নিজ কার্যালয়ে বন্ধুর গুলিতে প্রাণ হারালেন ডমিনিকানের পরিবেশমন্ত্রী

 



নিজ কার্যালয়ে বন্ধুর গুলিতে প্রাণ হারালেন ডমিনিকানের পরিবেশমন্ত্রী


ডমিনিকান রিপাবলিকের পরিবেশ ও প্রাকৃতিক সম্পদবিষয়ক মন্ত্রী অরলান্দো হর্গে মেরা নিজ কার্যালয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। তাঁকে গুলি করেছেন তাঁরই এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু। ডমিনিকান রিপাবলিক সরকারের কর্মকর্তাদের বরাতে বিবিসি এসব তথ্য জানিয়েছে।


হামলার সময় ৫৫ বছর বয়সী মন্ত্রী হর্গে মেরা একটি বৈঠক করছিলেন। এ সময় কমপক্ষে ছয়টি গুলির শব্দ শোনা যায়। প্রেসিডেন্টের এক মুখপাত্র বলেছেন, হত্যাকারীর নাম মিগুয়েল ক্রুজ। তিনি মন্ত্রীর বাল্যবন্ধু। তাঁকে নিরাপত্তা হেফাজতে রাখা হয়েছে। মন্ত্রীকে গুলি করার উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি।

মন্ত্রী হর্গে মেরার পরিবারের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, যে ব্যক্তি তাঁকে (অরলান্দো হর্গে মেরা) গুলি করেছেন, তিনি তাঁর বাল্যবন্ধু। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘যে ব্যক্তি এ কাজ করেছেন, তাঁকে আমাদের পরিবার ক্ষমা করে দিচ্ছে। হর্গে মেরার একটি বড় গুণ ছিল তিনি ক্ষোভ পুষে রাখতেন না।’


২০২০ সালের জুলাই থেকে প্রেসিডেন্ট লুইস আবিনাদের প্রশাসনে মন্ত্রী হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন হর্গে মেরা। এক টুইটার পোস্টে হর্গে মেরার শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট আবিনাদের। একজন ভালো বন্ধুকে হারিয়েছেন উল্লেখ করে আক্ষেপ জানান তিনি।

সরকারের উদ্ভাবনবিষয়ক মন্ত্রিপরিষদের পরিচালক বার্তোলোম পুজালস হর্গে মেরার মৃত্যুকে ট্র্যাজেডি হিসেবে উল্লেখ করেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শান্তি বজায় রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ডমিনিকান রিপাবলিকের সাবেক প্রেসিডেন্ট সালভাদর হর্গে ব্লানকোর ছেলে হর্গে মেরা। ক্ষমতাসীন মডার্ন রেভল্যুশনারি পার্টির (পিআরএম) প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্যও তিনি। হর্গে মেরার স্ত্রী ব্রাজিলে ডমিনিকান রাষ্ট্রদূত হিসেবে কর্মরত।


এ দম্পতির দুই ছেলে। তাঁদের একজনও মডার্ন রেভল্যুশনারি পার্টির (পিআরএম) আইনপ্রণেতা।


আরো পড়ুন:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget