‘ভাঙ্গা তরী ছেড়া পাল’ গানের মডেল সেলিম ফকির ৩ হত্যা মামলার আসামি | Model of 'Bhanga Tari Chhera Pal' song Selim Fakir is accused in 3 murder cases


র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তারকৃত 'ভাঙ্গা তরী ছেড়া পাল' গানের বাউল মডেল মো. হেলাল হোসেন ওরফে সেলিম ফকির বগুড়ার চাঞ্চল্যকর বিদুৎ হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তসহ মোট ৩টি হত্যা মামলার আসামি।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক খন্দকার আল মঈন আজ বৃহস্পতিবার দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, সেলিম ফকির ২০০১ সালের বগুড়ার চাঞ্চল্যকর বিদুৎ হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ফেরারি আসামি। তিনি ১৯৯৭ সালে বগুড়ার বিষ্ণু হত্যা মামলা এবং ২০০৬ সালে রবিউল হত্যা মামলার আসামি বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

খন্দকার আল মঈন জানান, আনুমানিক ৬ মাস পূর্বে এক ব্যক্তি ইউটিউবে প্রচারিত একটি গানের বাউল মডেল সম্পর্কে র‌্যাবের কাছে তথ্য প্রদান করেন যে, উক্ত মডেল সম্ভবত বগুড়ার বিদ্যুৎ হত্যা মামলার আসামি। সেই তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হয়। গতকাল রাতে কিশোরগঞ্জের ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

প্রায় ৭ বছর ধরে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ফেরারি জীবন যাপন করে গত প্রায় ৪ বছর ধরে কিশোরগঞ্জের ভৈরব রেলস্টেশনের পাশে এক নারীর সঙ্গে সংসার করেছেন তিনি। বিভিন্ন রেলস্টেশনে তিনি বাউল গান গেয়ে মানুষের কাছে সাহায্য নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

গ্রেপ্তারকৃত সেলিম ফকির ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশুনা করে এলাকায় মুদি দোকানদারী শুরু করেন। পরবর্তীতে হত্যাকাণ্ডসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়েন। আনুমানিক ৫ বছর পূর্বে সেলিম ফকির নারায়ণগঞ্জ রেলস্টেশনে কিশোর পলাশ ওরফে গামছা পলাশের একটি গানের শুটিং চলাকালে রেললাইনের পাশে বাউল গান গাচ্ছিলেন। শুটিং এর এক ব্যক্তি তাকে গানের মিউজিক ভিডিওতে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলে 'ভাঙ্গা তরী ছেড়া পাল' শিরোনামের গানের বাউল মডেল হিসেবে তিনি অভিনয় করেন।


সুত্রঃ দ্যা ডেইলি ইস্টার

লেবেলসমূহ:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget