দৈনিক জনতা https://www.dainikjanata.com/2022/01/operation-in-ukraine-would-be.html

‘ইউক্রেনে অভিযান চালালে তা রাশিয়ার জন্য বিপর্যয়কর হবে’ | 'Operation in Ukraine would be catastrophic for Russia'


ইউক্রেন সীমান্তে রুশ সেনাদের উপস্থিতি নিয়ে উত্তএজনা এখন চরমে। যুক্তরাষ্ট্রের ধারণা যেকোনো সময় দেশটিতে হামলা করতে পারে রাশিয়া। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, হামলা চালালে ‘বিপর্যয়’ দেখবে মস্কো। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দ্য হিল।

বাইডেন বলেন, ‘রাশিয়া যদি ইউক্রেন আক্রমণ করে তাহলে আপনারা সবাই দেখবেন যুক্তরাষ্ট্র কি করে। তাই বিষয়টি পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে রাশিয়ার পদক্ষেপের ওপর।’

ক্ষমতায় আসার এক বছর পূর্তির প্রথম দিনে নিজের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বাইডেন বলেন, ‘আমার ধারণা, পুতিন ইউক্রেনে হামলা চালাতে চান। যুক্তরাষ্ট্রকে পরীক্ষার জন্যও তিনি এমন করতে পারেন।’


পরিস্থিতি বেশি খারাপের দিকে গেলে রাশিয়া নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়তে পারে এমন তথ্য জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও এর সঙ্গীদের ওপর চাপ প্রয়োগ করলে রাশিয়ার ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবে। যা আন্তর্জাতিক অর্থনীতি থেকে দেশটিকে আলাদা করে দেবে।’

আরো পড়ুনঃ-যেকোনো মুহূর্তে ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ

বাইডেন বলেন, আমি পরিষ্কার করে বলতে চাই, ইউক্রেনে হামলা হলে রাশিয়ার ওপর যেই নিষেধাজ্ঞা আরোপ হবে তাতে দেশটির ডলার লেনদেনে বড় আকারের ক্ষতি হবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। সেইসঙ্গে ইউরোপের অর্থনীতিতেও। কিন্তু রাশিয়ার জন্য যা হবে তা হচ্ছে ‘বিপর্যয়’।

এদিকে, মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে জানায়, ইউক্রেন সীমান্তে বাহিনীর গোছানোর কাজ প্রায় সম্পন্ন করেছে রাশিয়া। রুশ এই বাহিনী যেকোনো সময় হামলা চালাতে পারে ইউক্রেনে।

ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ গোয়েন্দা সমীক্ষা যা মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএনের সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ওই অঞ্চলে এক লাখ ২৭ হাজারের বেশি সেনা মোতায়েন করেছেন রাশিয়া।

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, রাশিয়ান ফেডারেশন’স আর্মড ফোর্সেস–এর এক লাখ ছয় হাজার সেনাসহ বিমান ও নৌ–সেনা মিলিয়ে প্রায় এক লাখ ২৭ হাজার সদস্যের ওই বাহিনী প্রস্তুত করা হয়েছে।  

ওই সমীক্ষায় এই পরিস্থিতিকে 'কঠিন' বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া বলা হয়েছে, ইউক্রেন বিশ্বাস করে এই রণসজ্জার মধ্য দিয়ে রাশিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নে ভাঙন এবং ন্যাটোকে দুর্বল করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

দৈনিক জনতা বাংলাদেশসহ বিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম