Articles by "বিনোদন"

ইফতার পার্টিতে সালমান শাহরুখ সঞ্জয় এক কাতারে
Salman Shah-Rukh and Sanjay in a row at Iftar party



করোনার কারণে গত দু-বছর বন্ধ থাকবার পর এ বছর আবারও ভারতের মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন বিধায়ক বাবা সিদ্দিকী আয়োজন করেছিলেন গ্র্যান্ড ইফতার পার্টি। সেখানে উপস্থিত সালমান, শাহরুখ, হিনা খান, এশা গুপ্তাসহ আরও অনেক বলিউড অভিনয়শিল্পীরা।

আরো পড়ুন: কিয়েভে নতুন রুশ হামলা, আমেরিকাকে সতর্ক করেছে রাশিয়া

ইফতার পার্টির সন্ধ্যায় কালো শার্ট ও নীল জিন্সে হাজির হয়েছিলেন সালমান। অন্যদিকে কালো পাঠানি স্যুটে পার্টিতে আসেন শাহরুখ খান।


এর আগে শাহরুখ ও সালমানের মধ্যে মনমালিন্য থাকলেও বাবা সিদ্দিকীর ২০১৪ সালের ইফতার পার্টিতে তাদের পুনরায় একত্রিত করেন বাবা সিদ্দিকী। এরপর থেকে শাহরুখ ও সালমানের মধ্যে দ্বন্দের অবসান ঘটে।


প্রসঙ্গত, শাহরুখ খানের আগামী সিনেমা ‘পাঠান’। সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত এই সিনেমায় একটি অতিথি চরিত্রে দেখা যাবে সালমান খানকে। আবার সালমানের নতুন সিনেমা ‘টাইগার থ্রি’তেও বিশেষ চরিত্রে হাজির হবেন কিং খান।



আরো পড়ুন:

 বক্স অফিসে ঝড় তুলল যশ-এর ‘KGF 2’
Yash's 'KGF 2' took the box office by storm


গতমাসের শেষের দিকেই মুক্তি পেয়েছে এস এস রাজামৌলি পরিচালিত ‘আর আর আর’। এই ছবি মুক্তির আগে থেকেই রেকর্ড ভাঙতে শুরু করেছিল বক্সঅফিসে। এই ছবির হাত ধরেই রাজামৌলি নিজের পরিচালিত আরো এক ছবি ‘বাহুবলি ২’এর রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। এবার মুক্তির আগেই ‘আর আর আর’এর রেকর্ড ভাঙলো প্রশান্ত নীল পরিচালিত ও যশ অভিনীত ‘কেজিএফ ২’। মুক্তির আগেই বক্সঅফিসে ২০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে এই ছবি।

আরো পড়ুন: কিয়েভে নতুন রুশ হামলা, আমেরিকাকে সতর্ক করেছে রাশিয়া

১৪’ই এপ্রিল বড়পর্দায় মুক্তি পেল প্রশান্ত নীল পরিচালিত দক্ষিণী অভিনেতা যশ অভিনীত ‘কেজিএফ চ্যাপটার ২’। এই দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ছবি মুক্তি পেতেই রীতিমতো উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েছে দর্শকরা। অনেকদিন আগে থেকেই এই ছবি নিয়ে মাতামাতি শুরু হয়ে গিয়েছিল অভিনেতার ভক্তদের মাঝে। তবে সম্প্রতি বক্সঅফিসে এই ছবির জনপ্রিয়তা দেখে মহারাষ্ট্রের মুম্বাই ও পুনেতে প্রেক্ষাগৃহের টিকিটের দাম বাড়ানো হয়েছে। দেড় হাজারটা ২০০০ পর্যন্ত করা হয়েছে।


এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম রয়েছে ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ২’এর চর্চায়। প্রথমদিন থেকেই প্রতিক্রিয়া আসা শুরু হয়ে গিয়েছে। এখনো পর্যন্ত সবটাই ইতিবাচক, তা সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় চোখ রাখলেই স্পষ্ট হবে। প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন চিত্র সমালোচকদের পাশাপাশি অভিনেতার অগণিত ভক্তরাও। এমনকি অভিনেতাও এই সকল ভালোবাসার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদও জানিয়েছেন তার ভক্তদের। উল্লেখ্য, এই ছবিতে যশ ছাড়াও দেখা মিলেছে সঞ্জয় দত্ত, প্রকাশ রাজ, রবীনা ট্যান্ডন, শ্রীনিধি শেট্টি, রামচন্দ্র রাজু, রাও রমেশ ছাড়াও রয়েছেন একাধিক বড় বড় তারকাদের।


উল্লেখ্য, থালাপতি বিজয় অভিনীত ‘বিস্ট’ মুক্তি পেয়েছে একইসাথে। ‘বিস্ট’ও রীতিমতো বক্সঅফিস কাঁপাচ্ছে। এই ছবি কেজিএফের বাজার কিছুটা হলেও কেড়েছে, তা বলাই বাহুল্য। এই ছবিটি মুক্তি না পেলে আরও কিছুটা বক্সঅফিসে ব্যবসা করতে পারত ‘কেজিএফ ২’। ‘কেজিএফ ২’ মুক্তি পাওয়ার পরেই শাহিদ কাপুর অভিনীত ‘জার্সি’র মুক্তির দিন পিছিয়ে দিয়েছেন ছবির পরিচালক। আগামী ২২’শে এপ্রিল মুক্তি পেতে চলেছে এই ছবি। দর্শকদের মাঝে দক্ষিণী ছবির রমরমা দেখেই মুক্তির দিন পিছিয়েছেন ছবির পরিচালক।


দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি এখন প্রায়ই টেক্কা দিচ্ছে বলিউডের পাশাপাশি হলিউডকেও, যা রীতিমত চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে বহু পরিচালকদের কপালে। অনেকেই এখন ঝুঁকছেন দক্ষিণী তারকাদের দিকে। বলিউডের একাধিক তারকাকে এখন প্রায়ই দেখা যাচ্ছে দক্ষিণী ছবিতে। দক্ষিণের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি এখন যে সবদিক দিয়েই বলিউডের থেকে এগিয়ে রয়েছে, তা আর আলাদাভাবে বলার অপেক্ষা রাখছে না।



আরো পড়ুন:




যে কারণে ১০ বছর মিডিয়া থেকে দূরে থাকেন বিজয়
That is why Vijay has been away from the media for 10 years


দক্ষিণী সিনেমার অভিনেতা থালাপাতি বিজয়ের পরবর্তী সিনেমা ‘বিস্ট’। নেলসন পরিচালিত এ সিনেমা আগামী ১৩ এপ্রিল, বিশ্বব্যাপী একাধিক ভাষায় মুক্তি পেতে যাচ্ছে। মুক্তিকে সামনে রেখে প্রচারের জন্য নানা পরিকল্পনা সাজিয়েছেন নির্মাতারা। ক্রমান্বয়ে সেসব কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন সংশ্লিষ্টরা।


দীর্ঘ ১০ বছর মিডিয়াকে কোনো সাক্ষাৎকার দেননি বিজয়। কিন্তু ‘বিস্ট’ সিনেমার প্রচারের অংশ হিসেবে একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তা-ও এই অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ‘বিস্ট’ সিনেমার পরিচালক নেলসন। গত ১০ এপ্রিল প্রচার হয় এই পর্বটি। এক দশক মিডিয়ার সঙ্গে কথা না বলার কারণ এই অনুষ্ঠানে ব্যাখ্যা করেছেন বিজয়।

আরো পড়ুন: পরিচালনায় শাহরুখ-পুত্র, ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু করলেন আরিয়ান

ব্যস্ত থাকার কারণে মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেননি বিজয়—বিষয়টি আসলে তা নয়। বরং ইচ্ছাকৃতভাবে মিডিয়াকে এড়িয়ে গিয়েছেন তিনি। বিজয় বলেন, ‘এমন নয় যে আমি ব্যস্ত ছিলাম, যার কারণে নিজের সিনেমা নিয়েও সাক্ষাৎকার দিতে পারিনি। আমি চাইলেই সময় বের করে সাক্ষাৎকার দিতে পারতাম। কিন্তু সচেতনভাবেই মিডিয়া থেকে দূরে ছিলাম। অবশ্য এই ঘটনার পেছনে খারাপ একটি কারণ আছে; যা ১০ বছর আগে ঘটেছিল। আর ওই সময়ে মিডিয়া থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নিই।’  


দশ বছর আগে ঘটে যাওয়া খারাপ ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বিজয় বলেন—‘আমি একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলাম। তাতে আমি যা বলিনি তার জন্য আমাকেই দায়ী করে বিতর্ক তৈরি করেছিল। আমার পরিবার, বন্ধু-বান্ধব এই সাক্ষাৎকার পড়ে বিস্মিত হয়েছিল। তারা বলেছিল, বিশ্বাস হচ্ছে না তুমি এসব কথা বলেছো। তাদেরকে বলেছিলাম, এসব আমি বলিনি। পরিবার, বন্ধু-বান্ধবরা আমার কাছাকাছি থাকে, তাই তাদের আমি বিষয়টি ব্যাখ্যা করে বুঝাতে পেরেছি। কিন্তু অন্য সব মানুষের কাছে গিয়ে তো ব্যাখ্যা করা কঠিন। ওই সময়ে সিদ্ধান্ত নিই মিডিয়া থেকে দূরে থাকব।’


এক সময় বিনোদনের নিউজ গুরুত্বসহকারে দেখতেন বিজয়। কিন্তু সেই জায়গা থেকে সরে এসেছেন। এখন পাঠক হিসেবে সমসায়মিক ঘটনার খবর পড়ে থাকেন বিজয়।


‘বিস্ট’ সিনেমায় বিজয়ের বিপরীতে অভিনয় করেছেন পূজা হেগড়ে। এছাড়াও অভিনয় করছেন—ভিটিভি গণেষ, অপর্ণা দাস, যোগী বাবু, লিলিপুট ফারুকী, অঙ্কুর অজিত প্রমুখ। সান পিকচার্সের ব‌্যানারে নির্মিত হয়েছে তামিল ভাষার অ‌্যাকশন-ড্রামা ঘরানার এই সিনেমা।



আরো পড়ুন:





পরিচালনায় শাহরুখ-পুত্র, ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু করলেন আরিয়ান
Directed by Shah Rukh-son, Aryan started shooting for the web series


শাহরুখের মেয়ে সুহানা খান তাঁর প্রথম ছবির শ্যুটিং শুরু করেছেন। ‘আর্চিস কমিক্স’ নিয়ে চিত্রনাট্য লিখেছেন পরিচালক জোয়া আখতার। সেই ছবিতে সুহানার সঙ্গে অভিনয় করবেন অমিতাভ বচ্চনের নাতি অগস্ত্য নন্দা এবং শ্রীদেবীর ছোট মেয়ে খুশি কপূরও। শোনা যাচ্ছে, নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে জোয়ার এই মিউজিক্যাল।

আরো পড়ুন: ইউক্রেন, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা সঙ্কটের মধ্যে মোদী-বাইডেন এর ভার্চুয়াল বৈঠক আজ

অ্যামাজন প্রাইম ভিডিয়োর ওয়েব সিরিজের দায়িত্ব কাঁধে নিলেন শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। পরিচালনার কাজ শুরু করলেন তারকা-পুত্র। কেবল পরিচালনা নয়, সিরিজের চিত্রনাট্যও লিখেছেন তিনি। গত শুক্র এবং শনিবার পরীক্ষমূলক শ্যুটিং করেছেন আরিয়ান। সিরিজটি ফ্লোরে ওঠার আগে হাত পাকিয়ে নিতে চাইছেন শাহরুখ-পুত্র। কেবল তা-ই নয়, পরীক্ষামূলক শ্যুটিংয়ের মাধ্যমে কলাকুশলীদের সঙ্গে একটি ‘দল’ হয়ে ওঠার তাগিদ কাজ করছে তাঁর মধ্যে।


কবে ফ্লোরে যাবে এই সিরিজটি? সে তথ্য এখনও মেলেনি। সূত্রের কথায় জানা গেল, খুবই মন দিয়ে কাজ করছেন আরিয়ান। প্রাক-শ্যুটিংয়ের কাজ চলছে এই মুহূর্তে। খুব তাড়াতাড়ি মূল শ্যুটিংয়ের তারিখ প্রকাশ্যে আসবে। সব ঠিকঠাক এগোলে মুক্তিও পাবে এই বছরেই।


অ্যামাজন প্রাইমের পরে আরিয়ান নিজের বাবা-মায়ের প্রযোজনা সংস্থার হয়ে একটি পূর্ণদৈর্ঘ্যের ছবির পরিচালনা দেবেন।



আরো পড়ুন:






হইচইয়ে প্রথমবার মেহজাবীন-অর্ষা, নিপুণ জানালেন বিস্তারিত


Mehjabin-Arsha for the first time in Hichai, Nipun gave details


সমাজের ভিন্ন দুই স্তরের দুই নারী, দুজনের নামই সাবরিনা। এই দুই সাবরিনার গল্প বলার মাধ্যমে সমাজের সকল নারীর অবস্থান ফুটিয়ে তোলা হয়েছে হইচই অরিজিনাল ওয়েব সিরিজ ‘সাবরিনা’ তে। এরমাধ্যমে প্রথমবার প্লাটফর্মটি কাজ করতে যাচ্ছেন মেহজাবীন চৌধুরী ও নাজিয়া হক অর্ষা।


সিরিজটি নিয়ে বিস্তারিত জানাতেই মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে ‘সাবরিনা’ নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন নির্মাতা আশফাক নিপুণ। সবার উপস্থিতিতে সিরিজটির টিজারও রিলিজ করা হয়।

নারীকেন্দ্রিক এই গল্পের টিজার রিলিজের জন্য ৮ মার্চ বিশ্ব নারী দিবসকে বেছে নেয়া হয়েছে বলে জানান নিপুণ।  টিজারের শুরুতে দুই সাবরিনাকে পর্দায় দেখা যায়। পরবর্তীতে এটি যে প্রকৃতপক্ষে আমাদের সমাজের প্রতিটি নারীর গল্প, সেটিই তুলে ধরা হয়। টিজার থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় যে সুচারু নির্মাতা আশফাক নিপুণ ওয়েব সিরিজের প্রচলিত ধারা ভেঙে একটি প্রতিশ্রুতিশীল গল্প বলার চেষ্টা করেছেন।


সিরিজটিতে আরও অভিনয় করেছেন ইন্তেখাব দিনার, হাসান মাসুদ, রুনা খান, ইয়াশ রোহান, ডা. এজাজ, ফারুক আহমেদ, মনির খান শিমুল, নাদের চৌধুরী এবং সৈয়দ জামান শাওন।

নির্মাতা আশফাক নিপুণ জানান, “আমার কাছে সব সময়েই সামাজিক প্রেক্ষাপটের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং দর্শকদের মনে প্রভাব বিস্তার করে এমন গল্প বলা খুব গুরত্বপূর্ণ। অনেকগুলো কারণে সাবরিনা আমার কাছে বিশেষ কিছু। প্রথমত, নারীকেন্দ্রিক একটি গল্প বলা যা ওয়েব সিরিজের জগতে খুব বেশি প্রচলিত নয়, কেন্দ্রীয় চরিত্রে শক্তিমান দুই অভিনয়শিল্পীকে পাওয়া আর হইচই এর সাথে আবারও কাজ করা তো আছেই। আমার বিশ্বাস দর্শক এর আগে হইচই এ আমার কাজগুলো যেভাবে সাদরে গ্রহণ করেছে, এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না। দর্শক এবার সাবরিনাকে কীভাবে গ্রহণ করে তা দেখতে আমি মুখিয়ে আছি।”


সাবরিনা ওয়েব সিরিজ এবং এর মাধ্যমে হইচই এর সাথে প্রথমবার কাজ করা প্রসঙ্গে মেহজাবীন চৌধুরী বলেন, “সাবরিনা আমাদের সামাজিক প্রেক্ষাপটের বাস্তব চিত্র তুলে ধরেছে। এই সিরিজটি দর্শকদের কাছে পৌঁছে দেয়া প্রয়োজন। অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমি সব সময়ই একজন নারীর অনুভুতিকে প্রাধান্য দেয় এমন চিত্রনাট্যে কাজ করতে চাই। সাবরিনাতে এমন একটি গল্প বলা হয়েছে যা প্রক্রিতপক্ষে শুধু একজন নারী নয় বরং আমাদের সমাজের সব নারীর গল্প। হইচই এবং আশফাক নিপুণকে ধন্যবাদ আমাকে এমন একটি চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে ভাবার জন্য। হইচই এর সাথে এটি আমার প্রথম কাজ। এটি আমার জন্য একটি চমৎকার অভিজ্ঞতা ছিল। আমি দর্শকদের অভিব্যক্তি দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। আশা করি দর্শকদের সিরিজটি ভাল লাগবে।”

ঘটনাক্রমে নাজিয়া হক অর্ষারও হইচই এর সাথে এটি প্রথম কাজ। তিনি বলেন, “সাবরিনাকে কাজ করা একটি দারুণ অভিজ্ঞতা ছিল। গল্পটি মানবিক আবেগকে নাড়া দেয়ার মত। অনেক কিছু শেখার ছিল আমার জন্য। এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজে কাজ করতে পারার সুযোগ করে দেয়ার জন্য আশফাক নিপুণ এবং হইচইকে ধন্যবাদ। অবশেষে হইচই এ আমার অভিষেক হল। দর্শকদের প্রতিক্রিয়া দেখার জন্য আমি আর অপেক্ষা করতে পারছি না।”


ঘোষণার পর থেকেই দর্শকদের আগ্রহের কেন্দ্রে ছিল সাবরিনা। অবশেষে এই মার্চে সিরিজটি রিলিজ করা হচ্ছে।


 ১১ মার্চ থেকে ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ সিজন ৪

‘Bachelor Point’ season 4 from March 11


দেশের তরুণ প্রজন্মের লাইফস্টাইল, আবেগ ও তাদের হাসি-ঠাট্টায় ভরপুর সিরিয়াল ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’র সিজন ৪ প্রচারে আসছে।


আগামী ১১ মার্চ থেকে জনপ্রিয় নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি পরিচালিত এ সিরিয়ালটি টিভি ও ইউটিউবে প্রচার হবে৷

রোববার সকালে গুলশানের একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলন ডেকে কাজল আরেফিন অমি জানান, ১১ মার্চ থেকে সপ্তাহে ৩ দিন (শুক্র, শনি ও রোববার) ব্যাচেলর পয়েন্ট সিজন ৪ প্রচার হবে।


রাত ৮:২৫ মিনিটে টিভিতে প্রচারের পর ধ্রুব টিভির ইউটিউবে উন্মুক্ত হবে প্রতি এপিসোড।

‘দেশীয় সিরিয়াল দর্শক দেখে না, সিরিয়াল নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ নেই’ – এমন অভিযোগ চলমান, সেখানে ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’র পরপর ৩টি সিক্যুয়েলে বানিয়ে ব্যাপক সাড়া ফেলেন পরিচালক অমি। তাই দর্শক চাহিদা প্রাধান্য নিয়ে সাফল্যের ধারাবাহিকতায় সিরিয়ালটির নতুন সিজন বানিয়েছেন তিনি।

জনপ্রিয় ফ্রুট ড্রিংকস ফ্রুটিকা নিবেদিত ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ সিজন-৪ এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন আগের শিল্পীরা। যারা প্রত্যেকেই নাটকটির চরিত্রগুলো দিয়ে দর্শক মহলে ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়েছেন।


সংবাদ সন্মেলনে প্রত্যেক শিল্পী উপস্থিত ছিলেন। তাদের ছিলেন মিশু সাব্বির, পলাশ, চাষী আলম, মারজুক রাসেল, সাবিলা নূর, সানজানা সরকার রিয়া, ফারিয়া শাহরিন, শরাফ আহমেদ জীবন, সুমন পাটোয়ারী, মনিরা মিঠু, আবদুল্লাহ রানা, শিমুল শর্মা, পারসা ইভানা, পাভেল প্রমুখ।


সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আকিজ ভেঞ্চার গ্রুপের এমডি ও সিইও সৈয়দ আলমগীর, আকিজ ফুড এন্ড বেভারেজের হেড অব বিজনেস আতিকুর রহমান, ব্যান্ড মার্কেটিং এজিম আশফাকুর রহমান, মিডিয়া ডিপার্টমেন্ট হেড আরিফ উল হক, ধ্রুব টিভির কর্ণধার ও সংগীত শিল্পী ধ্রুব গুহ।

দেশের টিভি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশো। নাটকের পাশাপাশি তিনি ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও নাম লিখিয়েছেন।

ইতোমধ্যে ওয়েবে ‘মরীচিকা’ ও ‘রেডরাম’-এর মতো আলোচিত কনটেন্টে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন।


এবার নিশো ভারতীয় ওয়েব সিরিজে যুক্ত হলেন। এর নাম ‘কাইজার’। কাইজারের নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন আফরান নিশো। যিনি একজন হোমিসাইড ডিটেকটিভ। এর জন্য নিজের শরীর ও চেহারায় পরিবর্তন এনেছেন এই অভিনেতা। চমকপ্রদ রূপেই পর্দায় আসতে চলেছেন গুণী এই তারকা। জানা গেছে, ঢাকা ও ঢাকার বাইরে টানা ২০ দিন শুটিং হবে।

ভারতীয় প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ের জন্য নির্মিত হচ্ছে সিরিজটি। বুধবার (২ মার্চ) থেকে ঢাকায় শুরু হয়েছে এই সিরিজের শুটিং।

গত বছরই ২০টি অরজিনালস ওয়েব সিরিজের ঘোষণা দেয় হইচই। তখনই জানানো হয়, এগুলোর মধ্যে পাঁচটি নির্মাণ করবেন বাংলাদেশি নির্মাতা। ‘কাইজার’ নামের সিরিজটি বানাবেন তানিম নূর। যিনি এর আগে বহুল আলোচিত ‘কনট্র্যাক্ট’ ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করেছেন।

নতুন প্রজেক্টটি নিয়ে মুখ খুলতে চাইছেন না নিশো কিংবা নির্মাতা তানিম নূর কেউই। নিশোর সঙ্গে এতে কারা অভিনয় করছেন সেটাও রাখা হচ্ছে গোপন। নিশো কেবল বললেন, ‘একদমই নতুন এবং একেবারে ভিন্ন এক চরিত্রে দর্শক আমাকে দেখতে পাবেন’।

আফরান নিশোর প্রচুর ভক্ত ছড়িয়ে আছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। তারা নিশোর নাটক নিয়মিত দেখেন। এ সিরিজের মাধ্যমে সেখানে তার জনপ্রিয়তা অনেকখানি বাড়তে চলেছে।


আরো পড়ুন:









সঞ্জয়লীলা বানশালির ‘গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি’তে অভিনয় করে এই মুহূর্তে তুমুল আলোচিত আলিয়া ভাট। ছবির একটি রোমান্টিক দৃশ্য কয়েক দিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল। সহ-অভিনেতা শান্তনু মহেশ্বরীর সঙ্গে গাঙ্গুবাঈরূপী আলিয়ার ভালোবাসা উপভোগের একান্ত মুহূর্তের দৃশ্যটি ফেসবুক-টুইটারে শেয়ার করে অনেকেই লিখেছেন, এমন প্রেমের মুহূর্ত যদি তাদের জীবনেও আসত! জীবন ধন্য হতো। দৃশ্যটিতে আলিয়া-শান্তনুর রসায়ন মুগ্ধ করেছে বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষদের।


কিন্তু জানেন কি, এই দৃশ্যের শুটিংয়ে আলিয়ার হাতে ২০ বার চড় খেয়েছিলেন শান্তনু! দৃশ্যটিকে প্রাণবন্ত করার জন্য ২০ বার টেক নিয়েছিলেন আলিয়া।  


হিন্দুস্তান টাইমসের সঙ্গে আলাপচারিতায় শান্তনু মহেশ্বরী বলেন, ‘চড় মারার সময় আলিয়া আমাকে কশিয়ে চড় মারতে পারছিলেন না। প্রায় ২০ বার দৃশ্যটা করেছি আমরা। আলিয়া খুব মিষ্টি স্বভাবের, চড় মারতে যেন সুবিধা হয় এ কারণে আমি আগেই তাকে চিন্তা করতে মানা করেছিলাম। ’

অভিনয় তো ঠিক আছে, কিন্তু ব্যথাটা তো সত্যি সত্যি পেয়েছেন শান্তনু? হেসে এই অভিনেতা বলেন, ‘অভিনেতা হিসেবে আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সহশিল্পী ও পরিচালকের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলা। দৃশ্যটি করার আগেই জানতাম আমাদের কী করতে হবে। প্রস্তুতির সময় ধীরে ধীরে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতে হবে, মন থেকে সব দ্বিধা ঝেড়ে ফেলতে হবে। এমনকি একটি থাপ্পড়ও অভিনয়ের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। চরিত্রের মধ্যে থাকা অবস্থায় যা ঘটে সেগুলোকে ব্যক্তিগতভাবে নেওয়া একেবারেই উচিত নয়। ’


শুক্রবার ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে ‘গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি’। বক্স অফিসের রিপোর্ট অনুযায়ী ছবিটি প্রথম দিনে মোট ১০ কোটি ৫০ লাখ রুপি আয় করেছে। দ্বিতীয় দিনে ৩০ শতাংশ বেশি ব্যবসা করেছে। শনিবারের আয় ১৩ কোটি। মানে প্রথম দুদিনে মোট ২৩ কোটি ৫০ লাখ টাকার ব্যবসা করেছে ‘গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি’।


‘গ্রিক গড’ খ্যাত অভিনেতা হৃত্বিক রোশন এবং কঙ্গনা রানাওয়াতের ব্যক্তিগত ঝামেলার কথা জানে গোটা বলিউড। জনসমক্ষে হৃত্বিকের বিরুদ্ধে প্রেমে ধোঁকা দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিলেন কঙ্গনা। যদিও কঙ্গনার এই অভিযোগকে কোনোদিন স্বীকার করেন হৃত্বিক।


বহুদিন বাদে আবারও সেই বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনার নিশানায় ‘কাহো না পেয়ার হ্যায়’ তারকা হৃত্বিক। নিজের রিয়্যালিটি শো ‘লক আপ’-এর প্রিমিয়ার নাইটেই সাবেক সহ-অভিনেতা হৃত্বিকের দিকে আঙুল তুললেন কঙ্গনা।


অনুষ্ঠানের শুরুর দিকেই অভিনেত্রী বলেন, বলিউডের তারকারা তার এই শো নিয়ে ভয় পাচ্ছেন। হয়ত তাদের মুখোশ খুলে যাওয়ার ভয় আছে। তিনি আরও বলেন, যারা পাঁচ বছর ধরে তাকে এড়িয়ে চলেছে, তারা আমচকাই কথাবার্তা শুরু করেছে।


এর পরই কঙ্গনা এমন বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন যা কারও নজর এড়ায়নি। তিনি বলেন, ‘লোকজন পাঁচটা আঙুল জুড়ে হাত জোড় করছেন, আর ছয় আঙুলওয়ালাদের গলাও শুকিয়ে যাচ্ছে।’


ছয়টা আঙুল শুনেই সবার মনে যে ছবিটা ভেসে উঠে, তা নতুন করে বলে দিতে হবে না। বলিউডে ‘ছয় আঙুলওয়ালা’ তারকা একজনই আছেন, তিনি হৃত্বিক রোশন। এ কথা সবারই জানা। নাম না করেই এদিন কঙ্গনা হৃত্বিককেই আক্রমণ করেন।


২০১০ সালে ‘কাইট’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেন হৃত্বিক-কঙ্গনা। এরপর ২০১৩ সালে ‘কৃশ-থ্রি’ ছবিতে অভিনয়ের সময় নাকি ঘনিষ্ঠতা বাড়ে দুজনের। ২০১৪ সালে করণ জোহরের পার্টিতে অন্তরঙ্গ অবস্থায় কঙ্গনা-হৃত্বিকের একটি ছবিও ভাইরাল হয়।


কঙ্গনা বারবার হৃত্বিকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক থাকার কথা দাবি করে এলেও সেটি সবসময় মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন হৃত্বিক রোশন। হৃত্বিকের কথায়, তাদের মধ্যে শুধুমাত্র প্রফেশনাল সম্পর্ক ছিল।


২০১৬ সালে এক সাক্ষাত্কারে হৃত্বিককে ‘সিলি এক্স’ বলে খোঁচা দেন কঙ্গনা। এর পরই ই-মেইল চালাচালির ঘটনায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন হৃত্বিক। রাকেশ রোশন পুত্রের অভিযোগ, ২০১৩ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে কঙ্গনার ই-মেইল অ্যাকাউন্ট থেকে তাকে ১৪৩৯টি মেইল পাঠানো হয়েছিল।


অভিনেতার কথায়, এই সমস্ত ই-মেইল তার উপর মানসিক চাপ সৃষ্টি করেছে। আপতত সেই মামলা মহারাষ্ট্রের ক্রাইম ইন্টালিজেন্স ইউনিটের আওতায় বিচারাধীন। তার মধ্যে ফের একবার হৃত্বিককে নিয়ে কটাক্ষ করলেন কঙ্গনা।

 

ভিকির কথায় জানা গেল, অঙ্কিতা সুশান্তের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে যেতেন। তা নিয়ে অনেকে ভিকিকে নানা কথা শোনাতেন। অঙ্কিতার উদ্দেশ্য নিয়ে কুমন্তব্য করা হয়। সে সব প্রসঙ্গ তুলে ভিকি বললেন, ‘‘সেই সময়ে যে রকমের কথাবার্তা শুনতে হয়েছে আমাদের, ভাবা যায় না।’’




২০২০ সালের ১৪ জুন। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু। তার পরে অনেকগুলি জীবন তছনছ হয়ে গিয়েছিল। সুশান্ত-প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী থেকে শুরু করে তাঁর বন্ধুবান্ধব। সুশান্তের পরিবার থেকে শুরু করে নায়কের প্রাক্তন প্রেমিকার জীবন। তাঁর চলে যাওয়া আজও মেনে নিতে পারেনি দেশ। সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা সে সময়ে কী ভাবে নিজেকে সামলেছিলেন, সে কথা বারবার মানুষের কানে পৌঁছলেও তাঁর প্রেমিক (এখন স্বামী) ভিকি জৈনের কথা কেউ জানে না। তিনিও লড়াই করেছিলেন। সে কথা সদ্য স্টার প্লাসের একটি রিয়েলিটি শো-তে এসে জানালেন অঙ্কিতার স্বামী ভিকি।


ভিকির কথায় জানা গেল, সুশান্তের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে যেতেন অঙ্কিতা। তাই জন্য অনেকে ভিকিকে খারাপ কথা শোনাতেন। অঙ্কিতার উদ্দেশ্য নিয়ে কুমন্তব্য করা হত। সে সব প্রসঙ্গ তুলে ভিকি বললেন, ‘‘সেই সময়ে যে রকমের কথাবার্তা শুনতে হয়েছে আমাদের, ভাবা যায় না। কিন্তু আমি গর্ব বোধ করি অঙ্কিতার জন্য। খুব সুন্দর করে সব কিছুকে সামলেছিল ও। সুশান্তের প্রতি ও নিজের দায়িত্ব বোধ ভুলে যায়নি। তাই অঙ্কিতার পাশে ছিলাম আমিও।’’ ভিকি জানান, সুশান্তের মৃত্যুর পরে গোটা দেশের পাশাপাশি ওঁদের সম্পর্কও অন্যতম কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে গিয়েছে।


গত বছর ১৪ ডিসেম্বর মহা সমারোহে বিয়ে সারেন অঙ্কিতা-ভিকি। কিন্তু সুশান্ত-প্রেমীদের এক অংশ তাঁদের বিয়ে মেনে নিতে পারেননি। ‘পবিত্র রিশতা’ নায়িকাকে সমালোচনা শুনতে হয়েছে।

রিয়েলিটি শো-তে এসে অঙ্কিতা বলেন, ‘‘আমি কিন্তু অনেক দিন আগেই আমার অতীতকে পিছনে ফেলে সামনের দিকে হাঁটা শুরু করেছি। কিন্তু এই ঘটনাটি ঘটার পরে (সুশান্তের মৃত্যু) সুশান্তের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোটা দরকার ছিল। ভিকিকে কী ভাবে কী বলব, বুঝতে পারছিলাম না। কিন্তু ও নিজেই সবটা বুঝে যায়। আমাকে একটি শব্দও খরচ করতে হয়নি।’’

 

বলিউড প্রেমগুরু সলমন খানের বয়স প্রায় পঞ্চাশ পেরিয়ে গেলেও, এখনও অব্দি তিনি বিয়ে করার ইচ্ছাপ্রকাশ করেননি। যৌবন বয়সে একাধিক প্রেমের সাথে নিজের নাম জড়ালেও বিয়ের মন্ডপে তা কখনোই পৌঁছায়নি। এই বয়সেও যখন বিয়ে তিনি করেননি তখন আর করার সম্ভাবনা তেমন দেখা যায় না বললেই চলে। আর ঠিক এই কারণেই বলিউডের মোস্ট এলিজেবল ব্যাচেলরের তকমা পেয়েছেন ভাইজান। কিন্তু সম্প্রতি সকলকে অবাক করে দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক ভাইরাল বিবাহিত সলমনের কিছু ছবি এবং ভিডিও।


আপনি শুনে অবাক হলেও, এটাই সত্যি! সোশ্যাল মিডিয়ার দুনিয়া ছেড়ে গেছে সলমন খানের বিয়ের ছবিতে। কাকে বিয়ে করছেন তিনি? ভাইরাল ছবিতে দেখা গিয়েছে বিবাহিত দাবাং’-এর পাশে রয়েছেন অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা। অভিনেত্রী সিঁথিতে সিঁদুর জ্বলজ্বল করছে। আর সালমান খান অত্যন্ত রোমান্টিকভাবে সোনাক্ষির আঙুলে আংটি পরিয়ে দিচ্ছে। এই ছবিগুলি নিমেষের মধ্যে ইন্টারনেটের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে গেছে।



তবে কি সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে যাওয়া ছবিটি সত্যি? এই প্রশ্নে উত্তাল গোটা নেটদুনিয়া। ভাইজান ফ্যানেরা বিশ্বাসই করতে পারছেন না যে তাদের প্রিয় তারকা কোনো ঘোষণা ছাড়াই বিয়ে সেরে নিলেন। তবে ছবিগুলি খুঁটিয়ে দেখে বোঝা গিয়েছে যে সবটাই আসলে ডিজিটাল এডিটের কারসাজি। কেউ একজন দক্ষতার সাথে বিভিন্ন জায়গার ছবি এক জায়গায় এনে ব্যাকগ্রাউন্ড চেঞ্জ করে, নিজের হাতে সলমন সোনাক্ষির বিয়ের ছবি তৈরি করেছেন। ইন্টারনেটের দুনিয়াতে ভাইরাল সালমান সোনাক্ষীর বিয়ের খবর সম্পূর্ণভাবে মিথ্যে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বলিউড সিনেমা দাবাং সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন সালমান সোনাক্ষী জুটি। ওই সিনেমা থেকেই বলিউডে যাত্রা শুরু করেছিলেন অভিনেত্রী সোনাক্ষি সিনহা। তবে তাঁর বলি টাউনে যাত্রা এত সোজা হয়নি। অতিরিক্ত ওজনের জন্য বারংবার বলিউড থেকে প্রত্যাক্ষিত হতে হয়েছে তাকে। তবে জানা যায়, প্রথম সিনেমাতে অভিনয়ের পর সালমানের উৎসাহতেই মেদ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সোনাক্ষী সিনহা।


 

‘অর্জুন রেড্ডি’ দিয়ে এ দেশের দর্শকের কাছে তুমুল পরিচিত দক্ষিণী সুপারস্টার বিজয় দেবরাকোন্ডা। অন্যদিকে, রশ্মিকা মান্দানা’র ‘পুষ্পা’র নাচ এখনও নাচছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। 

তাদের প্রেমের গুজব বহু দিন ধরেই। একসঙ্গে দুটি ছবিতে কাজ করেছেন তারা। অনস্ক্রিন ও অফস্ক্রিন বন্ধুত্ব বা ‘সম্পর্কের’ কথা কারোরই অজানা নয়। 

তবে সম্প্রতি তাদের মেলামেশা নতুন করে আলোচনার খোরাক জুগিয়েছে। এমনকি ভারতীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের দাবি, চলতি বছরের শেষেই বিয়ের পিঁড়িতে দেখা যাবে দক্ষিণ ভারতের অন্যতম কাঙ্ক্ষিত এ জুটিকে।

আর এখন জমিয়ে করছেন প্রেম। যার নজির পাওয়া গেছে সম্প্রতি। কিছু দিন আগে দুই তারকা মুম্বাইয়ে পাপারাজ্জিদের কাছে লেন্সবন্দি হন। অনেকের দাবি, বেশ ডেটিং করছেন তারা।

জানা যায়, বিগত কয়েক দিন ধরেই হিন্দি ছবি ‘লাইগার’র শুটিংয়ের জন্য শহরটিতে রয়েছেন বিজয়। অন্যদিকে, মুম্বাইয়ে নতুন বাড়ি কিনেছেন রশ্মিকা।

তবে তাদের ‘বন্ধুত্ব’র শুরু ‘গীত গোবিন্দম’ ও ‘ডিয়ার কমরেড’ ছবি দুটোর কারণে। এগুলোতে অভিনয় করেছেন বিজয় ও রশ্মিকা। দুটি ছবিই ছিল সুপারহিট। দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রির অন্দরে কান পাতলে শোনা যায়, পর্দার রসায়ন বাস্তবে প্রেমের সম্পর্কে পরিণত হয়েছে। বছরের শুরুটা নাকি গোয়ায় ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন তারা। সেখানে বিজয়ের ভাই আনন্দও উপস্থিত ছিলেন। অন্যদিকে, নায়কের মায়ের সঙ্গেও ভালো সম্পর্ক রশ্মিকার। 

শোনা যাচ্ছে, এই বছরের শেষেই সাতপাকে বাঁধা পড়তে পারেন রশ্মিকা ও বিজয়। নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে যদিও এখন পর্যন্ত মুখ খোলেননি তারা। উভয় তারকাই এই মুহূর্তে তাদের কাজ নিয়ে বেশ ব্যস্ত।

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget