ঘূর্ণিঝড়ে সুনামগঞ্জে লণ্ডভণ্ড ৪০ ঘর-বাড়ি

0
10

 

%E0%A6%98%E0%A7%82%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%A3%E0%A6%BF%E0%A6%9D%E0%A7%9C%E0%A7%87%20%E0%A6%B8%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%97%E0%A6%9E%E0%A7%8D%E0%A6%9C%E0%A7%87%20%E0%A6%B2%E0%A6%A3%E0%A7%8D%E0%A6%A1%E0%A6%AD%E0%A6%A3%E0%A7%8D%E0%A6%A1%20%E0%A7%AA%E0%A7%A6%20%E0%A6%98%E0%A6%B0 %E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF

 ঘূর্ণিঝড়ে সুনামগঞ্জে লণ্ডভণ্ড ৪০ ঘর-বাড়ি

প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার শেষে পরিবার-পরিজন নিয়ে গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন ছিলেন সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার পাথারিয়া ইউনিয়নের আসামমুড়া গ্রামের মাদ্রাসা শিক্ষক আহমদ শফি। সোমবার দিবা গতরাতে আকস্মিক ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানলে ঘুম ভাঙে তার।

কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই শফির ঘরের চাল উড়ে যায় ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে। শুধু ঘরের চালই নয়, আধা ঘণ্টার মতো স্থায়ী ঘূর্ণিঝড়ে পুরো ঘর তছনছ হয়ে যায় তার। এই অবস্থায় পরিবারের ১১ সদস্যের নিরাপত্তার শঙ্কায় কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন তিনি। 

আহমদ শফির মতো এমন অবস্থা উপজেলার পাথারিয়া ইউনিয়নের আসামমুড়া, দরগাহপুর গ্রামের অন্তত ৪০টি ঘর-বাড়ির।
মধ্যরাতের প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড়ে মাথা গোঁজার ঠাঁই হারিয়ে এখন দিশেহারা ক্ষতিগ্রস্ত এসব পরিবার। বাসগৃহ হারিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন তারা। 

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানায়, ঘূর্ণিঝড়ে তাদের ঘরবাড়ি ছিন্নভিন্ন হয়ে হয়ে গেছে। স্বল্প আয়ে দিনানিপাত করা এসব পরিবারে ঘূর্ণিঝড়ের হানা ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’ হয়ে দেখা দিয়েছে। এমন বাস্তবতায় সরকারী সহযোগিতার জোর দাবি জানিয়েছেন তারা। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে আকস্মিক ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে শান্তিগঞ্জ উপজেলার পাথারিয়া ইউনিয়নে। এতে ইউনিয়নের দরগাহপুর ও আসামমুড়া গ্রামের অন্তত ৪০টি কাঁচা ঘর, টিনসেডের ঘর, সেমিপাকা ঘর মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। 

গাছপালা ভেঙ্গে পড়ে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়, বিদ্যুতের খুঁটি হেলে পড়ে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘূর্ণিঝড়ে ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত ও গাছপালা উপড়ে যাওয়ার খবর পেয়ে উপজেলা দমকলকর্মীরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং উদ্ধার কাজ শুরু করেন। 

খবর পেয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে শান্তিগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সকিনা আক্তার, শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নুর হোসেন ও উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন ভূইয়া, ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি পরিদর্শন করেন এবং সরকারি সহায়তার আশ্বাস দেন।

এ ব্যাপারে শান্তিগঞ্জ উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া জানান, পাথারিয়া ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড়ে বসতঘর একদম লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে। উপজেলা প্রশাসন এবং উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের তালিকা তৈরির কাজ করেছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সরকারিভাবে সকল সহায়তা প্রদান করা হবে। 

আরো পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here