Articles by "আন্তর্জাতিক"

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের টাকা ক্ষতিগ্রস্থদেরকে দিন : মোমিন মেহেদী

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি বিচক্ষণ নেত্রী, দয়া করে আড়ম্বরপূর্ণ উৎসব না করে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের টাকা ক্ষতিগ্রস্থদেরকে দিন; সাধারণভাবে উৎসব আর অসাধারণভাবে বন্যাক্রান্তদেরকে সহায়তা করলেই ইতিহাসে স্মরণিয় হয়ে থাকবেন আপনি, বলেছেন নতুনধারা বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিকেল ৪টায় পুরানা পল্টন মোড়ে ‘বন্যাক্রান্তদের পাশে দাঁড়ান’ শীর্ষক পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, বন্যাক্রান্ত ১৪টি জেলায় লক্ষ লক্ষ মানুষ সহায়তার আশায় পথ চেয়ে আছে, তাদের পাশে না দাঁড়িয়ে যদি কোটি কোটি টাকা খরচ করে আড়ম্বরপূর্ণ উৎসব বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার করে, তাহলে বুঝে নিতে হবে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের রাজনীতি তারা করছে না। তাদের রাজনীতি দুর্নীতির রাজনীতি, তাদের রাজনীতি কেবল লোভ মোহের রাজনীতি।

অতীতের সকল সরকারের মতো করে এই সরকারও যদি দুর্নীতি করে আবার সেই দুর্নীতির পক্ষে সাফাই গায় তাহলে বুঝে নিতে হবে বাংলাদেশের রাজনীতি-অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দেশকে দেউলিয়া করে হলেও মন্ত্রী-এমপি-জনপ্রতিনিধিরা তাদের আখের গোছানোর রাস্তাতেই হাঁটছে। যা শুধুমাত্র রাজনীতি পরিপন্থিই না; ধর্ম-মানবতা-সমাজ-সভ্যতারও পরিপন্থি।

তিনি আরো বলেন, এমন পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য নতুনধারার রাজনীতিকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। বাংলাদেশের রিমোট এরিয়া থেকে শুরু করে সকল স্তরে রাজনৈতিক ঐক্যবদ্ধতায় অগ্রসর হতে হবে নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির রাজনীতিকদের।

এসময় প্রেসিডিয়াম মেম্বার বীর মুক্তিযোদ্ধা কৃষকবন্ধু আবদুল মান্নান আজাদ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজেদ রানা, সদস্য শেখ লিজা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

আরো পড়ুন:


 


সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ যা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন


স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার বিএম কনটেইনার ডিপোতে বিস্ফোরণের পেছনে ‘কিছু একটা ঘটেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন,‘নিশ্চয়ই কিছু একটা ঘটেছে, এটা আমার বিশ্বাস। না হলে এতগুলো প্রাণ যায় না।’


আজ মঙ্গলবার পুরান ঢাকায় ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরে অগ্নিনির্বাপককর্মী শাকিল তরফদারের জানাজা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।


কীভাবে এই ভয়াবহ বিস্ফোরণ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘কার গাফিলতি , স্যাবোট্যাজ বা উদ্দেশ্যমূলক কি না জানতে এনকোয়ারি করতে হবে।’


এই দুর্ঘটনার পেছনে ‘পাওয়ারফুল’ কেউ থাকলে শাস্তি হবে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল পাল্টা প্রশ্ন করেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী কোনোদিন কাউকে ছাড় দিয়েছেন? যারই সংশ্লিষ্টতা থাকুক শাস্তি পেতে হবে।’ 


সীতাকুণ্ডে এতজন অগ্নিনির্বাপক কর্মীর প্রাণহানির পর ফায়ার সার্ভিসের আধুনিকায়ন, আরও প্রশিক্ষণ প্রয়োজন বলে মনে করেন কি না এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। তিনি বলেন, ‘এখনকার ফায়ার সার্ভিস আগের মতো নয়। এখন তারা আর ঘন্টিবাজানো বাহিনী নয়, একটি অত্যাধুনিক বাহিনী। আগে আগুন নেভার পর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে হাজির হতো। এই বাহিনীর সক্ষমতা বৃদ্ধি করেছে সরকার। সক্ষমতা বৃদ্ধিতে আরও কাজ চলছে।’


ডিপোতে আগুন নিয়ন্ত্রণে অগ্নিনির্বাপকবাহিনীর সাহসিকতার প্রশংসা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা অকুতোভয় বলেন তিনি। সিলেটে জঙ্গিবাদ বিরোধী অভিযান ও এফ আর টাওয়ারে ফায়ার সার্ভিসের ভূমিকার কথা স্মরণ করেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘তাঁরা জীবনের পরোয়া করেন না, ডাক আসলে এক মুহূর্ত দেরি করেন না।’

গত শনিবার রাতে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। আগুন লাগার ৬১ ঘণ্টা পর আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলে জানান ঘটনাস্থলে উপস্থিত সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের ১৮ ব্রিগেডের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফুল ইসলাম। 

এই অগ্নিকাণ্ডে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৪৩ জনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে।

এর আগে কলকারখানায় আগুন লাগলেও এবারই প্রথম ফায়ার সার্ভিসের এত কর্মীর প্রাণহানি ঘটল। এখন পর্যন্ত নয়জনের মৃত্যুর খবর আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে বাহিনীটি।

মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত নিখোঁজ আছেন তিনজন। তা ছাড়া মুমূর্ষু অবস্থায় আরও দুজন সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আরো পড়ুন:

  1. ফেনীর ফুলগাজীতে দুই মহিলা ছিনতাইকারী গ্রেফতার
  2. Afran Nisho: ভারতীয় ওয়েব সিরিজে আফরান নিশো
  3. জয়নাল হত্যা মামলার সব আসামি খালাস; পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থার নির্দেশ
  4. ফেনীর দাগনভূঁঞায় মোটরসাইকেল চোরাই চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার 
  5. বালিয়াডাঙ্গীতে এক পরিবারের চার সন্তানই প্রতিবন্ধী
  6. পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ ইউরোপকে সরাসরি হুমকি দিচ্ছে 
  7. Russia Ukrain: বাংলাদেশি জাহাজে হামলার জন্য ইউক্রেনকে দুষছে রাশিয়া 
  8. সাড়ে ১২ কোটি মানুষ টিকার আওতায়
  9. নিয়ন্ত্রণহীন ভোজ্য তেলের বাজার
  10. ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী







বঙ্গবন্ধুকন্যা শুধু কওমি সনদের স্বীকৃতি দেননি, চাকুরিও দিয়েছেন -তথ্যমন্ত্রী এম. মতিন




তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার ইসলাম ও আলেম-ওলামাদের জন্য যা করেছে, অতীতের কোনো সরকার তা করেনি।

শনিবার (৪ জুন) দুপুরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা অডিটোরিয়ামে বিভিন্ন মাদ্রাসার শিক্ষক ও আলেমদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আলেম ওলামাদের শত বছরের পুরনো দাবি ছিল বাংলাদেশে একটি স্বতন্ত্র ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা। ব্রিটিশ শাসন ভেঙে পাকিস্তান হলো, এরপর বাংলাদেশ হলো, কিন্তু ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় আর প্রতিষ্ঠা হয়নি। জামায়াত ইসলামীকে সাথে নিয়ে বিএনপি সরকার গঠন করলো, এরশাদ সাহেব মাওলানা মান্নানকে ধর্মমন্ত্রী বানালেন কিন্তু ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় হয়নি। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকারই ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করলো।




ড. হাছান মাহমুদ বলেন, কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতির দাবি বহু বছরের পুরনো। বেগম খালেদা জিয়া কিংবা বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তখনো এই দাবি ছিল। উনি আলেম-ওলামাদের নিয়ে ভাত খাওয়াতেন, কিন্তু দাবি পূরণ করেননি। আমাদের রাঙ্গুনিয়ার কৃতি সন্তান মাওলানা আহমদ শফী সাহেব আলেম-ওলামাদের নিয়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করলেন যেনো কওমি মাদ্রাসার সনদের স্বীকৃতি দেন।

মন্ত্রী বলেন, অনেকে ভেবেছেন আমাদের নেত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, বাস্তবায়ন হবেনা। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনা কওমি সনদের স্বীকৃতি দিয়েছেন। স্বীকৃতি দেওয়ার পর অনেকে বলেছেন স্বীকৃতি দিয়েছেন কিন্তু চাকুরী হবেনা, চাকুরী পেলে বেতন পাবেননা। কিন্তু আমাদের নেত্রী শুধু কওমি সনদের স্বীকৃতি দেননি, তাদের চাকুরিও দিয়েছেন, তারা এখন সরকারি বেতন পাচ্ছেন। এটি কল্পনার বাইরেও ছিলো।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, 'আজকে সারাদেশে এক লাখ মসজিদভিত্তিক মক্তব করা হয়েছে, রাঙ্গুনিয়াতেও দুই শতাধিক মসজিদভিত্তিক মক্তব প্রতিষ্ঠা হয়েছে। প্রতিটি মক্তবের আলেম ৫২’শ টাকা করে ভাতা পাচ্ছেন। এটি আলেম সমাজ কখনো ভাবেনি। দারুল আরকাম এবতেদায়ি মাদ্রাসার প্রতিটিতে দু’জন করে শিক্ষক ১২ হাজার টাকা করে ভাতা পাচ্ছেন। এখন হজে যাবার সময় ঢাকায় ইমিগ্রেশন হয়ে যাচ্ছে। সৌদি আরব গিয়ে আগের মতো ঘন্টার পর ঘন্টা থাকতে হচ্ছেনা।'




আলেমদের উদ্দেশ্যে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, শেখ হাসিনার সরকার প্রতিটি জেলা-উপজেলায় ৫৬০টি মডেল মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেছেন, যা কেউ কখনো ভাবেনি। ব্রিটিশ আমলে দেশ বিভক্ত হয়েছিল মুসলমানদের জন্য একটি দেশ, হিন্দুদের জন্য আরেকটি দেশ। সেই পাকিস্তান আমলেও জেলা-উপজেলায় সরকারিভাবে কোন মসজিদ হয়নি।

'জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার ইসলামের জন্য এবং আলেম ওলামাদের জন্য যে কাজগুলো করেছে, আলেমরা অন্যদের কাছে তা দয়া করে বলবেন- এই ফরিয়াদ রইলো' নিবেদন করে তথ্যমন্ত্রী নিজ নির্বাচনী এলাকা রাঙ্গুনিয়ায় ইসলামের খেদমতে কাজের বিবরণ দেন।

ড,. হাছান মাহমুদ বলেন, আপনারা আমাকে এমপি নির্বাচিত করার পর সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি ইসলাম এবং আলেম-ওলামাদের খেদমত করার জন্য। আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশন ও আমাদের পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে বিশটিরও বেশি নতুন মসজিদ ভবন তৈরি করা হয়েছে। এভাবে প্রতিটি মসজিদ, মাদরাসা, এতিমখানা ও হেফজখানায় সরকারি অনুদানের পাশাপাশি ব্যক্তিগত সহায়তাও পৌঁছানো হয়েছে। 

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি লোকমানুল হক তালুকদারের সভাপতিত্বে ও ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জসিম উদ্দিন তালুকদারের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন রাঙ্গুনিয়ার বেতাগী দরবার-এ-আস্তানা শরীফের পীর গোলামুর রহমান আশরাফ শাহ, মেহেরিয়া মাদরাসার পরিচালক মাওলানা আনাস মাদানী।

এছাড়াও মতবিনিময় সভায় অন্যন্যাদের বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান বাবু স্বজন কুমার তালুকদার, ইউএনও আতাউল গণি ওসমানি, পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার, ইউপি চেয়ারম্যান ইদ্রিছ আজগর, ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, রাঙ্গুনিয়া নূরুল উলুম কামিল মাদরাসার শায়খুল হাদিস মাওলানা নজমুল হক নঈমী, রাঙ্গুনিয়া সরকারি কলেজের অধ্যাপক ড. মাওলানা আবদুল মাবুদ, আলমশাহপাড়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, রাণীর হাট আল আমিন হামিদিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নজরুল ইসলাম আল কাদেরী, খন্ডলিয়াপাড়া মাদরাসার পরিচালক মাওলানা মো. সুলতান, কোদালা মাদরাসার পরিচালক মাওলানা আবদুল কাদের, মাওলানা গোলাম কিবরিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মাওলানা সৈয়দ আইয়ুব নুরী, মাওলানা গোলাম কিবরিয়া প্রমুখ।


আরো পড়ুন:



 





যাত্রী হয়রানি বন্ধে দীর্ঘদিন পর দালালমুক্ত হলো বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন 


 দীর্ঘদিন পর হলেও দালালমুক্ত করা হলো বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট কাস্টমস ও পুলিশ ইমিগ্রেশন। চলতি বছরের শুরু থেকেই বহিরাগতদের প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন বেনাপোল কাস্টমস ও বন্দর কর্তৃপক্ষ। ভারত গমনাগমনকারী পাসপোর্ট যাত্রী হয়রানি বন্ধে জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ফলে পাসপোর্টযাত্রী ছাড়া কোন ব্যাক্তিকে কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন টার্মিনালে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

 

বেনাপোল কাস্টমস হাউসের যুগ্ম-কমিশনার আব্দুল রশীদ মিয়া যোগদানের পরপরই সাহসী পদক্ষেপের কারণে কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনকে দালালমুক্ত করতে প্যাসেঞ্জার টার্মিনালে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক স্ক্যানিং মেশিন ও সিসি ক্যামেরা। সশস্ত্র আনসার দিয়ে জোরদার করা হয়েছে যাত্রীদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। টার্মিনালের প্রধান ফটকে বন্দরের নিরাপত্তা কর্মী, আনসার সদস্য ও কাস্টমস কর্মকর্তাদের সার্বক্ষনিক নজরদারিতে রাখায় প্রবেশ করতে পারছে না স্থানীয় পাসপোর্ট দালালেরা। ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষ তাদের সেবার মান বৃদ্ধি করায় যাত্রীরা দ্রæত ও সুশৃঙ্খল ভাবে নিজেরাই সব ধরনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে পারছেন।


যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রতিবছর প্রায় ২০ লাখ যাত্রী ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে যাতায়াত করে থাকে। করোনা সংক্রমন কমে আসায় যাত্রী যাতায়াত বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২৪ এপ্রিল থেকে ১ জুন পর্যন্ত বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে যাতায়াত করেছে ১ লাখ ৪১ হাজার ২১০ জন পাসপোর্টযাত্রী। এর মধ্যে ভারতে গেছেন ৭৭ হাজার ৩২০ জন। আর ভারত থেকে বাংলাদেশে এসেছেন ৬৩ হাজার ৮৯০ জন পাসপোর্ট যাত্রী।

 

কাস্টমস সুত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে বেনাপোল চেকপোস্টে এক শ্রেণীর লোক দূরদূরান্ত থেকে আসা পাসপোর্টযাত্রীদের নানা ভাবে হয়রানি করে আসছিল। সিরিয়াল ছাড়া তাদের পাসপোর্ট দ্রæত করে দেয়ার নাম করে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল ঐ চক্রটি। পাসপোর্ট যাত্রীদের পক্ষ থেকে কাস্টমসে অভিযোগ করলে চেকপোস্ট কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনকে দালালমুক্ত করার ঘোষণা দেয়া হয়। যাত্রীদের সেবার মান উন্নত করতে চেকপোস্ট প্যাসেঞ্জার টার্মিনালের বহিরাগত দালাল উৎখাতে এই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। যাতে টার্মিনাল এলাকায় বহিরাগত কোনো দালাল ঢুকতে না পারে সে জন্য প্রতিনিয়ত তদারকি করা হচ্ছে।


এদিকে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে (বর্ডার কার্গো জিরো পয়েন্টে) বহিরাগত অনুপ্রবেশ বন্ধ ও পাসপোর্টযাত্রীদের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষে গত ৩১ মে চেকপোস্ট প্যাসেজ্ঞার টার্মিনাল সম্মেলন কক্ষে বেনাপোল স্থল বন্দরের পরিচালক (ট্রাফিক) মনিরুজ্জামান এর সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বেনাপোল কাস্টমস হাউজের যুগ্ম-কমিশনার আব্দুল রশীদ মিয়া, উপ-কমিশনার অনুপম চাকমা, এইচ এম আহসানুল কবির, আবদুল কাইয়ুম, বন্দরের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) আব্দুল জলিল, উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবির তরফদার, পোর্ট থানার ওসি কামাল হোসেন ভূইয়া, চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন ওসি মোহাম্মাদ রাজুসহ বিজিবি, এনএসআই ও ডিজিএফআই কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


বেনাপোল স্থল বন্দরের পরিচালক (ট্রাফিক) মনিরুজ্জামান বলেন, কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন এলাকায় বহিরাগত কেউ প্রবেশ করতে পারবে না। পোর্টের লেবাররা তাদের সীমানার মধ্যে যাত্রীদের ব্যাগেজ বহন করতে পারবে। কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন এলাকায় যাত্রীরা নিজেরাই ট্রলি ব্যবহার করে যাতায়াত করবেন। লেবাররা যাতে পাসপোর্টযাত্রীদের হয়রানি করতে না পারে সেদিকে নজর রাখা হবে। চেকপোস্টে একটি যাত্রী হেলপ ডেস্ক স্থাপন করা হবে। যাতে যাত্রীরা তাদের যাতায়াতে সর্বত্র সেবা পাবেন। সেই সাথে খাবার ও সুপিয় পানি ও পর্যাপ্ত ট্রলির ব্যবস্থা করা হবে। সেই সাথে অসুস্থ ও বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা যাতায়াতে পাবেন হুইল চেয়ার। 


বেনাপোল চেকপোস্ট পুলিশ ইমিগ্রেশনের ওসি মোহাম্মাদ রাজু জানান, বর্তমানে প্রতিটি যাত্রীকে সিরিয়ালে দাঁড় করিয়ে তাদের পাসপোর্টের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হচ্ছে। যাত্রী সেবা বাড়াতে বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ইতিমধ্যে কাউন্টার বৃদ্ধি করা হয়েছে। আানসার ও মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আলাদা কাউন্টারে সেবা দেওয়া হচ্ছে।


বেনাপোল কাস্টম হাউজের যুগ্ম-কমিশনার আব্দুল রশীদ মিয়া বলেন, করোনা সংক্রমন কমে যাওয়ায় বৃদ্ধি পেয়েছে যাত্রী পারাপার। প্রতিদিন প্রায় ৭/৮ হাজার পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত করে। চেকপোস্টে যাত্রী সেবা নিশ্চিত করতে বহিরাগতসহ সকল অবৈধ অনুপ্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বর্তমানে চেকপোস্ট কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনকে দালালমুক্ত করা হয়েছে। তবে এটি বাস্তবায়ন করতে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে হয়েছে। বর্তমানে কোনো প্রকার হয়রানি ছাড়া নিরাপদে যাত্রীরা ভারত গমনাগমন করছেন। কোন ধরনের হুমকী ধামকি দিয়ে কাস্টমস এ দালাল প্রবেশের কোন সুযোগ নেই। ঝামেলামুক্ত ভাবে যাত্রীরা যাতে ভারত যাতায়াত করতে পারে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পাসপোর্ট যাত্রীদের মালামাল বহনের জন্য কাস্টসসের পক্ষ থেকে প্রায় ২০০ ট্রলি দেওয়া হয়েছে।



আরো পড়ুন:


 



বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫টি পিস্তল ও ৫ রাউন্ড গুলিসহ পিতা-পুত্র আটক

যশোরের বেনাপোল সীমান্তের সাদিপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ৫টি পিস্তল ও ৫ রাউন্ড গু‌লিসহ শাহাজজামাল কালু (৫৫) ও সোহেল (৩৫)কে আটক করেছে বিজিবি। সোমবার ভোরে কালু ও সোহেলকে নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রসহ আটক করা হয়।
আটককৃত কালু সাদিপুর গ্রামের মানিক মন্ডলের ছেলে ও সোহেল কালুর ছেলে।
যশোর-৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সায়েদ মিনহাজ সিদ্দিকী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি কালু ও তার ছেলে সোহেল ভারত থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র চালান এনে বাড়িতে মজুত করেছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির একটি টিম তাদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৫ টি পিস্তল ও ৫ রাউন্ড গু‌লিসহ তাদেরকে আটক করে।


আরো পড়ুন:

 



কেশবপুরে বিশ্ব মা দিবস পালিত হয়েছে
পরেশ দেবনাথ, কেশবপুর, যশোর


মা মানেই মমতা, মা মানেই নিশ্চয়তা, মা মানেই নিরাপত্তা, মা মানেই অস্তিত্ব, মা মানেই আশ্রয়, মা মানেই একরাশ অন্ধকারে একবুক ভালোবাসা। মা হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে প্রিয় সবচেয়ে আপন। সেই মায়ের মমতা, ত্যাগ মর্যাদাকে বিশেষভাবে স্মরণের একটি দিন আজ । আজ বিশ্ব মা দিবস। মায়ের প্রতি ভালবাসা প্রতিটি মুহুর্তের। তারপরও বিশ্বের সকল মানুষ যেন এক সঙ্গে মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পারে সেজন্য মে মাসের দ্বিতীয় রোববারকে আন্তর্জাতিক মা দিবস হিসাবে ঘোষনা করা হয়।

কেশবপুরে রবিবার (৮ মে) সকালে আন্তর্জাতিক মা দিবস পালিত হয়েছে। কেশবপুর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের আয়োজনে আন্তর্জাতিক মা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার রূপালী রানী।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আরিফুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিশু বিষয়ক অফিসার বিমল কুমার কুন্ডুর সঞ্চালনায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এখনো ভিন্ন দিনে মা দিবস পালন করা হয়। সব মায়ের ভালোবাসাই অকৃতিম ও এক । প্রতিটি মানুষের কাছে তার মা তুলনাহীনা ও অনন্যা। বাস্তবতার নিরীখে আমরা প্রতিদিন মা' কে শ্রদ্ধায়, ভালোবাসায়, আবেগে মুড়িয়ে দিই না, দিতে পারি না। কিন্তু জন্মধাত্রী মায়ের সাথে সন্তানের আচরণ সন্তানের মতো হওয়াটাই বাঞ্ছনীয় । জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে আনা জার্ভিস ও তার মেয়ে আনা মারিয়া রিভস জার্ভিসের উদ্যোগে মা দিবসের সূচনা হয়।

১৯০৮ সালের ১০ মে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব ভার্জিনিয়ার গ্রাফইনের গির্জায় আনুষ্ঠানিকভাবে মা দিবস পালন শুরু হয়। ১৯১১ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি রাজ্যে মা দিবস পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। পরে ১৯১৪ সালের ৮ মে থেকে প্রতি মে মাসের দ্বিতীয় রোববার আন্তর্জাতিকভাবে মা দিবস উদযাপিত হয়ে আসছে। আনুষ্ঠানিকতা নয়, আজকের এ দিনে নতুন করে প্রতিদিনই মায়েদের প্রতি একই রকম সম্মান, শ্রদ্ধাবোধ বজায় রেখে মানবিক আচরণের মাধ্যমে স্বর্গীয় সম্পর্কের মর্যাদা অক্ষুন্ন করার অঙ্গীকার করতে হবে।


আরো পড়ুন:

  1. অনলাইন নিউজ পোর্টাল মুক্তির ৭১ নিউজের সম্পাদকের ৪৩তম জন্মবার্ষিকী
  2. পুতিন: ইউক্রেন তার দেয়া কথা রাখেনি
  3. কেশবপুরের মঙ্গলকোট বিল গরালিয়া খালের ব্রিজ ঝুঁকিপূর্ণ, পূণরায় নির্মানের দাবী
  4. যে কারণে ১০ বছর মিডিয়া থেকে দূরে থাকেন বিজয়
  5. ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বাইডেনকে ভারতের অবস্থান জানালেন মোদী
  6. পরিচালনায় শাহরুখ-পুত্র, ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু করলেন আরিয়ান
  7. ইউক্রেন, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা সঙ্কটের মধ্যে মোদী-বাইডেন এর ভার্চুয়াল বৈঠক আজ
  8. পরশুরামে ৫শতাধিক পরিবারের মাঝে "ঢাকাস্থ'' পরশুরাম সমিতি"র ইফতার সামগ্রী বিতরণ
  9. ফরিদপুরের ভাঙ্গায় পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য নিয়ে ২ যুবককে কুপিয়ে হত্যা এবং আহত ১
  10. ফেনীতে ভ্রাম্যমান আদলতের অভিযানে সাড়ে ৫ লাখ টাকা জরিমানা, ২ ইউপি সদস্য সহ ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা
  11. ফেনীতে কোটি টাকা মুল্যের ভারতীয় শাড়ি, থান কাপড়, থ্রি-পিস ও লেহেঙ্গাসহ চোরাকারবারী আটক

কিয়েভে নতুন রুশ হামলা, আমেরিকাকে সতর্ক করেছে রাশিয়া
New Russian attack in Kiev, Russia warns US


কিয়েভের মেয়র জানিয়েছেন জানিয়েছে রাজধানীর ডারনিতস্কি শহরতলীতে শনিবার ভোর রাতে তিনটি বিস্ফোরণ হয়েছে। কমপক্ষে একজনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করা হয়েছে। আহত হয়েছে বেশ কজন।


জানা গেছে, রুশ এই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে কিয়েভের প্রান্তে ট্যাংক এবং সাঁজোয়া যান তৈরির একটি কারখানায়।

আরো পড়ুন: কেশবপুরের বসুন্তিয়া সার্বজনীন বাসন্তী পূজা সমাপ্ত

শুক্রবার রাতেও কিয়েভের খুব কাছে একটি অস্ত্র তৈরির কারখানায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়। ঐ কারখানায় নেপচুন নামে জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি হয় যে ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই বৃহস্পতিবার কৃষ্ণসাগরে রুশ যুদ্ধ জাহাজ মস্কভা ডুবে যায় বলে জোর ধারণা করা হচ্ছে।


মস্কভা ডুবে যাবার পর রাশিয়া প্রায় দুই সপ্তাহ বিরতির পর নতুন করে ইউক্রেনের রাজধানীতে পর পর দুদিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালালো। কিয়েভের মেয়র নগরবাসীদের সতর্ক করেছেন এমন আরো হামলা হতে পারে। পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর লাভিভেও বিস্ফোরণ হয়েছে।


আঞ্চলিক গভর্নর ম্যাক্সিম কোজিৎস্কি জানিয়েছে সকাল পৌনে ছয়টা থেকে সকাল সাতটার ভেতর বিমান হামলা হয়েছে। তিনি বলেন ইউক্রেনের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সক্রিয় ছিল, কিন্তু হামলার টার্গেট কী ছিল বা কেউ হতাহত হয়েছে কিনা জানা যায়নি।


ওদিকে, রাশিয়া লিখিতভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছে যে ইউক্রেনকে অস্ত্র দেওয়া বন্ধ না করলে "অপ্রত্যাশিত পরিণতি" ভোগ করতে হবে।


মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরকে পাঠানো দুই পাতার রুশ কূটনৈতিক নোটটি মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট দেখেছে। চিঠিতে বলা হয়েছে "অত্যন্ত স্পর্শকাতর" অস্ত্র-সরঞ্জাম ইউক্রেনকে দিয়ে "সংঘাতে তেল ঢালা হচ্ছে" যা "অপ্রত্যাশিত পরিণতি" ডেকে আনতে পারে।


প্রেসিডেন্ট বাইডেন সম্প্রতি ইউক্রেনের জন্য অতিরিক্ত ৮০ কোটি ডলার মূল্যের সামরিক সাহায্য দেওয়ার একটি প্রস্তাব অনুমোদন করার পর রাশিয়া এই হুঁশিয়ারি দিল।


জানা গেছে, প্রস্তাবিত নতুন সাহায্যের আওতায় আমেরিকা ইউক্রেনকে দূরপাল্লার কামান, উপকূল প্রতিরক্ষার ড্রোন, ভারি সাঁজোয়া যান এবং ট্যাংক ও বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে।


মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর রুশ এই চিঠি নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে না চাইলেও মস্কোতে শুক্রবার রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা নিশ্চিত করেছেন আমেরিকাকে এমন একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে।


তিনি বলেন আরো কিছু দেশকেও একইরকম চিঠি দেওয়া হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে রাশিয়া সেসব দেশকেই লিখিত এই সতর্ক বার্তা পাঠিয়েছে যারা ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠাচ্ছে।



আরো পড়ুন:





যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget