রাসেলের চিন্তায় কলকাতার ঘুম হারাম!

যন্ত্রণাটা শুরু হয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালসের সঙ্গে শেষ ম্যাচেই। দিল্লির বোলার হর্ষল প্যাটেলের এক ফুলটস বল রাসেলের কবজিতে বেশ বাজেভাবে লেগেছিল। সেদিন থেকেই কবজির চোট নিয়ে খেলছেন রাসেল। পরের ম্যাচে চেন্নাইয়ের সঙ্গে করলেন অপরাজিত অর্ধশতক। এমনকি গতকাল দিল্লির সঙ্গে ফিরতি ম্যাচেও হেসেছে রাসেলের ব্যাট। কিন্তু যতই হেসেছে রাসেলের ব্যাট, ততই বেড়েছে কবজির চোট। সেটা উপেক্ষা করে খেলতে খেলতে রাসেল খুব সম্ভবত আর চোটকে উপেক্ষা করতে পারছেন না। চেন্নাই সুপার কিংসের সঙ্গে সামনের ম্যাচটা নাও খেলতে পারেন রাসেল।


গতকাল ২১ বলে ৪৫ রানের আরেকটি ঝোড়ো ইনিংস খেললেও, যতক্ষণ ব্যাট করছিলেন বোঝা যাচ্ছিল কবজির চোটটা বেশ ভোগাচ্ছে রাসেলকে। রাসেল যে বেশ ভালোই আহত, এটা আরও স্পষ্ট করে বোঝা যায় কলকাতা বোলিংয়ে এলে। দলটির অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের ইচ্ছা ছিল রাসেলকে দিয়ে পুরো চার ওভার বল করানোর। কিন্তু তিন ওভার বল করেই রাসেল আর খেলা চালিয়ে যেতে পারেননি। আস্তে আস্তে মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে গিয়ে দলের ডাগআউটে বসে থেকেছেন। বসে বসে দেখেছেন এই কলকাতা তাঁকে ছাড়া কতটুকু অসহায়!
এবারের আইপিএলে রাসেল রূপ নিয়েছেন মূর্তিমান আতঙ্কে। একদিন ১৯ বলে ৪৯ রান তুলছেন তো পরদিনই ৪৮ রান করছেন ১৭ বলে। ২৮ বলে ৬২ রানের ইনিংসও আছে তাঁর। গত দুই ম্যাচেও করেছেন অর্ধশতক, কালকেও আরেকটু হলে অর্ধশতকের দেখা পেয়েই যাচ্ছিলেন। রাসেলের ব্যাটে চড়ে তৃতীয়বারের মতো আইপিএল শিরোপা আসবে কলকাতায়, এমনটাই আশা করছেন সমর্থকেরা। কিন্তু রাসেলের ওপর এই অতিনির্ভরতাই কাল হয়েছে কলকাতার। এখন শোনা যাচ্ছে, সামনের ম্যাচটা নাও খেলতে পারেন। এখন কার ওপর ভরসা করবে কলকাতা?
চোটের কারণে উইন্ডিজ অলরাউন্ডার সুনীল নারাইনকে ছাড়াই খেলতে নামছে কলকাতা। এখন রাসেলও সাইডলাইনে চলে গেলে কী হবে তাদের? তবে রাসেলের চোটে আরেক ক্যারিবীয় তারকার মুখে হাসি ফুটতে পারে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে উইন্ডিজকে শেষ ওভারের ঝড়ে শিরোপা জেতানো কার্লোস ব্রাফেটও রয়েছেন কলকাতায়। রাসেল না খেললে, তাঁর জায়গায় ব্রাফেটকে নিয়মিত নামাতে পারে বলিউড তারকা শাহরুখ খানের দল।
(prothomalo)
লেবেলসমূহ:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget