ঢাবি ছাত্রী ‘হত্যা’: স্বামী ইফতেখার তিন দিনের রিমান্ডে | DU student 'murder': Husband Iftekhar remanded for three days


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নৃত্যকলা বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী ইলমা চৌধুরী মেঘলার মৃত্যুর ঘটনায় ডিএমপির বনানী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে নিহতের বাবা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আজম মিয়া বলেন, মেঘলার বাবা গতকাল রাতে বাদী হয়ে হত্যা মামলাটি করেন। মামলায় তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। 

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ইলমার স্বামী ইফতেখার আবেদীনকে আটক করে পুলিশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে ইলমা আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করে ইফতেখার। তিনি পুলিশকে বলেন, ‘ইলমা আবেগী ছিল, সে আত্মহত্যা করেছে।’

এদিকে, ইলমার বাবা সাইফুলের অভিযোগ, ইলমার নাকে, ওপরের ঠোঁটে, পিঠের ডান পাশে, বাঁ কানসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের চিহ্ন পেয়েছে তিনি। 

পুলিশ জানায়, ইলমার শরীরের দাগ নিয়ে স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি বলেন, ‘গত (সোমবার) রাতে আমাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় একটু ধস্তাধস্তি হয়েছিল। এটি তেমন কোনো বিষয় নয়। ধস্তাধস্তিতে সে ব্যথা পেতে পারে। তাই শরীরে কালো দাগ হয়েছে।’

ইলমাম বাবার করা মামলায় আসামিরা হলেন- মেঘলার স্বামী ইফতেখার আবেদীন, শ্বশুর ও শাশুড়ি। এ মামলায় মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) আটক হওয়া মেঘলার স্বামী ইফতেখার আবেদীনকে এরই মধ্যে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এছাড়া বাকি দুই আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এর আগে, মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে বনানীতে স্বামীর বাসায় মেঘলার মৃত্যু হয়। স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন এটাকে আত্মহত্যা বললেও মেঘলার পরিবার একে হত্যা বলছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget