিয়েছেন।

আরো পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here