ঋণের দায়ে চিরকুট লিখে যুবকের আত্মহত্যা

0
11

 

AVvXsEiaq3DM2TcRjVE2YkT1O9TlaCyA5TjinTW2f0znPyF4dnLfeYmBpQHvFXpWGoR IZWWoGzqeCd g2hEuIzj9ts67tphB5O4wsUEZWYLajtK4zDl9u199fJO62kFS5XgUgGbUK9NaPD qzG0URvPE3scue4uBWAQNuQEkb1vLquLl AUAmuLIOfTFnXf=w635 h358

ঋণের দায়ে চিরকুট লিখে যুবকের আত্মহত্যা

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় ঋণের দায়ে চিরকুট লিখে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছেন আব্দুল্লাহ (৩৩) নামে এক যুবক।

রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে আত্মহত্যা করেন তিনি। আব্দুল্লাহ ওই গ্রামের মৃত আব্দুল হাসেম পেয়াদার ছেলে ও নলবুনিয়া বাজারের একজন ফাস্টফুড ব্যবসায়ী।


সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আলমগীর হোসেন তালুকদার জানান, শোনা যাচ্ছে আব্দুল্লাহ ঋণগ্রস্ত হয়ে হতাশায় ভুগছিলেন।


তিনি জানান, চালে দেওয়া কীটনাশক ট্যাবলয়েট সেবন করেন আব্দুল্লাহ। এ সময় স্ত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে আব্দুল্লাহকে শরণখোলা উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে নেওয়ার কিছুক্ষণ পর তার মৃত্যু হয়।

আত্মহত্যার আগে রোববার রাত ১টার দিকে একটি চিরকুট লিখেন।

চিরকুটে ওই যুবক লিখেছেন— আমি মো. আব্দুল্লাহ। আমি মারা গেলে আপনাদের কাছে আমার আবেদন। আমার জমি বিক্রি করে সবার দেনা শোধ করে দেবেন। আমার সম্পত্তি আমার ভাইবোনকে দেবেন না। এর পর যে জমি থাকবে, তাতে আমার স্ত্রী ও মেয়ের থাকবে। তাদের কোথাও তাড়াবেন না। এটি আমার দাবি। সবাই স্বার্থপর শুধু আমি নই।

এর পর স্ত্রীকে— আমি চলে যাচ্ছি, মেয়েকে দেখে রাখিস। ইতি মো. আব্দুল্লাহ।  


শরণখোলা থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান বলেন, এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা করে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট মর্গে পাঠানো হবে।

আরো পড়ুন:


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here