চোখে পানি ওসি প্রদীপের, পরিণতি টের পাচ্ছেন! | Tears in the eyes of the OC lamp, you can feel the consequences!


বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় গত বুধবার তদন্তকারী কর্মকর্তার সাক্ষ্য-জেরা সমাপ্তির পর কারাগারে ফিরে যাওয়ার সময় আসামি প্রদীপ কুমার দাশকে কাঁদতে দেখা যায়।

আদালতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলেছেন, গত ২৭ জুন অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে মামলাটির বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এর পরই গতকাল তাঁর চোখে পানি দেখা গেল। আদালতের কার্যক্রম শেষে গতকাল বুধবার বিকেল ৫টায় এজলাস থেকে বের করে আসামিদের পুলিশের প্রিজন ভ্যানে তোলার সময় টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কাঁদতে থাকেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) ফরিদুল আলম বলেন, এদিন কাঠগড়ায়ও বেশ ভারাক্রান্ত দেখা গেছে প্রদীপকে। আইনজীবীরা মন্তব্য করেন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার সাক্ষ্য-জেরার পর থেকেই প্রদীপকে হয়তো বা অনুশোচনায় পেয়ে বসেছে।

উল্লেখ্য, গত বছর ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর মেরিন ড্রাইভ চেকপোস্টে গুলি করে হত্যা করা হয় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানকে।

লেবেলসমূহ:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget