আদালত অবমাননার দায়ে কৃষি কর্মকর্তা কারাগারে

আদালত অবমাননার দায়ে কৃষি কর্মকর্তা কারাগারে
Agriculture officer jailed for contempt of court


উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে সময়মতো নিম্ন আদালতে হাজির না হওয়ায় আদালত অবমাননার দায়ে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা এহেসান উল্লাহকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

আজ দুপুরে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবোধ চন্দ্র রায় ও বাদীপক্ষের আইনজীবী জাকির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 


জানা গেছে, ২০২১ সালে স্থানীয় সরকার ইউপি নির্বাচনে বালিয়াডাঙ্গী থানার বড় পলাশবাড়ি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী শাহাবুদ্দিন মিঞার নির্বাচনী অফিস, দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে অগ্নিসংযোগ ও সেখানে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে হত্যার উদ্দেশে আব্দুল মালেককে গুরুতর জখম করার ঘটনায় ওই ইউনিয়নের বোবড়া গ্রামের কেকারু মোহাম্মদের ছেলে সিদ্দিক আলী বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১৫০/২৯৯ জনকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। 

আরো পড়ুন: সন্তানের সামনে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় আদালতে মামলা

মামলার আসামিরা হলেন, উপজেলার বোবড়া গ্রামের শামসুল হকের ছেলে উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা এহেসান উল্লাহ বাবুল (৫২), তাঁর দুই ভাই উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোমিনুল ইসলাম ভাসানী (৫০), বালিয়াডাঙ্গী টেকনিক্যাল ও বিএম কলেজের অধ্যক্ষ সাদেকুল ইসলাম (৪৮)। একই গ্রামের মৃত লুৎফর রহমানের ছেলে আবু মাস্টার (৫২), বেলসারা ঝুড়ি বস্তি গ্রামের সামশুল হুদার ছেলে পল্টু (৪০), ঝিকড়া বেলসারা গ্রামের মফিজ উদ্দীনের ছেলে মো. আফাক (৫০), একই গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে দবিরুল (৩৫), বেলসারা বালিয়াবস্তি গ্রামের মৃত সাহেরতের ছেলে নরেশ (৪০), বেলসারা বানিয়াবস্তি গ্রামের আলহাজ ছেপাতেলীর ছেলে মো. সুলতান (৫২)। 


বাদীপক্ষের আইনজীবী জাকির হোসেন বলেন, ‘মামলার ৪নং আসামি আবু মাস্টার হাজতবাস করে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। মামলার ১নং আসামি এহেসান উল্লাহ উচ্চ আদালত থেকে ৪ সপ্তাহের জন্য জামিনে মুক্তি পান কিন্তু তিনি নির্ধারিত তারিখে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ না করায় উচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করেন। গত সোমবার নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করলে ঠাকুরগাঁও চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক নিত্যানন্দ সরকার আদালত অবমাননার দায়ে ওই কর্মকর্তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 


জাকির হোসেন আরও বলেন, ‘মামলার ১নং আসামি নির্ধারিত সময়ে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ না করায় ন্যায়বিচারের স্বার্থে আদালত ওই আসামি জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে।’ 

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবোধ চন্দ্র রায় বলেন, ‘বিষয়টি জানার পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ মঙ্গলবার লিখিতভাবে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেবেন।’  




আরো পড়ুন:




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget