দৈনিক জনতা https://www.dainikjanata.com/2022/03/blog-post_142.html

ইউক্রেনে এবার কিলার ড্রোন পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র!

 ইউক্রেনকে যেসব অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
The weapons that the United States is giving to Ukraine


ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ অবস্থায় রুশ বাহিনীকে থামাতে পশ্চিমা বিশ্বের একের পর এক নিষেধাজ্ঞার পরও চলমান রয়েছে হামলা। এ অবস্থায় ইউক্রেনকে সাহায্য করতে অস্ত্র সহায়তা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তারই ধারাবাহিকতায় এবার কিয়েভকে ১০০টি কিলার ড্রোন দেওয়ার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকে একের পর এক হামলা চালিয়ে এক প্রকার ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে দেশটির বেশ কয়েকটি শহর। রুশ সেনাদের রুখতে প্রাণপনে চেষ্টা করে যাচ্ছে ইউক্রেনের সেনারা। 


এ অবস্থায় ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো। অস্ত্র সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানসহ বেশ কয়েকটি দেশ। এবার এরই ধারাবাহিকতায় যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনকে শতাধিক কিলার ড্রোন দেবে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি। 

আরো পড়ুন: সন্তানের সামনে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় আদালতে মামলা

নাম প্রকাশ না করার শর্তে মার্কিন সামরিক বাহিনীর একটি সূত্র বিবিসিকে জানায়, ইউক্রেনকে ‘সুইচব্লেড থ্রি হান্ড্রেড’ নামের ১০০টি অস্ত্র দেওয়ার কথা জানিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। এগুলো কিলার ড্রোন নামেই পরিচিত। মার্কিন কর্মকর্তাদের দাবি, শক্রপক্ষকে শনাক্ত করে তাদের ওপর নিখুঁতভাবে হামলা চালাতে সক্ষম এই ড্রোন। 

এর আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকির আহ্বানে সাড়া দিয়ে রুশ হামলা প্রতিরোধে কিয়েভকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের সামরিক সহায়তার ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মার্কিন কংগ্রেসে দেওয়া বক্তব্যে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে আরও সামরিক সহায়তা চান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। ওই ভাষণের পরই ইউক্রেনকে ক্ষেপণাস্ত্রবিধ্বংসী আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থাসহ বিভিন্ন যুদ্ধসরঞ্জাম সরবরাহের ঘোষণা দেন বাইডেন। 


এক প্রতিবেদনে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানায়, বুধবার (১৬ মার্চ) মার্কিন কংগ্রেসে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন জেলেনস্কি। চলমান যুদ্ধে কিয়েভের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখায় যুক্তরাষ্ট্রকে ধন্যবাদ জানিয়ে, মার্কিন সামরিক সহায়তা আরও বাড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।


জেলেনস্কির ওই আবেদেনের একদিন না যেতেই সাহায্যের পরিমাণ বাড়ানোর ঘোষণা দেয় ওয়াশিংটন। অস্ত্র পাঠানোর ঘোষণা দিয়ে বাইডেন বলেন, ইউক্রেনে পুতিন যাতে কখনোই বিজয়ী হতে না পারেন তা নিশ্চিত করতেই দেশটিতে এ অস্ত্রসহায়তা পাঠানো হচ্ছে। একই সঙ্গে মিত্র দেশগুলোকেও ইউক্রেনে সাহায্যের পরিমাণ বাড়ানোর আহ্বান জানান তিনি। 

আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

বাইডেন বলেন, আমাদের মিত্র দেশগুলোকে ইউক্রেনে তাদের দেওয়া সহযোগিতা আরও বাড়াতে হবে। আমরা আমাদের সহযোগিতা চালিয়ে যাব। ইউক্রেনে মর্মান্তিক ও অপ্রয়োজনীয় যুদ্ধের অবসানে সব চেষ্টা করে অব্যাহত থাকবে।  


সামরিক সহায়তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে ক্ষেপণাস্ত্রবিধ্বংসী আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থাকে। আরও রয়েছে, ভূমি থেকে আকাশে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র, দুই কোটি রাউন্ড গোলাবারুদ, সাঁজোয়া যানবিধ্বংসী অস্ত্রব্যবস্থা। এ ছাড়া ড্রোন, রাইফেল, পিস্তল, মেশিনগান, শটগান, রকেট ও গ্রেনেড লাঞ্চারও রয়েছে এই তালিকায়। 


আরো পড়ুন:






অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

দৈনিক জনতা বাংলাদেশসহ বিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম