ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডায় যৌন হয়রানির অভিযোগ, সড়কে বদরুন্নেসার শিক্ষার্থীরা | Controversy over rent Harassment allegations, Badrunnessa students on the road


হাফ ভাড়া দিতে চাওয়ায় বাসের কন্ট্রাক্টর এক ছাত্রীকে ‘অকথ্য ভাষায়’ গালাগালসহ ধর্ষণের হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সেই কন্ট্রাক্টরের বিচারসহ তিন দফা দাবিতে রবিবার (২১ নভেম্বর) সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করেছে রাজধানীর বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে আইনের আওতায় না আনা হলে মঙ্গলবার ফের আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (২১ নভেম্বর) সকাল থেকে বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা চানখারপুর, বকশীবাজার ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতল এলাকার সড়কে বিক্ষোভ করেন। তাদের সঙ্গে ইডেন মহিলা কলেজসহ আরো কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদে অংশ নেয়।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, তাদের এক সহপাঠী ঠিকানা পরিবহনের একটি বাসে করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসার সময় হাফ ভাড়া দিতে চাইলে বাসের  কন্ট্রাক্টর এসময় ওই শিক্ষার্থীকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন। এমনকি তাকে ধর্ষণেরও হুমকি দেওয়া হয় বলে তারা অভিযোগ করেন। এর প্রতিবাদে তারা সড়ক অবরোধ করেছেন।

শিক্ষার্থীরা আরও অভিযোগ করেন, তারা বাসে উঠলে সংরক্ষিত আসন পান না, চলন্ত বাস থেকেই তাদের দ্রুত নামতে বলা হয়, হাফ ভাড়া নেওয়া হয় না। বাস চালকের সহকারী ও কন্ট্রাক্টর সবসময় কথা শোনায়, হয়রানি করে; এসব বন্ধ করতে হবে। হাফ ভাড়া নিতে হবে, বাসে যৌন হয়রানি বন্ধ করতে হবে এবং বাসে ওঠা ও নামার সময় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।’

২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়ে দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীরা আজকের মতো আন্দোলন সমাপ্ত ঘোষণা করেন। দাবি পূরণ না হলে মঙ্গলবার পুনরায় তারা আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে।

বদরুন্নেসার শারমিন নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘ঠিকানাসহ সবগুলো পরিবহনের বাসে মেয়েদের হয়রানি করা হয়। আমাদের কোনও আসন দেওয়া হয় না। আবার হাফ ভাড়া দিলে আমাদের অশ্লীল কথা শুনতে হয়।

ডিএমপির চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাইউম জানান, শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে চলে গেছে। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget