বছরের পর বছর শীতকাল থাকলে কেমন হবে?

(প্রিয়.কম) আমাদের দেশে শীতকাল থাকে মাত্র কয়েক মাস। এরপর বাকি পাঁচটি ঋতু আসে পালাক্রমে। এর কারণ হলো আমাদের বাড়ি; এই পৃথিবীটি ঠিক সোজা হয়ে তার অক্ষের ওপর ঘোরে না, বরং অক্ষ থেকে একটু হেলে গিয়ে ঘোরে; এ কারণেই ঋতু পরিবর্তন হয়, বছরের একেক সময়ে পৃথিবীর একেক অংশে শীতকাল থাকে। শীত আসে, আবার চলেও যায়। কিন্তু জনপ্রিয় সিরিজ ‘গেম অব থ্রোনসের’ মতো যদি পৃথিবীতে বছরের পর বছর শীতকাল থাকত, তাহলে কেমন হতো?

ইউনিভার্সিটি অব অ্যালাবেনির অ্যাটমস্ফেরিক সায়েন্সেজ রিসার্চ সেন্টারের গবেষক, ক্রিস্টোফার ওয়ালচেক জানান, ঠিক কী কারণে এমন বছরের পর বছর শীতকাল থাকবে, তা জানাটা জরুরি।ধরুন, আমাদের পৃথিবী যদি ঘোরা বন্ধ করে দেয়। তা আসলে হবে না, কিন্তু তাত্ত্বিকভাবে ধরে নিলাম, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি দিকে গিয়ে পৃথিবী ঘোরা বন্ধ করে দিলো। এতে উত্তর মেরু পাকাপাকিভাবে সূর্য থেকে দূরে সরে থাকবে। ফলে উত্তর গোলার্ধে দিন হবে ছোট, রাত হবে বড়। মেরুর কাছাকাছি দেশগুলোতে বরফের ঝড় হবে বেশি বেশি। যেহেতু গ্রীষ্ম এসে বরফ গলিয়ে দিতে পারবে না, তাই বরফ জমতেই থাকবে।কয়েক বছর পর বাস্তুসংস্থানে বড় পরিবর্তন চলে আসবে। যেসব গাছ শীতে পাতা ঝরায় এবং বসন্ত এলে নতুন কুঁড়ি বের করে, সেগুলো মারা যেতে থাকবে। এতে কাঠবিড়ালি ও ভাল্লুক খাবার পাবে না, মারা যাবে। হরিণের সংখ্যাও কমে আসবে। সব প্রজাতির প্রাণীই কমে আসবে। হাইবারনেশন বা শীতনিদ্রায় থাকা প্রাণীগুলো মারা পড়বে।
গেম অব থ্রোনসের দেশ ওয়েস্টেরসে বছর দুই-তিন পর শীত চলে যায়। কিন্তু পৃথিবীতে যদি শীত রয়েই যায়? যদি শত শত বছর ধরে শীত না দূর হয়? তাহলে অবস্থাটা হবে অনেকটা আইস এজ বা তুষার যুগের মতো, যেখানে শীত ছাড়া কোনো ঋতু থাকবে না।ঋতুহীন এই আইস এজে পানি তো জমে যাবেই, মাটির ওপরেও মোটা প্রলেপে বরফ জমে তৈরি করবে হিমবাহ। ইউরোপ এবং কানাডা জমে যাবে পুরোপুরি। নিউ ইয়র্ক থাকবে এমনই এক হিমবাহ ঘেঁষে। কৃষিকাজের বদলে মানুষ আবার শিকারের কাজে ফিরে যাবে। তবে এমনটা হওয়ার ঝুঁকি একেবারেই নেই। তাই এমন ভয়াবহ শীত কখনো আপনার জীবনে আসবে না, এটা জেনে নিয়েই উপভোগ করুন ‘গেম অব থ্রোনস’।
সূত্র: লাইভ সায়েন্স
(priyo)
লেবেলসমূহ:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget