Articles by "দেশজুড়ে"

 



সড়কের দু'পাশই দখল করে ধান মাড়াই, ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন

 

ঠাকুরগাঁওয়ের প্রধান প্রধান সড়কসহ জেলার গ্রামাঞ্চলের পাকা সড়ক গুলোতে বর্তমানে ধান মাড়াই, ধান ও খড় শুকানো হচ্ছে। প্রধান সড়কের অর্ধেক রাস্তা খর ও ধান দিয়ে ব্লক করা হয়েছে। এ নিয়ে সড়কে চলাচল করতে চরম বিপাকে পড়েছেন ও ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন সব রকমের যানবাহনের গাড়ি চালকরা।

জেলার বিভিন্ন উপজেলা ঘুরে দেখা গেছে এমন দৃশ্য। সকাল হলেই বিশেষ করে জেলার ঠাকুরগাঁও-বালিয়াডাঙ্গী রাণীশংকৈল - নেকমরদ মহাসড়কের কৃষষকরা ক্ষেত থেকে ধান কেটে রাস্তায় মাড়াই করে ও রাস্তার উপরে দু'পাশেই ধান ও ধানের খড় শুকাচ্ছেন বিকাল অব্দি। আর বিকাল থেকে শুরু হয় রাস্তায় ঢেলে দেওয়া ধান বস্তায় করে তুলে বাড়ি নিয়ে যাওয়া। খর গুলোকে জড়ো করে রাস্তার পাশেই বড় বড় স্তুপ করে রাখেন। শুকিয়ে গেলে অনেকে আবার বাড়িও নিয়ে যান।





বিগত কয়েক বছর ধরে এভাবেই বিভিন্ন ফসল মাড়াই ও শুকানোর কাজ করছেন স্থানীয়রা।

প্রতিবছর জেলার বিভিন্ন সড়কে বিভিন্ন ফসলের মৌসুমে এ ভাবে রাস্তাগুলোর অর্ধেক জায়গা দখল করে ফসল শুকানোর কাজে ব্যবহার করা হয়। তাতে সড়ক গুলোতে গাড়ি চলাচলের রাস্তা সরু হয়ে যায়। গাড়ি অভারটেকিং করাসহ নানা ধরনের সমস্যা হয়। ফলে সড়কে চলাচলে বিঘ্নতা সৃষ্টির কারনে চলাচলকারী বিভিন্ন যানবাহনের চালক ও যাত্রীরা দুর্ঘটনার শিকার হন। এতে অনেকের প্রাণনাশের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়।

এ নিয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন সড়কে চলাচলকারীরা ও গাড়ি চালকরা। রাস্তা থেকে এসব দ্রুত অপসারণ করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন তারা।

সড়কে যেন এভাবে কোন ফসল শুকানো না হয় সে বিষয়ে প্রশাসনকে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে মাসুদ রানা নামে এক মোটরসাইকেল চালক বলেন, 'রাস্তার উপর দু'পাশে বিভিন্ন সময় ধান,গম, ভূট্টা, ধানের খর শুকানোর ফলে অনেক ঝুঁকি নিয়ে গাড়ি চালাতে হয়। অনেক সময় দুর্ঘটনার শিকার হতে হয়।,

মাহিন্দ্র গাড়ী চালক বাবুল হক বলেন, 'এভাবে রাস্তার উপরে ধান ও খর শুকানোর ফলে গাড়ির ব্রেক ঠিকভাবে ধরে না গাড়ি স্লিপ করে চলে যায়। এভাবে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনা ঘটে ফলে মানুষ আহত ও নিহত হন।,



মোটরসাইকেল আরোহী ফারুক হোসেন বলেন, 'সড়কে এভাবে ধান ও খর শুকানোর ফলে অনেক মানুষের বিপদ হচ্ছে। এ বিষয়ে জরুরিভাবে প্রশাসনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত।,

আমিরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি বলেন, 'ধান খর দিয়ে রাস্তায় মরণ ফাঁদ তৈরি করা হয়েছে। এভাবে এক্সিডেন্ট করে মানুষ মারা যাচ্ছে কিন্তু প্রশাসন এগুলো কিছুই দেখে না।,

আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

জীবনের ঝুঁকি থাকলেও বাড়িতে জায়গা সংকটের কারণে কৃষকরা বাধ্য হয়ে রাস্তার উপর ধান মাড়াই করে ধান ও খর শুকাচ্ছেন বলে জানান তারা।

লুৎফর রহমান নামে এক কৃষকের কাছে রাস্তায় ধান ও খর শুকানোর কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'বাড়িতে জায়গা নেই। তাই উপায় না পেয়ে বাধ্য হয়ে রাস্তায় এগুলো শুকাচ্ছি।,


আইয়ুব আলী নামে এক কৃষক বলেন, 'এখন বর্ষাকাল। বৃষ্টির কারণে বাড়ির আঙিনা গুলো কাদা হয়ে গেছে। এজন্য জীবনের ঝুঁকি থাকলেও ও কষ্ট হলেও ধান ও খর রাস্তায় শুকাইতে হচ্ছে।,

জেলা প্রশাসককে রাস্তার উপরে ধান ও খর শুকানোর বিষয়টি অবগত করা হলে জেলা প্রশাসক মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, 'রাস্তার উপর এভাবে ধান শুকানোর কোনো সুযোগ নেই। রাস্তায় ধান ও খর শুকানোর ফলে দুর্ঘটনার প্রবণতা অবশ্যই সৃষ্টি হতে পারে। তাই এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার দের মাধ্যমে মানুষদের সচেতন করা হবে। যাতে তারা রাস্তায় ধান ও খর না শুকায়।



আরো পড়ুন:

 



ঠাকুরগাঁওয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু


ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এবার আগামী তিন বছরের মধ্যে যারা ভোটার হওয়ার যোগ্য (১৮ বছর) হবেন, তাদের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। সে হিসাবে ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে যাদের জন্ম, এই হালনাগাদ কার্যক্রমে তাদের তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

বুধবার সদর গড়েয়ার ৪নং ওয়ার্ডে তথ্য সংগ্রহের কাজ শুরু হয়। এসময় সাধারণ মানুষের অনেক বেশি ভিড় লক্ষ্যে করা যায় ভোটার হওয়ার জন্য। ভোটার তালিকায় নিজের নাম তোলার জন্য সকলে উৎসুকভাবে অংশগ্রহণ করে।

ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য ১৭ ডিজিটের অনলাইন জন্মনিবন্ধন সনদ, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), মা-বাবার জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, ইউটিলিটি (পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস) বিলের কপি প্রয়োজন হবে।






নির্বাচন অফিস সূত্রমতে, সদর উপজেলায় বর্তমান ভোটার ৪ লক্ষ ৫৫ হাজার ৭৭৯ জন। সম্ভাব্য বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৩৪ হাজার ১৭৮ জন। ১০ মে ছবি তোলার কার্যক্রম শুরু হয়ে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত চলবে।

নির্বাচন কমিশনের পক্ষে ১৯৮ জন তথ্য সংগ্রহকারী বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করছেন। তাদের তদারকি করার জন্য ৪১ জন সুপারভাইজার নিয়োজিত রয়েছেন।

ভোটার তালিকায় নাম তুলতে আসা ওই এলাকার মফিজুল, রহমত, জিল্লুরসহ আরো অনেকে বলেন, খুব সহজে ভোটার তালিকায় নিজের নাম দিতে পারছি। বাসায় এসে ভোটার তালিকায় নাম নিচ্ছে। ঘরে বসে ডিজিটাল সেবা পাচ্ছি আমরা। এজন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানান সকলে

তথ্য সংগ্রহের কাজ পরিদর্শন করেন জেলা নির্বাচন অফিসার সফিকুল ইসলাম। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রেজিস্ট্রেশন অফিসার রেজাউল ইসলাম এবং সুপারভাইজার মাসুদ রানা।

জেলা নির্বাচন অফিসার সফিকুল ইসলাম বলেন, নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্য হচ্ছে একজন যোগ্য ভোটারও যেন ভোটার তালিকা হতে বাদ না পরে।

সেই লক্ষ্যেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তথ্য সংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারেরা নিরলস ভাবে পরিশ্রম করে সঠিক ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমরাও কাজগুলো মনিটরিং করছি। আমরা আশা করছি আমাদের হালনাগাদ কার্যক্রম সুন্দর ভাবে সুসম্পন্ন হবে।


আরো পড়ুন:




শার্শায় ভারতীয় রুপা ও মোটরসাইকেলসহ পাচারকারী আটক

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের শার্শা সীমান্ত থেকে ৮ কেজি ৩শ' গ্রাম ভারতীয় রুপা ও একটি মোটরসাইকেলসহ জসিম উদ্দিন (৩৯) নামে এক পাচারকারীকে আটক করেছ পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৪ মে) বিকালে উপজেলার গোগা-সাতমাইল সড়কের বসতপুর ফুলতলা মোড় থেকে এ রুপার চালানটি আটক করে বাগআঁচড়া তদন্ত কেন্দ্রর পুলিশ।

আটক জসিম উদ্দিন উপজেলার গোগা গাজীপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ জানায়, রুপা পাচারের গোপন খবর পেয়ে অভিযানে চালিয়ে একটি মোটরসাইকেল সহ জসিমকে আটক করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মোটরসাইকেলে তল্লাশি চালিয়ে বিশেষ কায়দায় রাখা ৮ কেজি ৩শ' গ্রাম ভারতীয় রুপা উদ্ধার করা হয়।

বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রর ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, আটক আসামীর বিরুদ্ধে শার্শা থানায় মামলা হয়েছে।


আরো পড়ুন:


 


ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সর্বাত্মক হামলা শুরু রাশিয়ার

ইউক্রেনীয় সেনাদের ঘেরাও করতে আজ মঙ্গলবার ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সর্বাত্মক হামলা শুরু করেছেন রুশ সেনারা। এই হামলার ফলাফল ওই অঞ্চলে রুশবাহিনীর সফলতা বা ব্যর্থতা নির্ধারণ করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।


 ইউক্রেন যুদ্ধের ঠিক তিন মাস পর ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে ভূগর্ভস্থ মেট্রো চালু করার পরিকল্পনা করছে কর্তৃপক্ষ। যেখানে হাজার হাজার বেসামরিক মানুষ কয়েক মাস ধরে টানা বোমা হামলা থেকে বাঁচতে আশ্রয় নিয়ে রয়েছে।

মেট্রো পুনরায় চালু করা গত কয়েক সপ্তাহে ইউক্রেনের বৃহত্তম সামরিক সাফল্যের প্রতীক। ইউক্রেন চাইছে রুশ বাহিনীকে মূলত খারকিভের আর্টিলারি রেঞ্জের বাইরে ঠেলে দেওয়া, যেমনটি তারা গত মার্চে রাজধানী কিয়েভে করেছিল।


যুদ্ধের সর্বশেষ পর্বের নির্ণায়ক লড়াইগুলো এখনো ইউক্রেনের দক্ষিণ–পূর্বাঞ্চলেই চলছে। যেখানে মস্কো পূর্বাঞ্চলীয় দুটি প্রদেশ দোনেস্ক এবং লুহানস্কের দনবাস অঞ্চল দখলের চেষ্টা করছে এবং মূল পূর্বাঞ্চলে ইউক্রেনীয় বাহিনীকে একটি এলাকায় আটকে রাখার চেষ্টা করছে।

লুহানস্কের গভর্নর সেরহি গাইদাই বলেন, লিসিচানস্ক এবং সিভিয়েরোডোনেৎস্ককে ঘিরে ফেলতে শত্রুরা আক্রমণ চালাচ্ছে। যেখানে দুটি শহর এখনো ইউক্রেনের দখলে থাকা শেষ অঞ্চলগুলোর মধ্যে রয়েছে। তিনি বলেন, সিভিয়ারোডোনেৎস্কে আগুনের তীব্রতা কয়েক গুণ বেড়েছে। তারা শহরটিকে স্রেফ ধ্বংস করছে। এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, শহরটিতে ১৫ হাজার মানুষের বাস, যেটি এখনো ইউক্রেনীয় সেনাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।


দনবাসে রয়টার্সের সাংবাদিকেরা আরও পশ্চিমে বাখমুতে পৌঁছেছেন। তাঁরা গতকাল সোমবার লাইসিচানস্কের দিকে মহাসড়কে তীব্র গোলাগুলি শুনেছেন। তাঁরা দেখেছেন, ইউক্রেনীয় সাঁজোয়া যান, ট্যাঙ্ক এবং রকেট লঞ্চার সামনের দিকে অগ্রসর হচ্ছিল। একই সঙ্গে সেনাদের বহনকারী বাসগুলোও সামনে এগিয়ে যাচ্ছিল।


এদিকে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধ কবে থামবে, তার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না বলে এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এই যুদ্ধের কারণে বিশ্ব অর্থনীতি হুমকির মুখে পড়েছে। অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হচ্ছে। শান্তি প্রতিষ্ঠায় তুরস্ক ও বেলারুশে রাশিয়া ও ইউক্রেনের নেতারা একাধিকবার বৈঠক করলেও তাতে কার্যত কোনো ফল আসেনি। আলোচনা বর্তমানে বন্ধ রয়েছে।

আরো পড়ুন:









বাংলাদেশে সবকিছুর দাম এখন আগুন ।
চলুন চালের দাম জেনে আসি । 


সরকারি গুদামে নিরাপত্তা মজুত হিসাবে ১০ লাখ টন খাদ্যশস্য থাকলেই চলে। এখন খাদ্যের মজুত ২০ লাখ টন ছাড়িয়ে গেছে। শুধু চালের মজুতই ১৭ লাখ টন। অথচ বাজারে চালের দাম বেড়েই চলেছে। মন্ত্রী, চাল ব্যবসায়ী কারও কাছেই এর ব্যাখ্যা নেই।

সরকারি গুদামগুলোতে খাদ্যশস্যের মজুত ২০ লাখ টনের মাইলফলক অতিক্রম করেছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে এর আগে কখনোই সরকারিভাবে এত খাদ্যশস্য মজুত ছিল না, কিন্তু বিস্ময়কর হলো তারপরও চালের দাম কমছে না; উল্টো বাড়ছে।

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাবে বুধবার রাজধানীর বাজারগুলোতে ৪৬ থেকে ৪৮ টাকা কেজি দরে মোটা চাল বিক্রি হয়েছে। এক বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ। আর সরু চাল (মিনিকেট-নাজিরশাইল) বিক্রি হয়েছে ৬০ থেকে ৬৮ টাকা কেজি দরে। এক বছরে বেড়েছে ৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ।




খাদ্য মন্ত্রণালয়ের দৈনিক খাদ্যশস্য পরিস্থিতি প্রতিবেদনে দেখা যায়, বুধবার দেশে মোট খাদ্যশস্য মজুতের পরিমাণ ছিল ২০ লাখ ২ হাজার টন। এর মধ্যে চালের মজুত হচ্ছে ১৬ লাখ ৯৪ হাজার টন। গম ২ লাখ ৭৭ হাজার; আর ধান ৪৯ হাজার টন।

অতীতের তথ্য ঘেঁটে দেখা যায়, সরকারিভাবে চালের এত মজুত আগে কখনই ছিল না। গত বছর এই সময়ে সরকারের গুদামে খাদ্যশস্যের মজুতের পরিমাণ ছিল ৭ লাখ ২১ হাজার টন। এর মধ্যে চালের মজুত ছিল ৫ লাখ ৩৭ হাজার টন, যা মজুত হিসেবে ছিল স্মরণকালের সবচেয়ে কম।

‘বর্তমান মজুত সন্তোষজনক’ উল্লেখ করে প্রতিবেদনে বলা হয়, অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে আমন ধান, চাল ও গম সংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে এবং বিদেশ থেকে চাল আমদানির কারণে খাদ্যশস্যের মজুতে রেকর্ড হয়েছে।




আমনের ভালো ফলন আর সবশেষ বোরো মৌসুমে ধান উৎপাদনের রেকর্ড হলেও বুধবার রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পুরোনো চালের দাম কেজিতে অন্তত দুই টাকা করে বেড়েছে।

রাজধানীর শেওড়াপাড়ার একটি মুদি দোকানে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ভালো মানের সরু চাল বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৬৮ থেকে ৭০ টাকা; যা এক মাস আগেও ছিল ৬৫ থেকে ৬৬ টাকা।





 




বালিয়াডাঙ্গীতে মরা ছাগল জবাই করে গরুর রক্ত মাখিয়ে বিক্রি, কসাই আটক


মরা মুরগির মাংস বিক্রির অভিযোগের ঘটনার ১০ দিন পরই ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে এবার মরা ছাগল জবাই করে মাংস বিক্রির অভিযোগে নজরুল ইসলাম (৪৯) ওরফে ইদু নামে এক কসাইকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরের ভেতরেই মরা ছাগল জবাই করে গেটের সামনে বিক্রির চেষ্টা করছিলেন বলে জানা গেছে। স্থানীয়রা দেখে ফেলে হাতে নাতে আটক করে কসাইকে উত্তম-মাধ্যম দেয়।

আটক কসাই উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের ধনিবস্তী মহাজনহাট গ্রামের শরিফ উদ্দীনের ছেলে।





বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সাব ইন্সপেক্টর আব্দুল গফুর বলেন, শুক্রবার ‘সকালে উপজেলা পরিষদের ভেতরে মরা ছাগল জবাই করার পর ওই ছাগলের গায়ে গরুর রক্ত মেখে মাংস বিক্রির সময় স্থানীয়রা দেখে ফেলে।
পরে মরা ছাগল ও কসাইকে আটক করে আমিসহ উপস্থিত লোকজন বালিয়াডাঙ্গী থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে কসাইকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ছাগলটিকে মাটিতে পুতে ফেলা হয়েছে এবং ইউএনও স্যারকে মুঠোফোনে অবগত করার পর তিনি ছুটিতে থাকার কারণে আগামী রবিবার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন।’


এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানা পরিদর্শক (ওসি) খায়রুল আনাম ডন বলেন, কসাই নজরুল ইসলামকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। ইউএনওর সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার (১০মে) মরা মুরগির মাংস রান্না করে বিক্রির দায়ে আলআমিন হোটেল মালিক সেলিম উদ্দীনকে ৫ হাজার টাকা ও মাংস বিক্রেতা আব্দুলকে ১০ হাজার অর্থদণ্ড করা হয়। আজ ওই হোটেলের সামনে থেকেই মরা ছাগলের মাংস বিক্রির অভিযোগে কসাইকে আটক করা হয়েছে।

এলাকাবাসী বলছে, ‘এসব অসাধু ব্যবসায়ীদের কঠোর শাস্তির আওতায় না আনার কারণে এসব অপরাধ করতে সাহস পাচ্ছে।’ সেই সঙ্গে জীবিত ও সতেজ গরু, ছাগল জবাই করে মাংস বিক্রির লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।


আরো পড়ুন:



 



কেশবপুরে বিশ্ব মা দিবস পালিত হয়েছে
পরেশ দেবনাথ, কেশবপুর, যশোর


মা মানেই মমতা, মা মানেই নিশ্চয়তা, মা মানেই নিরাপত্তা, মা মানেই অস্তিত্ব, মা মানেই আশ্রয়, মা মানেই একরাশ অন্ধকারে একবুক ভালোবাসা। মা হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে প্রিয় সবচেয়ে আপন। সেই মায়ের মমতা, ত্যাগ মর্যাদাকে বিশেষভাবে স্মরণের একটি দিন আজ । আজ বিশ্ব মা দিবস। মায়ের প্রতি ভালবাসা প্রতিটি মুহুর্তের। তারপরও বিশ্বের সকল মানুষ যেন এক সঙ্গে মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পারে সেজন্য মে মাসের দ্বিতীয় রোববারকে আন্তর্জাতিক মা দিবস হিসাবে ঘোষনা করা হয়।

কেশবপুরে রবিবার (৮ মে) সকালে আন্তর্জাতিক মা দিবস পালিত হয়েছে। কেশবপুর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের আয়োজনে আন্তর্জাতিক মা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার রূপালী রানী।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আরিফুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিশু বিষয়ক অফিসার বিমল কুমার কুন্ডুর সঞ্চালনায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এখনো ভিন্ন দিনে মা দিবস পালন করা হয়। সব মায়ের ভালোবাসাই অকৃতিম ও এক । প্রতিটি মানুষের কাছে তার মা তুলনাহীনা ও অনন্যা। বাস্তবতার নিরীখে আমরা প্রতিদিন মা' কে শ্রদ্ধায়, ভালোবাসায়, আবেগে মুড়িয়ে দিই না, দিতে পারি না। কিন্তু জন্মধাত্রী মায়ের সাথে সন্তানের আচরণ সন্তানের মতো হওয়াটাই বাঞ্ছনীয় । জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে আনা জার্ভিস ও তার মেয়ে আনা মারিয়া রিভস জার্ভিসের উদ্যোগে মা দিবসের সূচনা হয়।

১৯০৮ সালের ১০ মে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব ভার্জিনিয়ার গ্রাফইনের গির্জায় আনুষ্ঠানিকভাবে মা দিবস পালন শুরু হয়। ১৯১১ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি রাজ্যে মা দিবস পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। পরে ১৯১৪ সালের ৮ মে থেকে প্রতি মে মাসের দ্বিতীয় রোববার আন্তর্জাতিকভাবে মা দিবস উদযাপিত হয়ে আসছে। আনুষ্ঠানিকতা নয়, আজকের এ দিনে নতুন করে প্রতিদিনই মায়েদের প্রতি একই রকম সম্মান, শ্রদ্ধাবোধ বজায় রেখে মানবিক আচরণের মাধ্যমে স্বর্গীয় সম্পর্কের মর্যাদা অক্ষুন্ন করার অঙ্গীকার করতে হবে।


আরো পড়ুন:

  1. অনলাইন নিউজ পোর্টাল মুক্তির ৭১ নিউজের সম্পাদকের ৪৩তম জন্মবার্ষিকী
  2. পুতিন: ইউক্রেন তার দেয়া কথা রাখেনি
  3. কেশবপুরের মঙ্গলকোট বিল গরালিয়া খালের ব্রিজ ঝুঁকিপূর্ণ, পূণরায় নির্মানের দাবী
  4. যে কারণে ১০ বছর মিডিয়া থেকে দূরে থাকেন বিজয়
  5. ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বাইডেনকে ভারতের অবস্থান জানালেন মোদী
  6. পরিচালনায় শাহরুখ-পুত্র, ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু করলেন আরিয়ান
  7. ইউক্রেন, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা সঙ্কটের মধ্যে মোদী-বাইডেন এর ভার্চুয়াল বৈঠক আজ
  8. পরশুরামে ৫শতাধিক পরিবারের মাঝে "ঢাকাস্থ'' পরশুরাম সমিতি"র ইফতার সামগ্রী বিতরণ
  9. ফরিদপুরের ভাঙ্গায় পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য নিয়ে ২ যুবককে কুপিয়ে হত্যা এবং আহত ১
  10. ফেনীতে ভ্রাম্যমান আদলতের অভিযানে সাড়ে ৫ লাখ টাকা জরিমানা, ২ ইউপি সদস্য সহ ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা
  11. ফেনীতে কোটি টাকা মুল্যের ভারতীয় শাড়ি, থান কাপড়, থ্রি-পিস ও লেহেঙ্গাসহ চোরাকারবারী আটক

 






ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলা বিএনপি’র দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি পদে আতাউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক পদে আলিফ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক পদে এম আর বকুল মজুমদার ও আফজাল হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন।


দ্বি-বার্ষিক সন্মেলনের মাধ্যমে রবিবার (১৫ মে) দুপুরে পৌরশহরের শান্তা কমিউনিটি সেন্টারে উৎসবমূখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সভাপতি সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনি সম্পাদক এই ৩টি পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত গোপন ব্যলোটের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে ভোট গননার পর ফলাফলে উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সম্পাদক আতাউর রহমান ২৯৫ ভোট পেয়ে
সভাপতি পদে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মনজুরুল আলম পায় ২৫৫ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক পদে ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক আল্লামা আল ওয়াদুদ বিন নূর আলিফ ২২৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।
তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র প্রচার সম্পাদক নুরনবী ১৮৫ ভোট এবং পৌর বিএনপি’র সহ-সভাপতি মাহমুদুন নবী পান্না বিশ্বাস পায় ১৪২ ভোট।


সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মোখলেসুর রহমান বকুল মজুমদার ৩১১ভোট পেয়ে ১ম সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা বিএনপির সদস্য মোঃ আফাজ হোসেন ২৩৫ ভোটে ২য় সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

বিএনপি’র সহ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা নুর করিম জানান, জেলা বিএনপি’র তত্বাবধানে তিনটি পদে ব্যালটের মাধ্যমে রাণীশংকৈল উপজেলা বিএনপির তৃণমূল পর্যায়ের ৫৬৮ জন ভোটারের মধ্যে ৫৫১ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করেন নির্বাচন প্রস্তত কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর করিম, সদস্য এ্যাডভোকেট সারওয়ার হোসেন ও এ্যাডভোকেট বদিউজ্জামান বাদল।

নির্বাচন চলাকালীন সময়ে উপস্থিত ছিলেন, পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ও ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের এমপি জাহিদুর রহমান, জেলা সমন্বয়ক সুলতানুল ফেরদৌশ নম্র চৌধুরী, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডঃ জয়নাল আবেদীন, পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া, রাণীশংকৈল উপজেলা বিএনপি’র নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক আইনুল হক মাস্টার, জমিরুল ইসলাম (চেয়ারম্যান), মানিক হোসেন, শাহাদাত হোসেন, খলিলুর রহমান ও জেলা ও বিভিন্ন উপজেলা বিএনপি’র নেতাকর্মি প্রমুখ।

আনোয়ার হোসেন আকাশ
রাণীশংকৈল প্রতিনিধি


আরো পড়ুন:



যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget