পরাজয়ের আতঙ্কে ভুল বকছেন মোদি : মমতা

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে যেন কথার লড়াইয়ে নেমেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। শনিবার ফের তারা একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন। মোদির এক নির্বাচনী বক্তৃতার প্রেক্ষিতে মমতা বলেছেন, হারের আতঙ্কে ভুগে ভুল বকছেন মোদি।

শনিবার মমতার প্রথম নির্বাচনী জনসভা ছিল নদিয়ার পানিঘাটায়। সেখানেই মোদির বুনিয়াদপুরের বক্তব্যের জবাব দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী বলেন, ‘কুকুর কামড়ালে জলাতঙ্ক হয়। উনি হারাতঙ্কে ভুগছেন। আর রোজ ভুলভাল বকছেন।’
লোকসভা নির্বাচনের পর পশ্চিমবঙ্গে মমতা আর ক্ষমতায় থাকবেন না বলে মোদি যে হুঙ্কার দিয়েছেন, তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মমতা বলেছেন, ‘এটা বাংলার নির্বাচন নয়। দিল্লির নির্বাচন। নিজে কী করেছো, তা বলছো না। পাঁচ বছর ঘুরে বেড়িয়েছ। আগে পাঁচ বছরের হিসেব দাও। তার পর ভোট দেব।’
রাজ্য নিয়ে মমতা তার আত্মবিশ্বাস আছে জানিয়ে বলেন, ‘এখানে এলে মোদিকে সরপুরিয়া দেবো। কাঁচাগোল্লা দেব। মিহিদানা দেব। আমরা অতিথি এলে খাওয়াই। কিন্তু ভোট দেব না। আপনারাও ভোট দেবেন না।’
শুরু থেকেই নরেন্দ্র মোদিকে ‘মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রধানমন্ত্রী’ হিসেবে উল্লেখ করছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। গতকালও তিনি বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, পঞ্জাব, রাজস্থান, গুজরাট, উড়িষ্যা আর উত্তর-পূর্বে বিজেপি হারবে। ত্রিপুরার একটি আসন না হয় জিতল। অন্ধ্রপ্রদেশে শূন্য, তামিলনাড়ুতে গোল্লা, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থানেও গোল্লা পাবে। উত্তরপ্রদেশে এ বার ১৩টি আসনও পাবে না।’
মমতা আরও বলেন, ‘দুই কোটি ছেলেমেয়ের চাকরি চলে গেছে। মোদি বাবুর জবাব চাই। সবার পকেটে ১৫ লাখ টাকা দেবেন বলেছিলেন। কালো ধন নিয়ে এসে। দিয়েছেন কি?’
কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপির সমালোচনা করে মমতা বলেন, ‘বাংলার মাটি রবীন্দ্র-নজরুলের মাটি। এ মাটি দাঙ্গা সহ্য করে না। এখানে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়ব না।’
পশ্চিমবঙ্গে পুজো হয় না বলে মোদির অভিযোগের জবাবেব তিনি বলেন, ‘এখানে দুর্গাপুজো হয়, রাস উৎসব হয, লক্ষ্মীপুজো, ঈদ, সরস্বতীপুজো সবই হয়। চৈতন্যদেবও আছেন। মিথ্যা বলার একটা সীমা আছে।’
(jagonews24)
লেবেলসমূহ:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget