সবাই নৌকায় উঠতে চায়, বেশী উঠলে নৌকা ডুবার সম্ভাবনা আছে- তথ্যমন্ত্রী

সবাই নৌকায় উঠতে চায়, বেশী উঠলে নৌকা ডুবার সম্ভাবনা আছে- তথ্যমন্ত্রী 
Everybody Wants To Get On A Boat, There Is A Possibility Of Sinking Boat If It Gets Too High - Information Minister


তৃণমূলের নেতাকর্মীরাই হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রাণ। তারাই আওয়ামী লীগকে যুগে যুগে ঠিকিয়ে রেখেছে। অনেক নেতা বিভিন্ন সময় ভিন্ন সুরে কথা বলেছেন। বিভিন্ন সময় ক্ষমতাসীনদের সাথে হাত মিলিয়েছে। কিন্তু তৃণমূলের নেতাকর্মীরা কখনো দ্বিধান্বিত হননি। তৃণমূলের নেতাকর্মীরা কখনো মূল নেতৃত্বকে ছেড়ে যাননি।


মঙ্গলবার (২৯মার্চ) সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।


তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, ক্ষমতায় আসার পর এখন সবাই আওয়ামী লীগের নৌকায় উঠতে চাই। নৌকায় সবসময় বেশি মানুষ নিতে নেই। নৌকায় বেশি মানুষ নিলে নৌকা বিপদাপন্ন হয়। আওয়ামী লীগ একটি গণসংগঠন কোন বদ্ধ জলাশয় নয়। আমাদের দলে যে কেউ যোগ দিতে পারে, তবে যে কাউকে আমরা নিতে পারিনা।

আরো পড়ুন: সন্তানের সামনে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় আদালতে মামলা

তিনি আরও বলেন, যারা পিঠ বাঁচানোর জন্য, অর্থবিত্ত অর্জনের জন্য, অবৈধ সম্পদ রক্ষা করার জন্য আওয়ামী লীগে আসতে চান তাদের দরকার নাই। যারা সমাজে প্রতিষ্ঠিত, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্বাস করে তারা অবশ্যই আওয়ামী লীগে আসতে পারে। কিন্তু যারা জায়গা দখল ও মাদক কারবারেযুক্ত তাদেরকে আমাদের দলে প্রয়োজন নাই।


রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাষ্টার আসলাম খাঁনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিমের সঞ্চালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা স্বজন কুমার তালুকদার, আবুল কাশেম চিশতি, পৌর মেয়র শাহজাহান সিকদার, মুহাম্মদ আলী শাহ, নজরুল ইসলাম তালুকদার, ইদ্রিছ আজগর চেয়ারম্যান, ইফতেখার হোসেন বাবুল, বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার, আকতার হোসেন খান, ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, শামসুদ্দোহা সিকদার আরজু, নিলুফা আকতার, আয়ুব রানা,  মোর্শেদ তালুকদার, নাছির উদ্দিন রিয়াজ, মো. রাসু প্রমুখ।


এদিকে সন্ধ্যার পর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ রাঙ্গুনিয়া উপজেলার শিল্পকলা একাডেমির মুক্তমঞ্চে বাংলাদেশ বেতারের আয়োজনে শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামুলক বহিরাঙ্গন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন।

আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

এতে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, নারী উন্নয়ন ও নারী প্রগতির ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়েছে সেটি সমগ্র পৃথিবীর জন্য একটি অনন্য উদাহারণ। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনে করেন, নারী উন্নয়নের মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন নিহীত। কারণ দেশের অর্ধেক জনসংখ্যা হচ্ছে নারী। তাদের উন্নয়ন ব্যতিরেকে মানব উন্নয়ন, সমাজ উন্নয়ন, রাষ্ট্রের সম্ভব হয়। রাষ্ট্রের উন্নতি অগ্রগতি প্রগতি সম্ভব নয়।


তিনি বলেন, আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা নারী ও শিশু উন্নয়নের ওপর অনেক গুরুত্ব দিয়েছেন। গত ১৩ বছরে নারীর যেভাবে ক্ষমতায়ন হয়েছে, মাতৃ মৃত্যুর হার শিশু মৃত্যুর হার যেভাবে কমেছে বাংলাদেশে এটি সমস্ত উন্নয়নশীল দেশের জন্য একটি উদাহারণ। আমাদের দেশে শিশু মৃত্যুর হার এবং প্রসুতি মৃত্যুর হার ভারত পাকিস্তানের চেয়ে অনেক কম।


ড. হাছান বলেন, সমস্ত মানব উন্নয়ন সূচকে আমরা ভারত পাকিস্তানকে পেছনে ফেলে বহুদূর এগিয়েছি। এটির অন্যতম প্রধান কারন হচ্ছে বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে আমাদের সরকার নারী ও শিশু উন্নয়নের উপর অনেক গুরুত্বারোপ করেছে বিধায় এটি সম্ভব হয়েছে।

বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক আহম্মদ কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে বহিরাঙ্গন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, যুগ্ন সচিব মো. আনছার আলী, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার, ইউএনও ইফতেখার ইউনুস প্রমুখ।



আরো পড়ুন:






একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget