যশোরের শার্শার নাভারনে স্বাক্ষর জালিয়াতি করে জমি রেজিস্ট্রী করে জমি দখলের অভিযোগ

 শার্শার নাভারনে স্বাক্ষর জালিয়াতি করে জমি দখলের অভিযোগ

Allegation of land grabbing by forging signature in Navarre of Sharjah


যশোরের শার্শার নাভারনে স্বাক্ষর জালিয়াতি করে জমি রেজিস্ট্রী করে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। জমির মালিক অসুস্থ্য জালাল উদ্দিন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। থানায় অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার না পেয়ে ভয়ে বাড়ি হতে বের হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগে জানা যায়, শার্শা উপজেলার নাভারন দক্ষিন বুরুজ বাগান গ্রামে মৃত: ওমর আলীর ছোট ছেলে জালাল উদ্দিনের নিজ নামীয় ৭৭ নং বুরুজ বাগান মৌজায় সাবেক দাগ ১৬৩৫, ১৬৩৬ ও ১৮/১৭৫ নং হাল দাগ ৪৬১১ ও ২৪ নং দাগের সাড়ে ৫৪ শতক জমি ৩০/০৫/১৯৯৫ সালে শার্শা সাব রেজিস্ট্রী অফিসে রেস্ট্রিীকৃত ৩৬৬১ নং কবলা দলিল মুলে বড় ভাই আব্দুল জলিল রেজিস্ট্রী করে নেই। কিন্তু জালাল উদ্দিনের প্রবাসী পুত্র কামাল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, আমার পিতা কোন জমি বিক্রয় করি নাই। আমর চাচা আব্দুল জলিল যে দলিল খানি দেখাচ্ছে সে খানে আমার পিতার নাম স্বাক্ষর মোঃ জালাল উদ্দিন লেখা আছে। কিন্তু আমার পিতা কোন লেখা পড়া জানে না। আমার পিতা স্বাক্ষর করার সময় শুধুমাত্র জালাল লেখে। যেটা তার ব্যাংকের চেক বইয়ের পাতায় এবং পাসপোর্ট বইয়ের স্বাক্ষরে প্রমানিত। 

আরো পড়ুন: সন্তানের সামনে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় আদালতে মামলা

ইতি মধ্যে জালাল উদ্দিনের পুত্র কামাল হোসেন ডিভি লটারির মাধ্যমে আমেরিকায় বসবাস শুরু করে। বিগত কিছুদিন পূর্বে আব্দুল জলিলের ভাইপো কামাল হোসেনের কাছে ১৬শতাংশ জমি বিক্রয় করলেও তা দখল দিচ্ছিল না। পরে বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কতৃক মিমাংশীত হয়। এতে করে আব্দুল জলিল আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। ছুটি শেষে আমেরিকান প্রবাসি কামাল হোসেন আমেরিকায় কর্মস্থলে যোগ দিলে গত ৩০ জানুয়ারী সকাল ১০ টায় আব্দুল জলিল নিজ সন্তান আবুল কালাম আজাদ ও সন্ত্রাসী বজলেসহ ৪ জন কামাল হোসেনের আমেরিকান প্রবাসি মা ইসমোতারা ও তার বোন তানিয়া খাতুনের উপর হামলা চালায় এবং এলাকা ছেড়ে চলে যাবার জন্য হুমকি প্রদান করে। এ সময় ইসমোতারার স্বামী আমেরিকান প্রবাসি প্যারালাইসিসে আক্রান্ত জালাল উদ্দিন পাশেই হুইল চেয়ারে বসেছিল। বজলে বাহিনীর হামলায় আতঙ্কিত হয়ে বর্তমানে অথর্ব হয়ে গেছে। তাকে ঘর হতে কেউ বাইরে বার করতে পারছে না। এ ব্যাপারে ঘটনার দিনই সন্ধ্যায় তানিয়া খাতুন বাদি হয়ে ৫জনের নাম উল্লেখ করে শার্শা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। 

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, আমেরিকান প্রবাসি কামাল হোসেনের পরিবার ভূমী দশ্যুদের পৌষ্য সন্ত্রাসীদের কতৃক হামলার শিকার হলেও পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলেছে। সন্ত্রাসী জামায়াত নেতা বজলে রহমান হত্যার হুমকি অব্যাত রেখেছে।

এ ব্যাপারে শার্শা থানা পুলিশের ইনচার্জ মামুন খাঁনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি এসআই তারিকুল ইসলামের কাছে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্ত পূর্বক মামলা রুজু করার জন্য বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।


আরো পড়ুন:


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget