Latest Post

এখন কেবল মধ্য চৈত্র। বৈশাখ আসতে প্রায় সপ্তাহ দু-এক বাকি। তাই বলে কি বর্ষবরণের চিন্তা কারও মধ্যে জাগেনি? ভাবনার দরজা এখনো খোলেনি? না, একেবারেই নয়! যাঁরা চুপ করে বসে আছেন, তারা বড্ড ভুল করবেন। কারণ এবার বর্ষবরণের আনন্দ একদিন বা দুদিনের জন্য নয়, টানা তিন দিনের। অর্থাৎ, ইংরেজির তারিখের ১৪ এপ্রিল রোববার দিন হবে পয়লা বৈশাখ। এর আগে দুদিন ১৩ ও ১২ এপ্রিল শনি ও শুক্রবার। সব মিলিয়ে টানা তিন দিনের ছুটির ফাঁদ।




ছুটির ফাঁদের পড়ে কেউ কি ইচ্ছে করে গৃহবন্দী থাকতে চাইবেন? তাই ১৪২৬ সাল বরণ নিয়ে চিন্তা-ভাবনার পর্ব শেষ হয়ে গেছে সেই কবে! এখন নববর্ষকে স্বাগত জানাতে ছুটে চলার প্রস্তুতি।

কেউ ছুটবেন সড়কপথে, কেউ যাবেন নৌপথে, কেউবা আবার আকাশপথে। তিন পথেরই টিকিট নিয়ে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। এমনকি টিকিট বিক্রিও প্রায় শেষের দিকে।

টিকিট নিয়ে সড়ক পথে দৌড়ঝাঁপের মধ্যে যাননি নাজমুর রহমান। আকাশ পথে উড়াল দেবেন বৈশাখের এই ছুটিতে চট্টগ্রামে। তাই তিনি আরও সাত দিন আগেই একটি বেসরকারি বিমান সংস্থার টিকিট পাঁচ হাজার টাকায় কিনে নিয়েছেন। নাজমুর রহমান বলেন, ‘পয়লা বৈশাখের আগে দুই দিন ছুটি। সব মিলিয়ে তিন দিনের ছুটি পাচ্ছি। এ কারণে পুরো পরিবার নিয়ে চলে যাব চট্টগ্রামে। সেখান থেকে কাপ্তাই রাঙামাটি ঘুরে ঢাকায় ফিরব ১৫ এপ্রিল সকাল বেলা। বিমানবন্দর থেকেই সোজা চলে যাব অফিসে।’

নাজমুর রহমান জানান, তিনি কোনো তাড়াহুড়া করবেন না। ১১ এপ্রিল অফিস করবেন। পরদিন ১২ এপ্রিল সকালের ফ্লাইটে চট্টগ্রাম যাবেন।

নাজমুর রহমানের মতো আরও অনেকে স্বাচ্ছন্দ্যে ভ্রমণের জন্য আকাশ পথকে বেছে নিয়েছেন। এতে খরচ কিছুটা বেশি হলেও লম্বা ভ্রমণের ঝক্কি তাঁরা নিতে চাইছেন না। ছুটির পুরোটাই উপভোগ করতে চাইছেন। ফলে আকাশপথের টিকিটে চাপ পড়েছে। 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজ প্রথম আলোকে বলেন, ছুটির দিনের হিসাব এখন মানুষ আগে থেকেই করেন। এ জন্য বিমানের টিকিটের চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। অভ্যন্তরীণ আকাশপথের মধ্যে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, সিলেটে টিকিটের চাহিদা বেশি। বেশির ভাগ টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২ এপ্রিল টিকিটের দাম পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ১১ এপ্রিলের জন্য সকাল ও বিকেলে টিকিটের দামে হেরফের রয়েছে। বিকেলের টিকিটের দাম বেশি। সকালে ঢাকা থেকে কক্সবাজারে বিমানের টিকিটের দাম সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা। একই দিন বিকেলে টিকিটের দাম ছয় হাজার ১০০ টাকা।

এ ব্যাপারে বিমানের মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ বলেন, এসব রুট ছাড়াও সিলেট, যশোরে টিকিটের চাহিদা রয়েছে। আর দেশের বাইরে আশপাশের অঞ্চল সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া আর কলকাতায় অনেক মানুষ পয়লা বৈশাখের ছুটি কাটাতে বিমানের টিকিট কিনছেন।

বেসরকারি উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোরও বৈশাখের ছুটি উপলক্ষে টিকিটের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। ইউ এস বাংলার ব্যবস্থাপক (মার্কেটিং সহায়ক ও জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে তিন দিনের ছুটি পড়ে যাওয়ায় টিকিট বিক্রি বেড়ে গেছে। ১১ এপ্রিলের বেশির ভাগ টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। এই দিন সিলেট, কক্সবাজার আর চট্টগ্রাম রুটের প্রায় সব টিকিটই বিক্রি হয়ে গেছে। মানুষ শুধু বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে যাচ্ছেন না, তারা বৈশাখের এই তিন দিন ছুটিতে নিজেদের আপন ঠিকানাতেও বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন। এ জন্য সৈয়দপুর, যশোরে যাত্রী চাপ রয়েছে। তিনি বলেন, এসব রুটে রিটার্ন টিকিট বা ফিরতি টিকিটের জন্য ১৪ এপ্রিল বিকেলে এবং পরদিন ১৫ এপ্রিল সকালের ফ্লাইটের টিকিটের চাহিদা রয়েছে।

সড়ক পথের যাত্রীরা বেশ কদিন আগেই টিকিট কিনে নিয়েছেন। গাবতলী আন্তজেলা বাস টার্মিনাল ঘুরে জানা গেছে, মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহ থেকেই অগ্রিম টিকিট কেনা শুরু করেছেন বৈশাখের ছুটি কাটানোর পরিকল্পনাকারী যাত্রীরা।

হানিফ পরিবহনের ব্যবস্থাপক মোশারফ হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ১১ এপ্রিল সকাল বেলার টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। তবে দুপুরের পরের কোনো টিকিট তাঁদের হাতে নেই। সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে।

মোশারফ হোসেন বলেন, হানিফ পরিবহনের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের রুট মিলিয়ে ১১ এপ্রিল ৩৫৫টি বাস ঢাকা ছেড়ে যাবে। সে দিনের বেশির ভাগ টিকিট কিনে নিয়েছেন যাত্রীরা।

আকাশপথ আর সড়কপথের মতো নৌপথেও অনেকে বৈশাখী ছুটি কাটাতে যাবেন। এ জন্য পটুয়াখালীর দিকে যাত্রীদের লঞ্চের টিকিটের চাহিদা বেশি। কারণ পটুয়াখালী থেকে অনেকে চলে যাবেন পর্যটন এলাকা কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে। এ ছাড়া দক্ষিণাঞ্চলের চাঁদপুর, বরিশাল, বরগুনা, পিরোজপুর, ঝালকাঠি নৌরুটে টিকিট বিক্রি শুরু হয়ে গেছে।

সুন্দরবন লঞ্চের পরিচালক মোহাম্মদ ঝন্টু প্রথম আলোকে বলেন, তারা বেশ কিছুদিন আগে থেকেই টিকিট বিক্রি করছেন। কেবিনের চাহিদা বেশি। কারণ মানুষ একটু আরাম করে এসব উৎসবের ছুটি গুলো উপভোগ করতে চায়। এ জন্য কেবিনে টিকিটের দিকেই যাত্রীরা বেশি ঝুঁকছেন।

রেলপথ ধরে ঢাকা ছাড়বেন প্রচুর মানুষ। তাই ট্রেনের টিকিটের বেশ চাহিদা রয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে ১১ এপ্রিলের অগ্রিম বিক্রি করা হয়। ঢাকা রেলওয়ের থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসিন ফারুক প্রথম আলোকে বলেন, ঈদের সময়ের মতো অবস্থা ছিল গতকাল। ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছেন ঘরমুখী মানুষেরা। সকাল দশটার মধ্যে সব টিকিট বিক্রি শেষ হয়ে যায়। পরদিন ৩ এপ্রিল ১২ এপ্রিলের টিকিট বিক্রি করা হয়েছিল। এদিনও ছিল একই অবস্থা।

( prothomalo )


চালকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে উবারে যুক্ত হয়েছে নতুন ফিচার। এর নাম ‘ড্রাইভার সেফটি টুলকিট’। উবার অ্যাপের নতুন ফিচারটির মাধ্যমে অ্যাপের সকল নিরাপত্তা ফিচারগুলো চালকেরা ব্যবহার করতে পারবেন। উবার অ্যাপের জিপিএস ট্র্যাকিং, জরুরি বাটন ও অন্যান্য সকল নিরাপত্তা ফিচারগুলো একত্রে পাওয়া যাবে এ টুলকিটের মধ্যে।
উবারের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নতুন ফিচার হিসেবে আসা শেয়ার ট্রিপের মাধ্যমে চালকেরা তাদের ট্রিপের তথ্য প্রিয়জনদের জানাতে পারবেন। এ ছাড়া কার সঙ্গে তথ্য শেয়ার করবেন তা ঠিক করে নিতে পারবেন। ফিচার হিসেবে যে ইমারজেন্সি বাটন এসেছে তাতে জরুরি পরিস্থিতির সময় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করা যাবে। নতুন ফিচারে নির্ধারিত গতিসীমা পার হলে সতর্ক করার বিষয়টিও এসেছে। ড্রাইভার সেফটি টুলকিটটি অ্যাপের নিচের দিকে একটি ‘শিল্ড’ আইকন দ্বারা নির্দেশিত থাকবে।


বাহরাইনে অনুষ্ঠিত এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ বাছাইপর্বে ফিলিস্তিনির কাছে ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ।
হার তো হারই! তবে কখনো কখনো হারের মধ্যেও থাকে বীরত্ব। পরাজয়ের মধ্যেও থাকে লড়াইয়ের উচ্ছ্বাস। এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ বাছাইপর্বে শক্তিশালী ফিলিস্তিনের বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচটা দেখে থাকলে দুর্দান্ত এক ফুটবল ম্যাচের স্বাদ পাওয়ারই কথা। ১-০ গোলে হারলেও মন জয় করে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই হারে বাছাইপর্বের বাধা পার হয়ে চ্যাম্পিয়নশিপ খেলার স্বপ্ন ভেঙে গেল বাংলাদেশের।

বাংলাদেশের ফুটবলের প্রেক্ষাপটে  চ্যাম্পিয়নশিপ খেলার স্বপ্নকে বাড়াবাড়ি মনে হতে পারে। কিন্তু বাংলাদেশ দল দেখিয়ে দিয়েছে কেন জেমি ডে সে স্বপ্ন দেখার সাহস দেখিয়েছেন। আজকের ম্যাচটাকে দুই অর্ধে ভাগ করা যেতে পারে। প্রথমার্ধে একমাত্র গোলটি হজম করলেও লড়াইয়ে ছিল প্রায় সমতা। আর দ্বিতীয়ার্ধে মাসুক মিয়া জনি, সুশান্ত্র ত্রিপুরাদের দাপট। প্রতি–আক্রমণে গোলের একটি সহজ সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। পোস্ট ছেড়ে বের হয়ে আসা গোলরক্ষককে পরাস্ত করে ফাঁকা পোস্ট পেয়েছিলেন মতিন, কিন্তু তাঁর দুর্বল শট গোললাইন পর্যন্ত পৌঁছানোর আগেই ক্লিয়ার করেন ফিলিস্তিন ডিফেন্ডার। অন্যদিকে বাংলাদেশের পোস্টে বলার মতো দুইটি বল রাখতে পেরেছে ফিলিস্তিন। এর মধ্যে একটিতে গোল। তবে বাংলাদেশের নিয়মিত গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকু পোস্টের নিচে থাকলে গোলটা হজম করতে হতো কি না, এই নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাবে। চোটের কারণে আজ মাঠে নামা হয়নি আগের ম্যাচে বাহরাইনের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলা জিকুর। তাঁর স্থলে মাঠে নেমেছিলেন পাপ্পু হোসেন।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের (১৯২) চেয়ে ১০০ ধাপ এগিয়ে থাকা ফিলিস্তিন পরিষ্কারভাবে ছিল ফেবারিট। সে তুলনায় ধুন্ধুমার লড়াই উপহার দিয়েছে জনি বাহিনী। বাংলাদেশ কোচ জেমি ডের ফরমেশনও ছিল ঘর সামলে প্রতি–আক্রমণে যাওয়ার। ৫-৪-১ ফরমেশনে রহমত-সুশান্ত-রাফি-বাদশা ও বিশ্বনাথকে নিয়ে রক্ষণভাগ ছিল নিরেট জমাট। তাঁদের ওপর ছায়া দিয়েছেন ডাবল পিভট দুই হোল্ডিং মিডফিল্ডার জনি ও আলামিন। ফলে প্রতিপক্ষ উইং প্লে বা মিডল করিডর দিয়ে ওয়ান টু ওয়ানে অ্যাটাকিং থার্ড পর্যন্ত আসতে পারলেও বাংলাদেশের রক্ষণ সীমানায় ঢুকেই ফেরত যেতে হয়েছে।

শ্রীলঙ্কাকে ৯-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার সুখস্মৃতি নিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল ফিলিস্তিন। সুতরাং বাংলাদেশের তুলনায় তাদের শক্তি নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই। কিন্তু ফিলিস্তিনির বিপক্ষে বাংলাদেশ ড্র করলেও অবাক হওয়ার কিছু ছিল না। ২২ মিনিটে হজম করা গোলের জন্য গোলরক্ষক পাপ্পুর ওপর কিছুটা দায় দেওয়া যায়। অনেক দূর থেকে নেওয়া শটে বলের লাইনে যেতে পারেননি। এর পরে বাংলাদেশকে আর নাড়া দিতে পারেনি ফিলিস্তিন। উল্টো ৭০ মিনিটে বদলি মতিন সহজ সুযোগ মিস না করলে ফলাফলটা অন্য রকমও হতে পারত।

টানা দুই ম্যাচ হেরে বাছাইপর্ব থেকে ছিটকে যাওয়া বাংলাদেশ আগামী পরশু শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে শেষ ম্যাচ।



ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেছেন, সৌদি আরবের বিমানবন্দরে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের অপেক্ষার সময় ও কষ্ট কমিয়ে আনার লক্ষ্যে সৌদি আরবের পরিবর্তে বাংলাদেশেই প্রি-অ্যারাইভাল ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করার চেষ্টা করছি। আশা করি এবারই এটি কার্যকর করতে পারব। আজ রবিবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সৌদি সরকারের আমন্ত্রণে সৌদি আরব গিয়েছিলাম। এ বিষয়ে তাদের দুই মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে হজযাত্রীদের বাংলাদেশেই প্রি-অ্যারাইভাল ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করার উদ্দেশে সৌদি আরবের একটি কারিগরি দল গত ২১ মার্চ বাংলাদেশে এসে মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করে দেশে ফিরে গেছেন। আগামী ৬ এপ্রিল আরও একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে আসবে।' 
তিনি আরো বলেন, ‘আশা করছি, এবারই বাংলাদেশেই প্রি-অ্যারাইভাল ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারব।’

নুরুল হকনুরুল হকপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) আজীবন সদস্য করার প্রস্তাবে দ্বিমত পোষণ করেছেন নতুন সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক। ২৯ বছর পর অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনের পর এর প্রথম সভার সভাপতি উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান শেখ হাসিনাকে আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব দেন।

পদাধিকার বলে ডাকসুর সভাপতি উপাচার্যের সভাপতিত্বে আজ শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ভবনে প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতেই উপাচার্য বলেন, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত ইচ্ছায় ডাকসু নির্বাচন হয়েছে। তাই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করা হোক।

এ প্রস্তাবের বিষয়ে ভিপি নুরুল হক বলেন, এই নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ আছে। তাই প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচনের মাধ্যমে যে ডাকসু গঠিত হয়েছে, সেখানে প্রধানমন্ত্রীর মতো সম্মানিত ব্যক্তিকে অন্তর্ভুক্ত না করাই ভালো।

প্রসঙ্গত, নির্বাচিত ২৫ সদস্যের মধ্যে ২৩ জনই ছাত্রলীগের প্যানেলের। অন্যদিকে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের প্যানেল সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের দুজন সদস্য রয়েছেন। নুরুল এই প্যানেল থেকে নির্বাচিত।

ডাকসু সদস্যরা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করে ওয়ানওয়ে লেন ও বিশেষ রিকশা চালু করার প্রস্তাবও দেন।


ইন্টারনেটযুক্ত স্মার্টফোন বা টেলিভিশনের মাধ্যমে জনপ্রিয় সব টেলিভিশন চ্যানেল দেখা, ভিডিও অন ডিমান্ড ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের স্ট্রিমিং দেখার সুবিধা দিতে দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হতে যাচ্ছে রেডিয়েন্ট আইপি টিভি।
প্রায় ছয় বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে চালু হওয়া জনপ্রিয় এই আইপি টিভি ইতিমধ্যেই দেড় শতাধিক টেলিভিশন চ্যানেল, রেকর্ডকৃত ভিডিও, মুভি, নাটক, সিরিয়াল ইত্যাদি নিয়ে বাংলাদেশের গ্রাহকদের পরীক্ষামূলকভাবে সেবা দিতে শুরু করেছে।
কেবল টিভি বা ডিসের লাইনে শুধু ইচ্ছেমতো চ্যানেল বদলানো যায়। এর বাইরে তেমন কোনো সুবিধা নেই। কিন্তু আইপি টিভির ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, কোনো টেলিভিশন অনুষ্ঠান সময়মতো না দেখতে পারলে পরেও রেকর্ডকৃত ভিডিও দেখে নেওয়া যাবে। বাংলাদেশে সচরাচর কেবল টিভিতে এক শর কম চ্যানেল দেখা যায়। রেডিয়েন্ট আইপি টিভির মাধ্যমে বর্তমানে দেড় শতাধিক চ্যানেল দেখার সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশের বাইরে রেডিয়েন্ট আইপি টিভির চ্যানেল সংখ্যা ২৫০।

রেডিয়েন্ট আইপি টিভির বাংলাদেশের পরিচালন ব্যবস্থাপক আতিকুর রহমান জানান, সম্প্রতি টেলিকম নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি বাংলাদেশে স্ট্রিমিং সেবা, আইপি টিভি ও ভিডিও সেবা দেওয়ার পথ উন্মুক্ত করে দিয়েছে। আবেদনের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই এ সেবার জন্য লিখিত অনুমতিও মিলেছে। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের এ সেবা চালু করা হবে। স্মার্টফোন ও স্মার্ট টেলিভিশনে রেডিয়েন্ট আইপি টিভির সেবা গ্রহণ করা যাবে। আগ্রহী ব্যক্তিরা গুগল প্লে স্টোর অথবা অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন। ওয়ালটনসহ দেশি টেলিভিশন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো ভবিষ্যতে তাদের টেলিভিশনে ডিফল্টভাবে রেডিয়েন্ট আইপি টিভি ইনস্টল করার বিষয়ে আগ্রহ জানিয়েছে।
রেডিয়েন্ট আইপি টিভি দেশের অন্যতম ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান আইসিসি কমিউনিকেশনের সহযোগী প্রতিষ্ঠান। আইসিসি বর্তমানে দেশের প্রায় ৪০টি জেলায় ইন্টারনেট ও আইপি টেলিফোন সেবা দিচ্ছে। তারা সারা দেশে একই সংযোগে কোয়ার্ডপ্লে (ইন্টারনেট, টিভি, ফোন ও হোম অটোমেশন) বাস্তবায়ন নিয়ে কাজ করছে।


ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ‘একসময় ডিজিটাল বাংলাদেশ নিয়ে হাসি–তামাশা করা হতো। আজ পৃথিবীর অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। আমরা আজ যে অবস্থায় আছি, পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য আরও বেশি করে ভাবতে হবে।’
সম্প্রতি রাজধানীর বসুন্ধরায় আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি খাতের প্রদর্শনী বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯–এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রযুক্তির বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সফটওয়্যার ও ডিজিটাল ডিভাইস প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন, তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ ও উদ্ভাবকদের ৫জির সঙ্গে সম্পৃক্ত প্রযুক্তি বিশেষ করে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবোটিকস, বিগ ডেটা, আইওটি ও ব্লক চেইন প্রযুক্তির ওপর নিজেদের আরও দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে।মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন ১৮০টি দেশে সফটওয়্যার রপ্তানি করছে। আইওটি পণ্য আমরা সৌদি আরবে রপ্তানি করছি। প্রযুক্তিতে আগামী পাঁচ বছরে বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে থাকবে। ২০২১ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে প্রযুক্তির বিস্ময়কর আবিষ্কার ৫জি যুগে প্রবেশের প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই আমরা শুরু করেছি।’

গত ১০ বছরে অর্থনীতিতে বাংলাদেশের সফলতাকে অভাবনীয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। ৫৬৫ ডলারের মাথাপিছু আয়ের বাংলাদেশ গত ১০ বছরে ১ হাজার ৯০৯ ডলারের মাথাপিছু আয়ের বাংলাদেশে উন্নীত হয়েছে। এ বছর ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ জিডিপি অর্জিত হয়েছে। কিন্তু আমরা এমন একটা সময়ে উপনীত হয়েছি, যখন ডিজিটাল যন্ত্র উৎপাদনের বিষয়টি অনেক সম্ভাবনাময় হয়ে উঠেছে।



ক্রীড়া প্রতিবেদক : বাংলাদেশের ২০১৯ বিশ্বকাপের দল প্রায় ঠিকই হয়ে আছে। গত কিছুদিন ধরে এ কথাই বলে আসছেন নির্বাচকরা। সঙ্গে অবশ্য এ রকম একটি পাদটীকাও তাঁরা জুড়ে দিচ্ছেন যে, ‘বিশ্বকাপ দলের একটি রূপরেখা চূড়ান্ত হয়েই আছে। তবে এর মধ্যে যদি কেউ দুর্দান্ত কিছু করে ফেলে, তাহলে ভিন্ন কথা।’ ভিন্ন সেই ভাবনায় তাঁদের নিয়ে যাওয়ার মতো পারফরম্যান্সও যে কেউ কেউ করছেন না, তাও নয়। চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেই (ডিপিএল) আছেন উল্লেখযোগ্য বেশ কয়েকজন পারফরমার। আপাতত সবার আগে আসছে এনামুল হকের নামই। গতকাল ফতুল্লায় আবাহনীর বিপক্ষে করেছেন আসরে তাঁর টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি।
যে সেঞ্চুরি দিয়ে তিনি পাশে বসলেন মোহাম্মদ আশরাফুলেরও। ‘লিস্ট এ’ ক্রিকেটের এক আসরে সর্বোচ্চ পাঁচটি সেঞ্চুরির রেকর্ড এখনো বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়কেরই আছে। যেটি গড়ার পথে গত আসরে কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের হয়ে ডিপিএল ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টানা তিন ম্যাচেও সেঞ্চুরি করেছিলেন আশরাফুল। গত আসরে প্রথম পর্বের শেষ রাউন্ডে মোহামেডানের বিপক্ষে ১২৭ রান করা ব্যাটসম্যান রেলিগেশন লিগের দুই ম্যাচেও ছুঁয়েছিলেন তিন অঙ্ক। অগ্রণী ব্যাংকের বিপক্ষে ১০৩ রান করার পর ব্রাদার্স ইউনিয়ন ম্যাচেও খেলেছিলেন ১৩৭ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। তাঁর দল প্রথম বিভাগে অবনমিত হয়ে গেলেও রেকর্ডের পাতায় ঢুকে যাওয়া আশরাফুলের পাশে নিজের নামও টুকে নেওয়া এনামুলের ব্যাটেও এখন রানবন্যা। শেষ তিন ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের অধিনায়কের ইনিংসগুলো দেখুন—লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে অপরাজিত ১০০, শেখ জামাল ধানমণ্ডির বিপক্ষে ১০১ ও আবাহনীর বিপক্ষে ১০২!
আসরের প্রথম দুই ম্যাচে ভালো শুরু পেয়েও কাজে লাগাতে না পারা এনামুলের সবশেষ তিন ম্যাচের পারফরম্যান্স কি নির্বাচকদের ভাষ্যানুযায়ী ‘দুর্দান্ত কিছু’র মধ্যে পড়ছে? প্রশ্নটা শুনেই প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীনের জবাব, ‘অবশ্যই পড়ছে। টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরি অবশ্যই বড় অর্জন। ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরম্যান্সেও আমরা নজর রাখছি। যারা যারা পারফরম করছে, তারা কেউ আমাদের চোখের আড়ালে নেই।’ ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে ভালো পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবে অনেক আগেই জাতীয় দলের বিবেচনার বাইরে চলে যাওয়া ফরহাদ রেজার অন্তত বিশ্বকাপের ৩০ জনের প্রাথমিক দলে থাকার তথ্য দিয়ে মিনহাজুলরা সে দাবিকে জোরালোও করতে পেরেছেন। অবশ্য তিনি এটিও চান যে পারফরমারের সংখ্যাধিক্যে তাঁদের কাজটি কঠিনও হয়ে যাক, ‘আমরা তো বিশ্বকাপ দল নিয়ে বসিনি এখনো। চাইব এর আগে যেন অনেক পারফরমার থাকে। সবাইকে তো আর সুযোগ দেওয়া যাবে না। তবে পারফরমার বেশি থাকার সুবিধা হলো অনেক ক্ষেত্রে বিকল্পের দরকার হলে ফর্মে থাকা এদের মধ্য থেকেই বেছে নেওয়া যায়।’
সে রকম কোনো পরিস্থিতিতেও কারো কারো জন্য খুলে যেতে পারে বিশ্বকাপের দরজা। ২০১৫ বিশ্বকাপে এনামুলের ইনজুরিতেই যেমন উড়ে গিয়েছিলেন ইমরুল কায়েস। নিউজিল্যান্ডের নেলসনে স্কটল্যান্ড ম্যাচে ফিল্ডিংয়ের সময় কাঁধে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে ছিটকে পড়া এনামুলের অবশ্য এরপর জাতীয় দলে আবার জায়গা পেতে পেতে পেরিয়ে গেছে প্রায় তিন বছর। গত বছরের জানুয়ারিতে ঢাকা ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের চার ম্যাচে ৫৫ রান করা এনামুল তবু দ্বিতীয় সুযোগ পেয়েছিলেন জুলাই-আগস্টের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। সেখানেও তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে তাঁর রান—০, ২৩ ও ১০! যথেষ্ট সেই সুযোগেও পারফরম করতে না পারা এনামুলের টানা তিন সেঞ্চুরি যদি তাঁকে আবার বিবেচনার টেবিলেও অন্তত ওঠাতে পারে, তাও বা কম কী!


এক সপ্তাহ আগে ক্রাইস্টচার্চের এই এলাকায় মসজিদে জুমার নামাজে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছিল। গতকাল সেখানে মুসল্লিদের প্রতীকী সুরক্ষা হিসেবে জড়ো হয়েছিল নিউজিল্যান্ডের নানা ধর্মের মানুষ। এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্নও। 
ক্রাইস্টচার্চে হামলার এক সপ্তাহ পূর্ণ হলো গতকাল শুক্রবার। এই সাত দিনে নিউজিল্যান্ড থেকে শোকের ছায়া হয়তো পুরোপুরি মুছে যায়নি, কিন্তু মানুষে মানুষে বন্ধনটা সেখানে আরো সুদৃঢ় হয়েছে। যে বর্ণবিদ্বেষ ছড়ানোর লক্ষ্যে হামলাটি হয়েছিল, গত এক সপ্তাহে সেই বিদ্বেষ উল্টো বিলীন হয়েছে। ধর্ম-বর্ণ ভুলে সেখানকার মানুষ নিজেদের ক্রমাগত আবিষ্কার করছে শুধুই মানুষ হিসেবে।
এদিকে হামলায় নিহত পাঁচ বাংলাদেশির জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। তাঁদের মধ্যে দুজনের দাফনও হয়েছে সেখানে। বাকি তিনজনের লাশ দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে।
গত শুক্রবার উগ্র বর্ণবিদ্বেষী ব্রেন্টন টারান্টের বন্দুকের গুলিতে রক্তাক্ত হওয়া আল-নুর মসজিদ এখনো মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত হয়নি। তাই গতকাল জুমার নামাজ হয় ওই মসজিদের পাশে; হ্যাগলি পার্কের খোলা মাঠে। তবে এবারের দৃশ্য ছিল অন্যান্য শুক্রবারের চেয়ে আলাদা। শুধু মুসলমান নয়; গতকাল সেখানে মুসল্লিদের প্রতীকী সুরক্ষা হিসেবে জড়ো হয়েছিল নিউজিল্যান্ডের নানা ধর্মের, নানা বয়সের, নানা বর্ণের মানুষ। বাদ ছিলেন না খোদ প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্নও। টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় আজান। দুই মিনিট নীরবতা পালন করা হয় নিহতদের স্মরণে।
জুমার নামাজের পর স্থানীয় মাউরি জনগোষ্ঠীর তিন সদস্যের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একাত্মতা প্রকাশ করেন আহমেদ খান নামের এক ব্যক্তি। তিনি বহু পথ পাড়ি দিয়ে অকল্যান্ড থেকে ক্রাইস্টচার্চে এসেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি অভিভূত। আমরা যখন নামাজ আদায় করছিলাম, তখন নিউজিল্যান্ডের হাজার হাজার মানুষ আমাদের পেছনে দাঁড়িয়ে ছিল। আমার কাছে মনে হয় না যে আমরা আলাদা কেউ।’ তিনি আরো বলেন, ‘৫০ জনের মৃত্যু মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু ওই হামলার পর এখনকার সব ধর্মের, সব বর্ণের মানুষ নিজেদের একটি সম্প্রদায় হিসেবেই আবিষ্কার করেছে।’
নামাজের সময় মুসল্লিদের পেছনে যারা দাঁড়িয়ে ছিল, তাদের অনেকের হাতেই প্ল্যাকার্ড ছিল। একটি প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘আমরা মুসলমান ভাইদের পাশে আছি।’ জন ডেল নামের এক ব্যক্তি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের মানুষ ঐকবদ্ধ এবং কেউ তাতে ফাটল ধরাতে পারবে না। আমরা সব সময় একে অন্যের পাশে দাঁড়াব, তা সে মুসলমান, খ্রিস্টান যে ধর্মেরই হোক না কেন।’
হ্যাগলি পার্কে গতকাল অমুসলিম নারীরাও হিজাব পরেছিল। কাপড় ছিল প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডার মাথায়ও। তিনি মুসলমানদের উদ্দেশে বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের মানুষ আপনাদের ব্যথায় ব্যথিত। কারণ আমরা-আপনারা সবাই এক।’ মহানবীর উদ্ধৃতি দিয়ে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সহানুভূতি কিংবা সমবেদনা একটি দেহের মতো; দেহের কোনো অংশে আঘাত লাগলে পুরো দেহই ব্যথা অনুভব করে।’
আল-নুর মসজিদের ইমাম গামাল ফউদা বলেন, ‘এখানে হামলা চালিয়ে বন্দুকধারী বিশ্বের কোটি মানুষের হূদয় ভেঙেছে। আজ সেই একই জায়গা ভরে উঠেছে সমবেদনা আর ভালোবাসায়।’ তিনি বলেন, ‘আমরা বেঁচে আছি এবং একসঙ্গে আছি। কেউ আমাদের আলাদা করতে পারবে না।’
জন ক্লার্ক নামের এক পর্যবেক্ষক বলেন, ‘ক্রাইস্টচার্চের হামলা এবং আজকের এই জনসমাগম মানুষকে কিছু বিষয়ে নতুন করে ভাবাবে। আমরা সাধারণত নিজেদের আলাদা আলাদা সম্প্রদায়ের অংশ হিসেবে দেখতে পছন্দ করি। কিন্তু এই দৃষ্টিভঙ্গির মধ্যে যে একটা অন্ধকার দিক আছে, তা এবার অনেকেই উপলব্ধি করতে পেরেছেন।’
এদিকে ক্রাইস্টচার্চ থেকে বাংলাদেশের অনারারি কনসাল শফিকুর রহমান অণু জানিয়েছেন, গতকাল পাঁচ বাংলাদেশির জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। দুজনের পরিবার (বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ড. আবদুস সামাদ ও সিলেটের হোসনে আরা পারভিন) নিউজিল্যান্ডে তাঁদের মরদেহ দাফন করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল। তাঁদের নিউজিল্যান্ডেই কবর দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ‘বাকি তিনজনের (নারায়ণগঞ্জের ওমর ফারুক, চাঁদপুরের মোজাম্মেল হক ও নরসিংদীর জাকারিয়া ভুঁইয়া) পরিবার মরদেহ বাংলাদেশে নেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। এ কারণে মরদেহগুলো হিমঘরে রাখা হয়েছে।’
ওই তিনজনের মরদেহ কবে নাগাদ বাংলাদেশে পৌঁছতে পারে জানতে চাইলে অনারারি কনসাল জানান, এটি নির্ভর করছে তাঁদের স্বজনরা মরদেহ কবে নেবে তার ওপর। কিছু আনুষ্ঠানিকতাও আছে।


মঞ্চে আলোচিত সৈয়দ জামিল আহমেদ নির্দেশিত নাটক ‘জীবন ও রাজনৈতিক বাস্তবতা’। শহীদুল জহিরের উপন্যাস অবলম্বনে নাটকটি ইতিমধ্যে বেশ সাড়া জাগিয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ নাট্যোৎসবের মধ্য দিয়ে সাত দিনব্যাপী নাটকটির প্রদর্শনী হয়। এবার ঘোষণা এল, আরও তিন দিন প্রদর্শিত হবে নাটকটি।
‘স্পর্ধা’র ব্যানারে নাটকটি মঞ্চে এসেছে। এবার তারা নাটকটি প্রদর্শনী করবে কথাসাহিত্যিক শহীদুল জহিরের মৃত্যুবার্ষিকীকে কেন্দ্র করে। ২৩ মার্চ এই সাহিত্যিকের মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা জানিয়ে থাকছে নাটকটির একটি প্রদর্শনী। পরদিন ২৪ মার্চ থাকবে আরও একটি প্রদর্শনী। এরপর ২৫ মার্চ দুটি প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে শেষ হবে এই নাটকের মঞ্চায়ন।
‘স্পর্ধা’ সূত্র জানিয়েছে, যাঁরা এখনো নাটকটি দেখতে পারেননি, তাঁদের আবার দেখার সুযোগ এল। আগের সময়েই এই তিন দিন নাটকটি দেখা যাবে। অনলাইনে টিকিট কাটার সুযোগও থাকবে আগের মতো

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget