ফরিদপুরের ২ হাসপাতাল বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন | The district administration has closed two hospitals in Faridpur


ফরিদপুরে লাইসেন্স না থাকায় ও সরকারি অধ্যাদেশ লঙ্ঘন করার অপরাধে  শহরের আরামবাগ হাসপাতাল ও নিউলাইফ জেনারেল হাসপাতাল নামে দু’টি বেসরকারি হাসপাতাল বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন।  


জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টা থেকে আরামবাগ হাসপাতাল এবং সাড়ে ১২টা থেকে নিউলাইফ জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধের নির্দেশনা কার্যকর হয়।

বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে ওই দুই হাসপাতালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের পর এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন ফরিদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমাম রাজীব।

 ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুমন রঞ্জন সরকার, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতা ফাতেমা বেগম সে সময় উপস্থিত ছিলেন।


জানা গেছে, মেডিক্যাল প্র্যাকটিস এবং বেসরকারি ক্লিনিক ও ল্যাবরেটরি নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশ ১৯৮২ অনুযায়ী পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত ওই দুই হাসপাতালের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. ছিদ্দীকুর রহমান  জানান, লাইসেন্স ছাড়াই নিউলাইফ হাসপাতালটি পরিচালিত হচ্ছিল। 
অন্যদিকে, আরামবাগ হাসপাতালে নির্ধারিত সংখ্যক চিকিৎসক ও সেবিকা নেই। যা মেডিক্যাল প্র্যাকটিস এবং বেসরকারি ক্লিনিক ও ল্যাবরেটরি নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশের পরিপন্থী। তাই হাসপাতাল দু’টি বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেখানে ভর্তি থাকা রোগীদের ভোগান্তির বিষয়টি মাথায় রেখে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget