দেশে চালু হচ্ছে রেডিয়েন্ট আইপি টিভি


ইন্টারনেটযুক্ত স্মার্টফোন বা টেলিভিশনের মাধ্যমে জনপ্রিয় সব টেলিভিশন চ্যানেল দেখা, ভিডিও অন ডিমান্ড ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের স্ট্রিমিং দেখার সুবিধা দিতে দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হতে যাচ্ছে রেডিয়েন্ট আইপি টিভি।
প্রায় ছয় বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে চালু হওয়া জনপ্রিয় এই আইপি টিভি ইতিমধ্যেই দেড় শতাধিক টেলিভিশন চ্যানেল, রেকর্ডকৃত ভিডিও, মুভি, নাটক, সিরিয়াল ইত্যাদি নিয়ে বাংলাদেশের গ্রাহকদের পরীক্ষামূলকভাবে সেবা দিতে শুরু করেছে।
কেবল টিভি বা ডিসের লাইনে শুধু ইচ্ছেমতো চ্যানেল বদলানো যায়। এর বাইরে তেমন কোনো সুবিধা নেই। কিন্তু আইপি টিভির ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, কোনো টেলিভিশন অনুষ্ঠান সময়মতো না দেখতে পারলে পরেও রেকর্ডকৃত ভিডিও দেখে নেওয়া যাবে। বাংলাদেশে সচরাচর কেবল টিভিতে এক শর কম চ্যানেল দেখা যায়। রেডিয়েন্ট আইপি টিভির মাধ্যমে বর্তমানে দেড় শতাধিক চ্যানেল দেখার সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশের বাইরে রেডিয়েন্ট আইপি টিভির চ্যানেল সংখ্যা ২৫০।

রেডিয়েন্ট আইপি টিভির বাংলাদেশের পরিচালন ব্যবস্থাপক আতিকুর রহমান জানান, সম্প্রতি টেলিকম নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি বাংলাদেশে স্ট্রিমিং সেবা, আইপি টিভি ও ভিডিও সেবা দেওয়ার পথ উন্মুক্ত করে দিয়েছে। আবেদনের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই এ সেবার জন্য লিখিত অনুমতিও মিলেছে। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের এ সেবা চালু করা হবে। স্মার্টফোন ও স্মার্ট টেলিভিশনে রেডিয়েন্ট আইপি টিভির সেবা গ্রহণ করা যাবে। আগ্রহী ব্যক্তিরা গুগল প্লে স্টোর অথবা অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন। ওয়ালটনসহ দেশি টেলিভিশন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো ভবিষ্যতে তাদের টেলিভিশনে ডিফল্টভাবে রেডিয়েন্ট আইপি টিভি ইনস্টল করার বিষয়ে আগ্রহ জানিয়েছে।
রেডিয়েন্ট আইপি টিভি দেশের অন্যতম ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান আইসিসি কমিউনিকেশনের সহযোগী প্রতিষ্ঠান। আইসিসি বর্তমানে দেশের প্রায় ৪০টি জেলায় ইন্টারনেট ও আইপি টেলিফোন সেবা দিচ্ছে। তারা সারা দেশে একই সংযোগে কোয়ার্ডপ্লে (ইন্টারনেট, টিভি, ফোন ও হোম অটোমেশন) বাস্তবায়ন নিয়ে কাজ করছে।
লেবেলসমূহ:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget