আর্জেন্টিনার অজেয় যাত্রা চলছেই | Argentina's invincible journey continues


অধিনায়ক লিওনেল মেসি আগে থেকেই নেই। কার্ডের খাড়ায় হারাতে হয় আরও চার জনকে। 

তারপরও আক্রমণাত্মক কৌশল ধরে রেখে দারুণ পারফরম্যান্স উপহার দিল আর্জেন্টিনা। যথেষ্ট গোল না মিললেও কলম্বিয়ার বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয় ঠিকই তুলে নিল লিওনেল স্কালোনির দল।

আর্জেন্টিনার করদোবায় বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছে স্বাগতিকরা। প্রথমার্ধেই গোলটি করেন লাউতারো মার্তিনেস।

কোভিড থেকে সেরে ওঠা মেসিকে ধকল কাটিয়ে উঠতে যথেষ্ট সময় দিতে এবং পিএসজির অনুরোধে তাকে বাছাইয়ের এই পর্বের দুই ম্যাচে দলে রাখেননি স্কালোনি। গত শুক্রবার চিলির বিপক্ষে ২-১ গোলে জেতা ম্যাচের একাদশ থেকেও ছয়টি পরিবর্তন করেন আর্জেন্টিনা কোচ। তবে তাদের পারফরম্যান্সে তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি তাতে।

সব মিলিয়ে টানা ২৯ ম্যাচে অপরাজিত রইল আগেই কাতার বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করা আর্জেন্টিনা, যার শুরুটা হয়েছিল ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে।

ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই আক্রমণাত্মক খেলার চেষ্টা করতে থাকে দুই দল। কলম্বিয়া যদিও তেমন সুবিধা করতে পারছিল না। একটু একটু করে চাপ বাড়াতে থাকে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা।

চিলির বিপক্ষে ম্যাচের শুরুতেই দূর থেকে চমৎকার এক গোলে দলকে এগিয়ে নেওয়া আনহেল দি মারিয়া এদিনও তেমন এক চেষ্টা করেন। তবে ষোড়শ মিনিটে তার দূরপাল্লার শটটি পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়।



আড়াই বছরের বেশি সময় ধরে অপরাজিত দলটি ২৯তম মিনিটে এগিয়ে যায়। বাঁ থেকে মার্কোস আকুনার ক্রসে ডি-বক্সে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁ পায়ের জোরাল শটে গোলটি করেন মার্তিনেস। চার দিন আগে চিলির বিপক্ষেও জালের দেখা পেয়েছিলেন ইন্টার মিলান ফরোয়ার্ড।

পাঁচ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারত। তবে দি মারিয়ার দুর্দান্ত ফ্রি কিক বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক।

বিরতির ঠিক আগে সমতায় ফেরার সুবর্ণ সুযোগ পায় কলম্বিয়া। মিগুয়েল বোরহার সামনে একমাত্র বাধা ছিল গোলরক্ষক। ঠিক সময়ে এগিয়ে গিয়ে শট নেওয়ার জায়গা ছোট করে দেন এমিলিয়ানো মার্তিনেস, তার সোজাসুজি মেরে বসেন বোরহা। তারপরও সুযোগ ছিল, কিন্তু দ্বিতীয় দফায় লুইস দিয়াসের শট রক্ষণে প্রতিহত হয়।

দ্বিতীয়ার্ধেও বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য ধরে রেখে খেলতে থাকে আর্জেন্টিনা। ৬৪তম মিনিটে আবারও দূর থেকে চেষ্টা করেন দি মারিয়া। তার বুলেট গতির শট দারুণ নৈপুণ্যে ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ফেরান কামিলো ভারগাস।

ম্যাচের ৬৯তম মিনিটে দি মারিয়াকে তুলে নেন কোচ। ম্যাচের প্রেক্ষাপটে কলম্বিয়ার গোলরক্ষকের জন্য যা বড় এক স্বস্তিরই বলা যায়। পুরোটা সময়ই দারুণ সব আক্রমণ গড়ে ও দূরপাল্লার শটে ভীতি ছড়ান তিনি।



৭৪তম মিনিটে আর্জেন্টিনার জিওভানি লো সেলসোর ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শট ক্রসবারের একটু ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। শেষ দিকে নিজেদের ভুলে গোল খেতে বসেছিল দলটি। প্রতিপক্ষের একটি শট গোলমুখে রুখতে গিয়ে ঠিকমতো পায়ে লাগাতে পারেননি ডিফেন্ডার লিসান্দ্রো মার্তিনেস। বল ভেতরে ঢুকতে যাচ্ছিল, গোললাইন থেকে কোনোমতে আটকান গোলরক্ষক।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে এখন পর্যন্ত অপরাজিত আর্জেন্টিনা ১৫ ম্যাচে ১০ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুই নম্বরে। তাদের চেয়ে ৯ পয়েন্ট কম নিয়ে তিন নম্বরে একুয়েডর।

১৬ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে উরুগুয়ে।

এই অঞ্চলের ১০ দেশের বাছাই থেকে শীর্ষ চারটি দল কাতার বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার টিকেট পাবে। পঞ্চম স্থানে থাকা দলকে খেলতে হবে আন্তঃমহাদেশীয় প্লে অফ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Holy Foods ads

Holy Foods ads

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget