মার্কিন রাজনীতিকদের অঘোষিত সফরে আবার উত্তেজনা, যুদ্ধের মহড়া দিচ্ছে পিপলস লিবারেশন আর্মি

0
17

 

AVvXsEhw1Kj3Y0oidsJ1XPVGAMVqNx2gMWMiH36TJKDu sSKNiph7csEryOhIDzsV0PIXWRa4OVRK0cyJ5akATY1yp3ZdUguTYgs3OMzkeGiAwRrry54RWYacFoB7sBrzcjoPgUKsY5iF 2LNQWftwhXkWYxSTHizJoffve 6oW1D4y8u7F rbvAzQ9eoOUw=w632 h355

মার্কিন রাজনীতিকদের অঘোষিত সফরে আবার উত্তেজনা, যুদ্ধের মহড়া দিচ্ছে পিপলস লিবারেশন আর্মি

পিপলস লিবারেশন আর্মির ইস্টার্ন থিয়েটার কমান্ড বলেছে, তাদের মহড়া চলছে তাইওয়ানের পেংগু দ্বীপপুঞ্জের কাছে, যার অবস্থান তাইওয়ান প্রণালিতে।


এদিকে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন বলেছেন, চীনের এই মহড়া আঞ্চলিক শান্তি এবং স্থিতিশীলতার ওপর মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে।

AVvXsEg uCf4tmqyjwrqFc2BKfy RG7wHcl1o upPjsT2JkuERk8756MIBDrGngJb2wSYdu3u4PQGyjbQg2eEkBmu1ExDtkyrAKgSQH6ChRY cRnop znpd0zkadIApqHWqsDO1snGhCAfMZ7aYCBrocwNMPnoB fWy0F7edpaZhGih Tg6ku6kT73wgzRce=w622 h348


তিনি বলেন, “আমরা সামরিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য আমাদের আন্তর্জাতিক মিত্রদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা চালিয়ে যাচ্ছি। তাইওয়ানের স্থিতিশীলতা রক্ষায় আমরা সাধ্যমত সবকিছু করছি।”


তাইওয়ান সফররত মার্কিন সেনেটর এড মার্কি বলেছেন, একটি ‘অপ্রয়োজনীয় সংঘাত’ এড়ানোর নৈতিক দায়িত্ব তাদের আছে। তাইওয়ান অবিশ্বাস্য সংযমের পরিচয় দিয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।


তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সোমবার ১৫টি চীনা বিমান তাইওয়ান প্রণালির মধ্য-রেখা অতিক্রম করে। এই মধ্যরেখাকে দুই দেশের মাঝে অঘোষিত সীমান্ত বলে ধরা হয়।


সেনেটর এড মার্কির নেতৃত্বে মার্কিন প্রতিনিধিদল সোমবার তাইওয়ান ত্যাগ করেছে। তবে তারা তাইওয়ান ছেড়ে যাওয়ার পরই কেবল তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তাদের সাক্ষাতের ভিডিও প্রেসিডেন্টের দফতর থেকে প্রকাশ করা হয়।


যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাইওয়ানের কোন আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। তবে গণতান্ত্রিকভাবে শাসিত এই দ্বীপটিকে আত্মরক্ষার জন্য সাহায্য করতে যুক্তরাষ্ট্রের কিছু আইনি বাধ্যবাধকতা আছে।


চীনের কমিউনিস্ট পার্টি কখনোই তাইওয়ান শাসন করেনি, তবে তারা একথা স্পষ্টভাবেই বলেছে যে দরকার হলে এই দ্বীপটি তারা জোর করে দখল করবে। তাইওয়ানকে একটি স্বতন্ত্র স্বাধীন দেশ হিসেবে চিত্রিত করার যে কোন চেষ্টা চীনকে সাংঘাতিক ক্ষুব্ধ করে।


যুক্তরাষ্ট্রের ঘোষিত নীতি হচ্ছে, তারা তাইওয়ানের স্বাধীনতা ঘোষণার যেমন বিরোধী, তেমনি চীন জোর করে তাইওয়ানকে নিজের দেশের অংশ করতে চাইলে সেটারও জোর বিরোধিতা করে।


তবে চীন যদি তাইওয়ানে হামলা চালিয়ে সেটি দখল করার চেষ্টা করে, তখন যুক্তরাষ্ট্র তাইওয়ানকে রক্ষায় সামরিকভাবে এগিয়ে আসবে কিনা- এটি ইচ্ছেকৃতভাবেই তারা ধোঁয়াশার মধ্যে রেখেছে।

আরো পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here