Articles by "আন্তর্জাতিক"

 



বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫টি পিস্তল ও ৫ রাউন্ড গুলিসহ পিতা-পুত্র আটক

যশোরের বেনাপোল সীমান্তের সাদিপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ৫টি পিস্তল ও ৫ রাউন্ড গু‌লিসহ শাহাজজামাল কালু (৫৫) ও সোহেল (৩৫)কে আটক করেছে বিজিবি। সোমবার ভোরে কালু ও সোহেলকে নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রসহ আটক করা হয়।
আটককৃত কালু সাদিপুর গ্রামের মানিক মন্ডলের ছেলে ও সোহেল কালুর ছেলে।
যশোর-৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সায়েদ মিনহাজ সিদ্দিকী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি কালু ও তার ছেলে সোহেল ভারত থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র চালান এনে বাড়িতে মজুত করেছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির একটি টিম তাদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৫ টি পিস্তল ও ৫ রাউন্ড গু‌লিসহ তাদেরকে আটক করে।


আরো পড়ুন:

 



কেশবপুরে বিশ্ব মা দিবস পালিত হয়েছে
পরেশ দেবনাথ, কেশবপুর, যশোর


মা মানেই মমতা, মা মানেই নিশ্চয়তা, মা মানেই নিরাপত্তা, মা মানেই অস্তিত্ব, মা মানেই আশ্রয়, মা মানেই একরাশ অন্ধকারে একবুক ভালোবাসা। মা হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে প্রিয় সবচেয়ে আপন। সেই মায়ের মমতা, ত্যাগ মর্যাদাকে বিশেষভাবে স্মরণের একটি দিন আজ । আজ বিশ্ব মা দিবস। মায়ের প্রতি ভালবাসা প্রতিটি মুহুর্তের। তারপরও বিশ্বের সকল মানুষ যেন এক সঙ্গে মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পারে সেজন্য মে মাসের দ্বিতীয় রোববারকে আন্তর্জাতিক মা দিবস হিসাবে ঘোষনা করা হয়।

কেশবপুরে রবিবার (৮ মে) সকালে আন্তর্জাতিক মা দিবস পালিত হয়েছে। কেশবপুর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের আয়োজনে আন্তর্জাতিক মা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার রূপালী রানী।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আরিফুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিশু বিষয়ক অফিসার বিমল কুমার কুন্ডুর সঞ্চালনায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এখনো ভিন্ন দিনে মা দিবস পালন করা হয়। সব মায়ের ভালোবাসাই অকৃতিম ও এক । প্রতিটি মানুষের কাছে তার মা তুলনাহীনা ও অনন্যা। বাস্তবতার নিরীখে আমরা প্রতিদিন মা' কে শ্রদ্ধায়, ভালোবাসায়, আবেগে মুড়িয়ে দিই না, দিতে পারি না। কিন্তু জন্মধাত্রী মায়ের সাথে সন্তানের আচরণ সন্তানের মতো হওয়াটাই বাঞ্ছনীয় । জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে আনা জার্ভিস ও তার মেয়ে আনা মারিয়া রিভস জার্ভিসের উদ্যোগে মা দিবসের সূচনা হয়।

১৯০৮ সালের ১০ মে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব ভার্জিনিয়ার গ্রাফইনের গির্জায় আনুষ্ঠানিকভাবে মা দিবস পালন শুরু হয়। ১৯১১ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি রাজ্যে মা দিবস পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। পরে ১৯১৪ সালের ৮ মে থেকে প্রতি মে মাসের দ্বিতীয় রোববার আন্তর্জাতিকভাবে মা দিবস উদযাপিত হয়ে আসছে। আনুষ্ঠানিকতা নয়, আজকের এ দিনে নতুন করে প্রতিদিনই মায়েদের প্রতি একই রকম সম্মান, শ্রদ্ধাবোধ বজায় রেখে মানবিক আচরণের মাধ্যমে স্বর্গীয় সম্পর্কের মর্যাদা অক্ষুন্ন করার অঙ্গীকার করতে হবে।


আরো পড়ুন:

  1. অনলাইন নিউজ পোর্টাল মুক্তির ৭১ নিউজের সম্পাদকের ৪৩তম জন্মবার্ষিকী
  2. পুতিন: ইউক্রেন তার দেয়া কথা রাখেনি
  3. কেশবপুরের মঙ্গলকোট বিল গরালিয়া খালের ব্রিজ ঝুঁকিপূর্ণ, পূণরায় নির্মানের দাবী
  4. যে কারণে ১০ বছর মিডিয়া থেকে দূরে থাকেন বিজয়
  5. ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বাইডেনকে ভারতের অবস্থান জানালেন মোদী
  6. পরিচালনায় শাহরুখ-পুত্র, ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু করলেন আরিয়ান
  7. ইউক্রেন, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা সঙ্কটের মধ্যে মোদী-বাইডেন এর ভার্চুয়াল বৈঠক আজ
  8. পরশুরামে ৫শতাধিক পরিবারের মাঝে "ঢাকাস্থ'' পরশুরাম সমিতি"র ইফতার সামগ্রী বিতরণ
  9. ফরিদপুরের ভাঙ্গায় পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য নিয়ে ২ যুবককে কুপিয়ে হত্যা এবং আহত ১
  10. ফেনীতে ভ্রাম্যমান আদলতের অভিযানে সাড়ে ৫ লাখ টাকা জরিমানা, ২ ইউপি সদস্য সহ ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা
  11. ফেনীতে কোটি টাকা মুল্যের ভারতীয় শাড়ি, থান কাপড়, থ্রি-পিস ও লেহেঙ্গাসহ চোরাকারবারী আটক

কিয়েভে নতুন রুশ হামলা, আমেরিকাকে সতর্ক করেছে রাশিয়া
New Russian attack in Kiev, Russia warns US


কিয়েভের মেয়র জানিয়েছেন জানিয়েছে রাজধানীর ডারনিতস্কি শহরতলীতে শনিবার ভোর রাতে তিনটি বিস্ফোরণ হয়েছে। কমপক্ষে একজনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করা হয়েছে। আহত হয়েছে বেশ কজন।


জানা গেছে, রুশ এই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে কিয়েভের প্রান্তে ট্যাংক এবং সাঁজোয়া যান তৈরির একটি কারখানায়।

আরো পড়ুন: কেশবপুরের বসুন্তিয়া সার্বজনীন বাসন্তী পূজা সমাপ্ত

শুক্রবার রাতেও কিয়েভের খুব কাছে একটি অস্ত্র তৈরির কারখানায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়। ঐ কারখানায় নেপচুন নামে জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি হয় যে ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই বৃহস্পতিবার কৃষ্ণসাগরে রুশ যুদ্ধ জাহাজ মস্কভা ডুবে যায় বলে জোর ধারণা করা হচ্ছে।


মস্কভা ডুবে যাবার পর রাশিয়া প্রায় দুই সপ্তাহ বিরতির পর নতুন করে ইউক্রেনের রাজধানীতে পর পর দুদিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালালো। কিয়েভের মেয়র নগরবাসীদের সতর্ক করেছেন এমন আরো হামলা হতে পারে। পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর লাভিভেও বিস্ফোরণ হয়েছে।


আঞ্চলিক গভর্নর ম্যাক্সিম কোজিৎস্কি জানিয়েছে সকাল পৌনে ছয়টা থেকে সকাল সাতটার ভেতর বিমান হামলা হয়েছে। তিনি বলেন ইউক্রেনের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সক্রিয় ছিল, কিন্তু হামলার টার্গেট কী ছিল বা কেউ হতাহত হয়েছে কিনা জানা যায়নি।


ওদিকে, রাশিয়া লিখিতভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছে যে ইউক্রেনকে অস্ত্র দেওয়া বন্ধ না করলে "অপ্রত্যাশিত পরিণতি" ভোগ করতে হবে।


মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরকে পাঠানো দুই পাতার রুশ কূটনৈতিক নোটটি মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট দেখেছে। চিঠিতে বলা হয়েছে "অত্যন্ত স্পর্শকাতর" অস্ত্র-সরঞ্জাম ইউক্রেনকে দিয়ে "সংঘাতে তেল ঢালা হচ্ছে" যা "অপ্রত্যাশিত পরিণতি" ডেকে আনতে পারে।


প্রেসিডেন্ট বাইডেন সম্প্রতি ইউক্রেনের জন্য অতিরিক্ত ৮০ কোটি ডলার মূল্যের সামরিক সাহায্য দেওয়ার একটি প্রস্তাব অনুমোদন করার পর রাশিয়া এই হুঁশিয়ারি দিল।


জানা গেছে, প্রস্তাবিত নতুন সাহায্যের আওতায় আমেরিকা ইউক্রেনকে দূরপাল্লার কামান, উপকূল প্রতিরক্ষার ড্রোন, ভারি সাঁজোয়া যান এবং ট্যাংক ও বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাচ্ছে।


মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর রুশ এই চিঠি নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে না চাইলেও মস্কোতে শুক্রবার রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা নিশ্চিত করেছেন আমেরিকাকে এমন একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে।


তিনি বলেন আরো কিছু দেশকেও একইরকম চিঠি দেওয়া হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে রাশিয়া সেসব দেশকেই লিখিত এই সতর্ক বার্তা পাঠিয়েছে যারা ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠাচ্ছে।



আরো পড়ুন:





ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বাইডেনকে ভারতের অবস্থান জানালেন মোদী
Modi briefed Biden on India's position on the Ukraine war


মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে ইউক্রেনের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একই সঙ্গে ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে নয়াদিল্লির ‘নিরপেক্ষ অবস্থানও ব্যাখ্যা’ করেছেন তিনি। সোমবার (১১ এপ্রিল) এক ভার্চুয়াল বৈঠকে মোদী ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করেন।


যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে ওষুধ ও ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোয় ভারতের ভূমিকার কথা জানিয়ে বাইডেনকে মোদী বলেন, ভারত আশা করে যে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে ধারাবাহিক আলোচনার মাধ্যমেই শান্তির পথের সন্ধান মিলবে।


ভার্চুয়াল বৈঠকে বাইডেনের সঙ্গে হাজির ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে সফররত ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

আরো পড়ুন: ইউক্রেন, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা সঙ্কটের মধ্যে মোদী-বাইডেন এর ভার্চুয়াল বৈঠক আজ

ইউক্রেনে যুদ্ধ নিয়ে কূটনৈতিক স্তরে ভারতের ভূমিকা নিয়ে ইতোমধ্যেই আমেরিকা এবং ইউরোপের একাধিক দেশ প্রকাশ্যে হতাশা প্রকাশ করেছে। জাতিসংঘে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আনা একটিও প্রস্তাব সমর্থন করেনি মোদী সরকার। পাশাপাশি, রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের ভারত সফর এবং রুশ তেল কেনার বিষয়ে নয়াদিল্লির আগ্রহ নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। যুদ্ধ শুরু হওয়ার পরপরই রাশিয়ার ওপর একাধিক ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আমেরিকা এবং তার সহযোগী দেশগুলি।


এই পরিস্থিতিতে মোদী-বাইডেনের বৈঠককে ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলে মনে করা হচ্ছে। মোদী সোমবার বাইডেনকে মনে করিয়ে দেন, ইতোমধ্যেই আন্তর্জাতিক স্তরে বুচায় গণহত্যার নিন্দা করেছে ভারত। নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিও সমর্থন করেছে। মোদী বলেন, ‘আমি ইউক্রেন এবং রাশিয়া দু’দেশের নেতাদের সঙ্গেই একাধিকবার কথা বলেছি এবং তাদের সরাসরি কথা বলার জন্য অনুরোধ করেছি।


এদিকে, ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের কাছে রোববার এক হাজার দুশ’র বেশি মরদেহ পাওয়া গেছে বলে দেশটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। গত মাসে রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালানোর পর থেকে এখন পর্যন্ত ওই অঞ্চলে বহু বেসামরিক নিহত হয়েছে। বিভিন্ন শহর ছেড়ে লাখ লাখ মানুষ পালাতে বাধ্য হয়েছে।


আরও আক্রমণের আশঙ্কায় দেশটির পূর্বাঞ্চল থেকে লোকজন পালিয়ে যাচ্ছে বলে এএফপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।


মাত্র একদিন আগেই দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহরে এক শিশুসহ ১০ বেসামরিক নিহত হয়। এর আগে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের কাছে বুজোভা গ্রামে আরও একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। সেখানে ডজনখানেক বেসামরিক নাগরিকের মরদেহ মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


এর আগে রাজধানী কিয়েভের কাছে বুজোভা গ্রামে আরও একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। সেখানে ডজনখানেক বেসামরিক নাগরিকের মরদেহ মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।



আরো পড়ুন:




পুতিন: ইউক্রেন তার দেয়া কথা রাখেনি
Putin: Ukraine did not keep its word


রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন মঙ্গলবার জনসম্মুখে যুদ্ধ নিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, তুরস্কে শান্তি আলোচনায় ইউক্রেন রাশিয়ার যেসব দাবির  বিষয়ে একমত হয়েছিল এবং মেনে নেওয়ার কথা দিয়েছিল সেই কথা এখন তারা ঘুরিয়ে দিয়েছে। পুতিনের দাবি কথা দিয়ে কথা রাখেনি ইউক্রেন। 

আরো পড়ুন: পরিচালনায় শাহরুখ-পুত্র, ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু করলেন আরিয়ান

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ এনে ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তার অজুহাত দেখিয়ে শান্তি আলোচনা থেকে সরে গিয়েছে ইউক্রেন। 


তিনি জানান, ইউক্রেনের মত পরিবর্তনের কারণে তাদের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার  মতো পর্যায়ে আছে।


ইউক্রেনের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পর্যায়ে আছে, পুতিনের এমন কথার অর্থ বেশ বড়ই। তিনি এর মাধ্যমে বুঝিয়েছেন ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার চলমান যুদ্ধ সহসাই থামছে না। এই যুদ্ধের ব্যপ্তি আরও দীর্ঘ ও লম্বা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 


এদিকে পুতিন তার বক্তব্যে জানান, রাশিয়া ইউক্রেনে মহৎ উদ্দেশ নিয়ে গেছে। তারা দোনবাসের সাধারণ মানুষদের সহায়তা করতে গেছেন। তাদের উদ্দেশ্য মহৎ হওয়ায় এই অভিযানে রাশিয়া সফলতা পাবেই। 


এ ব্যাপারে পুতিন বলেন, আমাদের লক্ষ্য হলো যেসব লক্ষ্য ঠিক করেছি সেগুলো অর্জন করা, ক্ষয়ক্ষতি কমানো। আর আমরা শান্তভাবে অভিযান চালিয়ে যাব, যেভাবে আমাদের জেনারেল স্টাফ পরিকল্পনা সাজিয়েছেন সে পরিকল্পনা অনুযায়ী আগাবো।



আরো পড়ুন:




ইউক্রেন, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা সঙ্কটের মধ্যে মোদী-বাইডেন এর ভার্চুয়াল বৈঠক আজ
Modi-Biden virtual meeting today on Ukraine, Pakistan, Sri Lanka crisis


আজ আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, পাকিস্তানে ইমরান খান সরকারের পতন এবং শ্রীলঙ্কায় আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে মোদী ও বাইডেনের এই ভার্চুয়াল বৈঠক হতে চলেছে।

আরো পড়ুন: পরশুরামে ৫শতাধিক পরিবারের মাঝে "ঢাকাস্থ'' পরশুরাম সমিতি"র ইফতার সামগ্রী বিতরণ

ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, মূলত দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে সহযোগিতা নিয়েই আলোচনা হবে দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে। এ ছাড়াও ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগীয় অঞ্চল, দক্ষিণ এশিয়ার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি-সহ গোটা বিশ্বের নানাবিধ বিষয় নিয়েও নিজেদের মধ্যে মতবিনিময় করবেন তাঁরা। এই সংক্রান্ত আলোচনায় দুই দেশের পারস্পরিক স্বার্থ নিয়েও কথা হতে পারে বলে জানিয়েছে বিদেশমন্ত্রক।


গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়া সামরিকা অভিযান শুরু করার পর থেকে ভারত ও আমেরিকার সম্পর্কে অবনতি হয়েছে। মস্কো-কিভ দ্বন্দ্বে নয়াদিল্লির অবস্থান নিয়ে বেশ কয়েক বার প্রশ্ন তুলেছে ওয়াশিংটন। সম্প্রতি রাশিয়ার সঙ্গে ভারতের তেল নিয়ে চুক্তিতেও অসন্তুষ্ট হয়েছে পশ্চিমি বিশ্ব। অন্যদিকে রাশিয়া থেকে অস্ত্র কেনায় দেশটি মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারে বলেও আলোচনা রয়েছে। এর মাঝেই আজ এ বৈঠক হতে চলেছে।  এ ছাড়াও শনিবার পাকিস্তানে গদিচ্যুত হয়েছেন ইমরান।

 

শ্রীলঙ্কাতেও প্রবল অর্থনৈতিক সঙ্কটের জেরে চাপ বাড়ছে সরকারের উপর। এই প্রেক্ষাপটে আগামী দিনে দুই দেশের অবস্থান কী হবে, আজ মোদী-বাইডেনের বৈঠকে তা নিয়েই আলোচনা হতে পারে বলে জানা যায়।



আরো পড়ুন:



 


 


 হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র কী?
What is a hypersonic missile?



যুদ্ধে বহুল ব্যবহৃত অস্ত্রের নাম ক্ষেপণাস্ত্র। দিন দিন এটির ব্যবহারও বাড়ছে। বিশ্বের অনেক দেশই নিজেদের অস্ত্রের ভাণ্ডার সমৃদ্ধ করতে ক্ষেপণাস্ত্রের দিকে ঝুঁকছে। বিশেষ করে উত্তর কোরিয়া প্রায়ই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে আলোচনায় থাকছে। ধারণা করা হচ্ছে এরই মধ্যে কয়েকটি দেশ হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করেছে।


এদিকে ইউক্রেনে প্রথমবারের মতো হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহারের কথা জানিয়েছে রাশিয়া। তাই নতুন করে প্রশ্ন উঠেছে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র আসলে কী?

জানা গেছে, হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র ভূপৃষ্ঠের অনেক ওপর দিয়ে শব্দের চেয়ে পাঁচগুণের বেশি গতিতে ছুটতে পারে। তাছাড়া প্রচলিত যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে এগুলোকে বেশি রণকৌশলী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কারণ এটি আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে ভেঙে নির্দিষ্ট লক্ষ্য বস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।


রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলের যে ক্ষেপণাস্ত্রটি ব্যবহার করা হয়েছে সেটি দুই হাজার কিলোমিটার বা এক হাজার ২৪২ মাইল দূরের নির্দিষ্ট লক্ষ্য বস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।


গত বছর রাশিয়া উত্তর-পশ্চিম উপকূলের শ্বেত সাগরে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষার কথা জানায়। রাশিয়া, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের পাঁচটি দেশ হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে।


প্রেসিডেন্ট পুতিনের নির্দেশে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন আক্রমণ করে রুশ বাহিনী। গত ২০ দিনে তাদের হামলায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে ইউক্রেনের বিভিন্ন শহর। প্রাণ হারিয়েছেন কয়েকশ বেসামরিক নাগরিক। জাতিসংঘ জানিয়েছে, রুশ আক্রমণের মুখে এরই মধ্যে ৩০ লাখের বেশি মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন।


 ইউক্রেন যুদ্ধে হলো হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের ব্যবহার
The use of hypersonic missiles in the Ukraine war


ইউক্রেনে প্রথমবারের মতো অত্যাধুনিক কিনঝাল হাইপারসনিক (শব্দের চেয়েও দ্রুতগতির) ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে রাশিয়া। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, গত শুক্রবার ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলে একটি অস্ত্রাগার ধ্বংস করতে ওই ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়।


যুদ্ধে নিখুঁতভাবে আঘাত করতে পারা এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহারের কথা আগে কখনোই স্বীকার করেনি রাশিয়া। এবার সরকারের বরাত দিয়ে এ ধরনের অস্ত্র ব্যবহারের তথ্য দিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আরআইএ নভোস্তি।


সংবাদমাধ্যমটি জানায়, পশ্চিম ইউক্রেনে সংঘাত চলাকালে কিনঝাল হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের প্রথম ব্যবহার এটাই। এই ক্ষেপণাস্ত্র শব্দের চেয়ে ১০ গুণ বেশি গতিতে ছুটে গিয়ে লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে।


গতকাল শনিবার রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, কিনঝাল বিমান ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থায় থাকা দূরপাল্লার হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইভানো ফ্র্যাংকিভস্ক অঞ্চলের দেলিয়াতিন গ্রামে হামলা চালানো হয়। এতে ভূগর্ভস্থ অস্ত্রাগারে থাকা ক্ষেপণাস্ত্র ও আকাশ থেকে নিক্ষেপযোগ্য গোলাবারুদ ধ্বংস হয়ে যায়।


এএফপির প্রতিনিধি এ বিষয়ে জানতে চাইলে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র মন্তব্য করতে রাজি হননি।

আরো পড়ুন: সন্তানের সামনে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় আদালতে মামলা

রাশিয়া যে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে, তা ইউক্রেনীয় বাহিনীও নিশ্চিত করেছে। জানিয়েছে, তাদের অস্ত্রাগারই রুশ হামলার লক্ষ্য ছিল।


তবে হামলায় ব্যবহৃত রুশ ক্ষেপণাস্ত্রটি ঠিক কী ধরনের, তা ইউক্রেনীয় বাহিনী নিশ্চিত করতে পারেনি। রাশিয়ার হামলা সম্পর্কে ইউক্রেনীয় বাহিনীর মুখপাত্র ইউরি ইগনাত বলেন, ‘আমাদের বিরুদ্ধে তারা তাদের অস্ত্র হিসেবে সব ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করছে। ’


হামলার শিকার দেলিয়াতিন গ্রামটি মনোরম কারপেথিয়ান পর্বতমালার পাদদেশে অবস্থিত, যা ইভানো ফ্র্যাংকিভস্ক শহরের বাইরে। ন্যাটোর সদস্য রোমানিয়ার সঙ্গে এই অঞ্চলের ৫০ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে।


আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ফাঁকি দিতে সক্ষম কিনঝাল ক্ষেপণাস্ত্রকে ‘একটি আদর্শ অস্ত্র’ আখ্যা দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ২০১৮ সালে রাষ্ট্রীয় ভাষণ দেওয়ার সময় পুতিন নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্র উন্মোচন করেছিলেন।


জেলেনস্কির আলোচনার আহ্বান : কিনঝাল ক্ষেপণাস্ত্রের হামলার কয়েক ঘণ্টা আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়ার প্রতি শান্তির আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘দেখা করা, কথা বলার এখনই সময়, এখনই সময় ইউক্রেনের জন্য আঞ্চলিক অখণ্ডতা ও ন্যায় নিশ্চিত করার। তা না হলে রাশিয়া এমন ক্ষতির মুখে পড়বে যে তা পুষিয়ে নিতে কয়েক প্রজন্ম লেগে যাবে। ’


মারিওপোলের কেন্দ্রে রুশ বাহিনী : বন্দরনগরী মারিওপোলে রুশ সেনাদের অবস্থান শক্তিশালী হওয়ায় আজভ সাগরে ইউক্রেনের প্রবেশ বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে কিয়েভের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।


গত শুক্রবার রাতে এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় জানায়, দখলকারীরা দোনেেস্ক অভিযান এলাকায় আংশিক সফলতা পেয়েছে এবং ইউক্রেন আজভ সাগরে প্রবেশ থেকে সাময়িকভাবে বঞ্চিত হচ্ছে।


গত শুক্রবার রাশিয়া জানিয়েছিল, তাদের বাহিনী মারিওপোলের চারপাশে অবস্থান জোরদার করে শহরটিতে শত্রুপক্ষকে আরো চাপে ফেলে দিয়েছে


আজভ সাগরের তীরে কৌশলগতভাবে খুব গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় মারিওপোলের অবস্থান। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে অভিযান শুরু করার পর থেকেই শহরটি তাদের অন্যতম লক্ষ্যবস্তু। এই শহরটির নিয়ন্ত্রণ নিতে পারলে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলের সবটাই রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে চলে যাবে।


মারিওপোলের মেয়র ভাদিম বইশেংকো জানিয়েছেন, লড়াই নগরীর কেন্দ্রস্থলে পৌঁছে গেছে। রুশ বাহিনীর হামলায় নগরীর ৮০ শতাংশের বেশি আবাসিক ভবন হয় ধ্বংস, নয়তো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি আরো জানান, মারিওপোলের যে থিয়েটারে রুশ বাহিনী বোমাবর্ষণ করেছিল, তার ধ্বংসস্তূপ থেকে বেসামরিক লোকজনকে বের করে আনার কাজ চলছে। কিন্তু রাস্তায় রাস্তায় লড়াইয়ের কারণে উদ্ধারকাজ বিঘ্নিত হচ্ছে।


যুদ্ধ থেকে প্রাণ বাঁচাতে এক হাজারেরও বেশি স্থানীয় বাসিন্দা ওই থিয়েটারে আশ্রয় নিয়েছিল। সেখান থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত মাত্র ১৩০ জনকে উদ্ধার করা গেছে বলে জানান প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি।


‘বাঘের গলায় ঘণ্টা যে বেঁধেছে, তাকেই খুলতে হবে’ : ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণে ইন্ধন না দিতে চীনকে সতর্ক করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আর এর জবাবে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দোষ দিয়ে যুদ্ধ বন্ধের দায়িত্ব তাদেরই নিতে বলেন।


গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের রাষ্ট্রপ্রধানরা প্রায় দুই ঘণ্টা ভিডিও কলে কথা বলেন। এরপর এ সম্পর্কে যার যার কার্যালয় থেকে প্রকাশ করা হয় বিবৃতি।

আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

চিনপিংকে উদ্ধৃত করে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম জানায়, ‘ইউক্রেনের সংকট এমন একটি ঘটনা, যা আমরা দেখতে চাই না। ’ ইউক্রেন সংঘাতের পেছনের কারণগুলো সমাধানে রাশিয়ার সঙ্গে ন্যাটোর আলোচনা করা উচিত বলে চিনপিং মন্তব্য করেছেন। তিনি বাইডেনকে বলেছেন, ‘ইউক্রেনে যে লড়াই চলছে তা কারো উপকারে আসবে না। রাষ্ট্রের সঙ্গে রাষ্ট্রের সম্পর্ক সংঘাতের পর্যায়ে যাওয়া উচিত নয়। ’


চিনপিং আরো বলেন, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের উচিত সঠিক পথে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে পরিচালিত করা। দুই পক্ষেরই উচিত আন্তর্জাতিক পর্যায়ের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়ে বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য চেষ্টা করা। ’


এদিকে হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ইউক্রেনের শহরগুলোতে বেসামরিক মানুষের বিরুদ্ধে বর্বর হামলা চালানোয় রাশিয়াকে যদি চীন সরঞ্জাম দিয়ে সমর্থন জোগায়, তাহলে যে প্রভাব ও পরিণতি হবে তা তুলে ধরেছেন বাইডেন। ’


এর সরাসরি জবাব দেওয়ার পরিবর্তে চিনপিং বলেছেন, ‘বাঘের গলায় ঘণ্টাটা যিনি বেঁধেছেন, খুলতে হবে তাঁকেই। ’ সূত্র : এএফপি, বিবিসি


আরো পড়ুন:






 দুই ঘণ্টার বৈঠকে চীনকে বাইডেনের নতুন বার্তা
Biden's new message to China during the two-hour meeting


২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনের ওপর হামলা চালানোর পর এই প্রথম বিশ্বের দুই পরাশক্তি দেশের প্রধান ভিডিওকলে মুখোমুখি কথা বলেছেন। 


শুক্রবার ভার্চুয়াল বৈঠকে মুখোমুখি হন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। 


বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে হোয়াইট হাউসের একটি বিবৃতি তুলে ধরে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে নৃশংস হামলা চালানোর জন্য চীন যদি রাশিয়াকে বস্তুগত সহায়তা দেয় তাহলে এর প্রভাব ও পরিণতি খারাপ হবে বলে শি জিন পিংকে সতর্ক করেছেন জো বাইডেন। অর্থাৎ রাশিয়ার হত্যাযজ্ঞ বাড়বে, আর এতে চীনের ইমেজও নষ্ট হবে। তিনি এই সঙ্কটের কূটনৈতিক সমাধানের জন্য তার সমর্থনকে জোর দিয়েছেন। 

আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শুক্রবার বেলা ৯টা ৩ মিনিটে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে টেলিফোন করেন বাইডেন। ১ ঘণ্টা ৫০ মিনিট ধরে চলে তাদের ভিডিও কল। সকাল ১০টা ৫৩ মিনিটে এই দুই নেতা কথা শেষ করেন বলে হোয়াইট হাউসের একটি সূত্র জানিয়েছে। খবর দ্য গার্ডিয়ান।


চীনের সরকারি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এই ভিডিও কথোপকথনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ইউক্রেন নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে তাৎপর্যপূর্ণ বার্তা দিয়েছেন। 


রাশিয়ার আক্রমণের নিন্দার বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের উদ্দেশে জিনপিং বলেছেন, রাষ্ট্রের সঙ্গে রাষ্ট্রের সম্পর্ক সামরিক সংঘাতের পর্যায়ে যেতে পারে না। দ্বন্দ্ব-সংঘাতের মাধ্যমে কারও স্বার্থ হাসিল হয় না। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে শান্তি ও নিরাপত্তা সর্বাধিক কাঙ্ক্ষিত বিষয়।


আরো পড়ুন:




যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget