Latest Post


ঘড়ির কাঁটায় তখন প্রায় ভোর চারটে। সানি লিওনির বাড়িতে আচমকাই হাজির হলেন গায়ক মিকা সিং। কেন? সে কথা ফাঁস করেছেন গায়ক নিজেই। একই সঙ্গে তাঁর আর্জি, ‘আমায় ভুল ভাববেন না…’।

ঘটনাটি ঘটেছিল বেশ কিছু বছর আগে। তবে সানির মুম্বইয়ের বাড়িতে নয়, কপিল শর্মার শো’য়ে এসে মিকা জানিয়েছেন সানির লস অ্যাঞ্জেলসের বাড়িতেই ভোর চারটের সময় হাজির হয়েছিলেন তিনি। তাঁর কথায়, “অত দেরিতে পৌঁছেছিলাম কারণ আমার দেরি হয়ে গিয়েছিল। কেউ কিন্তু খারাপ কিছু ভেবো না। অন্য ভাবে নিয়ো না”। অত সকালে গায়ককে আসতে দেখে কী করেছিলেন সানি? মিকা জানিয়েছেন, সানি তো বিরক্ত হনইনি। বরং সাদরে অভ্যর্থনা জানিয়েছিলেন তাঁকে।

কপিলের অতিথি হয়ে এসেছিলেন সানি ও মিকা। সেখানেই সঞ্চালকের সঙ্গে খুনসুটিতে মেতে ওঠেন তাঁরা কপিল সানির কাছে অনুযোগ করেন, বেশ কিছু ধরেই নাকি সানির সঙ্গে তাঁর দেখা হচ্ছে না। পাল্টা সানি বলেন, “হ্যাঁ, তুমি তো আমায় ফোন করোনা না। হাই বলো না। কপিলও ছাড়ার পাত্র নন। কমেডি কিংয়ের জবাব, “তোমার ফোন নম্বরের অপেক্ষা করতে করতেই আমার বিয়ে হয়ে গেল”।

দিন কয়েক আগেই বিতর্কে জড়িয়েছিলেন সানি। ঘটনার সূত্রপাত একটি গান নিয়ে। গানটির নাম মধুবন মে রাধিকা নাচে রে। ১৯৬০ সালে মহম্মদ রফির কন্ঠে গাওয়া এই গানের একটি রিমেক ভার্সন বের হয় সম্প্রতি। রিমেক ভার্সনের ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে সানি লিওনিকে। রিমেক গানটি গেয়েছেন কনিকা কাপুর ও অরিন্দম চক্রবর্তী। নির্মাতা ও গায়ক শারিব ও তোশী। নাচটিতে সানির পোশাক থেকে শুরু করে, গায়কী নিয়েই আপত্তি জানায় নেটিজেনদের একটা বড় অংশ। আপত্তি উঠে আসে উত্তরপ্রদেশের মথুরার পুরোহিতদের তরফেও। তাঁদের অভিযোগ রাধাকে নিয়ে এমন গান আদপে হিন্দুধর্মের ভাবাবেগে আঘাত। ঘটনা প্রসঙ্গে মুখ খোলেন মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্রও। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ক্ষুব্ধ মন্ত্রী বলেন, “বিধর্মীরা হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত হানছে। আমি সানি লিওনি, শারিব ও তোশীজিকে পরিষ্কার করে বলে দিচ্ছি, যদি তিনি দিনের মধ্যে গানটি না মুছে তাঁরা ক্ষমা না চান তাহলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

অন্যদিকে চাপের মুখ খোলে গানটির প্রযোজনা সংস্থা সারেগামাও। একটি বিবৃতিতে তাঁরা জানান, গানের লিরিক্সের বদল করে করে নতুন গান নিয়ে আসবেন তাঁরা। আরও দাবি করেন, আগামী তিন দিনের মধ্যেই যাবতীয় প্ল্যাটফর্ম থেকে সানির মধুবন মুছে ফেলবেন তাঁরা।



‘নরকের দরোজা’ নামে পরিচিত মরুভূমিতে থাকা বিশাল একটি অগ্নিকুণ্ডকে নিভিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মধ্য এশিয়ার দেশ তুর্কমেনিস্তান। বিশ্বের অসংখ্য পর্যটক আকর্ষণকারী প্রাকৃতিক এ আগুনের গর্তটি আর হাতছানি দেবে না পর্যটকদের।

 

রহস্যময় এ অগ্নিকুণ্ডটি বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। পরিবেশগত ও স্বাস্থ্যগত কারণে এবং একইসাথে গ্যাস রফতানি বাড়ানোর জন্যই এটি বন্ধ করে দিতে চান প্রেসিডেন্ট গুরবাঙ্গুলী বার্দিমুহামেদা।

 

আগুনের এ গর্তটি মূলত একটি জমে থাকা গ্যাসের গর্ত। কয়েক দশক ধরে এটি জ্বলছে। ভয়ানক এ প্রজ্জ্বলিত আগুনের গর্ত দেখতে অনেকেই ছুটে যান নানা দেশ থেকে।কারাকুম মরুভূমিতে ‘দারভাজা’ নামের এই গর্তটিকে ঘিরে রয়েছে নানা রহস্য।

 

অনেকে বিশ্বাস করেন যে, ১৯৭১ সালে সোভিয়েত সামরিক মহড়ার সময় কোনো ভুল পদক্ষেপের কারণে এ আগুনের গর্ত তৈরি হয়। কিন্তু কানাডার অভিযাত্রী জর্জ কাউরুনিস ২০১৩ সালে গর্তের গভীরতা পরীক্ষা করে বলেছিলেন যে, এটি কিভাবে শুরু হয়েছিল তা আসলে কেউ জানে না।

স্থানীয় ভূ-তাত্ত্বিকদের মতে, বিশাল গর্তটি ১৯৬০-এর দশকে তৈরি হয়েছিল কিন্তু শুধুমাত্র ১৯৮০-এর দশকে এটির ভেতরে আগুন জ্বলে ওঠে। অগ্নিকুণ্ডটি তুর্কমেনিস্তানের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন আকর্ষণ কেন্দ্র।

দেশটির প্রেসিডেন্ট এক টেলিভিশন ভাষণে বলেন, ‘আমরা মূল্যবান প্রাকৃতিক সম্পদ হারাচ্ছি যার মাধ্যমে আমরা উল্লেখযোগ্য মুনাফা পেতে পারি এবং আমাদের জনগণের কল্যাণে সেসব ব্যবহার করতে পারি।’

কর্মকর্তাদের ‘আগুন নেভাতে একটি সমাধান খুঁজে বের করার’ নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এর আগেও আগুন নেভানোর জন্য অসংখ্যবার চেষ্টা করা হয়েছে। দশকের পরে দশক ধরে জ্বলছে এই অগ্নিকুণ্ডটি।

২০১০ সালেও প্রেসিডেন্ট বার্দিমুহামেদা বিশেষজ্ঞদের আগুন নেভানোর জন্য একটি উপায় খুঁজে বের করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। ২০১৮ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে এর ‘শাইনিং অব কারাকুম’ নামকরণ করেন তিনি।


করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকলেও এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা ভাবছে না সরকার।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘এ মুহূর্তে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হচ্ছে না। যেভাবে সীমিত পরিসরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠাগুলো চলছিল, ঠিক সেভাবেই চলবে।’

সোমবার করোনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি সরকারের এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এখন শিক্ষার্থীদের বড় একটা অংশ টিকা নিয়েছে এবং চলতি মাসের মধ্যে অন্তত এক ডোজ টিকার আওতায় সবাই চলে আসবে। সেই পরিস্থিতিতে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, এখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করব না।’

শিক্ষামন্ত্রী তথ্য দেন, দেশে মোট শিক্ষার্থীর ৪৪ লাখকে করোনার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। ৩১ জানুয়ারির মধ্যেই সব শিক্ষার্থীর টিকার প্রথম ডোজ সম্পন্ন করব। টিকা নিতে না পারা শিক্ষার্থীরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আসবে না। তারা বাসায় অনলাইনে ও টিভিতে ক্লাস করবে আর অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেবে। যাদের টিকা নেওয়া সম্পন্ন হয়েছে, তারাই ক্লাসে আসবে। 

 

করোনাকালে এর আগে দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সময় আমাদের সংক্রমণের হার ৭ শতাংশের কাছাকাছি ছিল। নতুন করে সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় এখন আবার সেটি ৭ শতাংশে পৌঁছেছে। তবে তখনকার তুলনায় এখন পরিস্থিতি অনেক ভালো। কারণ তখন কোনো শিক্ষার্থী টিকা নেয়নি। আমরা এখন যতটুকু মনিটরিং করতে পারছি, তাতে আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মানার কাজ চলছে। সেটিকে আরও বেশি কঠোরভাবে মনিটরিং করা হবে। এর আগে শুধু স্কুলগুলোতে মনিটরিং করা হতো। এখন বিশ্ববিদ্যালয়সহ বাকি সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও মনিটরিংয়ের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

শিক্ষামন্ত্রীর ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব আবুবকর ছিদ্দীক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক প্রমুখ।


মা হতে চলেছেন ঢালিউডের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি। সোমবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে গণমাধ্যমকে এ তথ্য তিনি নিজেই জানিয়েছেন। অনাগত সন্তানের বাবা হিসেবে অভিনেতা শরীফুল রাজের নাম জানা গেছে।

পরীমনি জানান, পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ছবি ‘গুণীন’ সিনেমার সেটে তারা প্রেমে পড়েন। তিনদিন আগে পরিচালককে মিষ্টি খাইয়ে বিয়ের খবর জানান পরীমনি। গিয়াস উদ্দিন সেলিমও এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আজ দুপুরে রাজের ফেসবুক আইডি থেকে পরীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রাজ নিজেই। জানা গেছে, দেড় বছর কাজ করবেন না পরী।


২০১৫ সালে ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় পরীমনির। ২০১৬ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি এক সাংবাদিকের সঙ্গে পরীমনির প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়।


২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়। কিন্তু করোনার মাঝে পরীমনিকে ৩ টাকার কাবিনে বিয়ে করেন নির্মাতা কামরুজ্জামান রনি। তবে সেই সংসার বেশিদিন টেকেনি।


ঢাকা বোট ক্লাবে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগকে কেন্দ্রে করে গত বছর প্রথম আলোচনায় নাম আসে পরীমনির। এ ঘটনায় ওই বছরের ১৪ জুন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমির নাম উল্লেখ করে এবং চারজনকে অজ্ঞাত আসামি করে সাভার থানায় মামলা করেন পরীমনি। এ মামলায় নাসির ও অমিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।


এর দুই মাস যেতে না যেতেই মাদক মামলায় খোদ পরীমনিকেই আটক করে র‌্যাব। বর্তমানে জামিনে আছেন ঢাকাই ছবির এই নায়িকা।



দুই বাংলার জনপ্রিয় মুখ নুসরাত ফারিয়ার আকর্ষণীয় ফিগার ও সৌন্দর্য সচেতনতায় জুড়ি নেই। নিয়মিত জিমে গিয়ে শরীরচর্চা করেন। প্রায়ই জিমে নিজের শরীরচর্চার বিভিন্ন ভিডিও ক্লিপস ভক্তদের জন্য প্রকাশ করেন তিনি।

সম্প্রতি রাজধানীর একটি পিলাটিস সেন্টারে গিয়ে বিশেষ ধরনের ব্যায়ামের সরঞ্জামাদি দিয়ে ব্যায়াম করতে গিয়েই গিয়ে হাতের কবজিতে আঘাত পেয়ে মচকে গেল তার হাত।

ফারিয়া বলেন, সব সময় তো জিমে গিয়ে ওয়ার্ক আউট করাই হয়। দুই-তিন দিন আগে পিলাটিস করতে গিয়ে হাত মচকে ফেলেছি। হাতে প্লাস্টার না করলে ব্যান্ডেজ করে দেওয়া হয়েছে। বেশ কিছুদিন বিশ্রামে থাকতে হবে। এক সপ্তাহ পর ব্যান্ডেজ খোলা হবে।

সম্প্রতি ‘মহানগর’খ্যাত নির্মাতা পারভেজ আমিনের প্রথম ওয়েব ফিল্ম ‘পর্দার আড়ালে’-তে যুক্ত হন নুসরাত ফারিয়া। এটির শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল ১৮ জানুয়ারি। কিন্তু শুটিংয়ে আপাতত অংশগ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে তার।ফারিয়া বললেন, আমার মনে হচ্ছে কয়েকটা দিন পেছাতে হতে পারে শুটিং। কারণ হাত না ভাঙলে চোটটি খুব একটা হালকা নয়, ব্যান্ডেজ খোলার পরই আসলে বলা যাবে।

চলচ্চিত্রটিতে নুসরাত ফারিয়ার বিপরীতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন ইয়াশ রোহান। চলচ্চিত্রটিতে নুসরাত ফারিয়ার চরিত্র একজন সুপারস্টার অভিনেত্রীর।চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছে বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া।


করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, আমরা চেষ্টা করছি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সুরক্ষিত রেখে সংক্রমণ কীভাবে এড়াতে পারি। যারা বলছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে বা হয়ে যাচ্ছে, তারা গুজব ছড়াচ্ছেন। সব সময়ই এমন গুজব ছড়ানো হয়। আপনারা গুজবে কান দেবেন না।

আজ রবিবার (৯ জানুয়ারি) সাভারের আশুলিয়ায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির নবম সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। এসময় করোনা পরিস্থিতিতে করণীয় নিয়ে আজ বিকেলে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বৈঠক রয়েছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আজ কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে আমাদের মিটিং রয়েছে। শিক্ষার্থীদের করোনার টিকাদান কার্যক্রম জোরেশোরে চলছে। সবাইকে টিকার আওতায় নিয়ে এসে কিভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখা যায়, সে চেষ্টাই করছি আমরা। তবে, এটাও ঠিক, যদি মনে হয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখলে সংক্রমণ বাড়বে, তখন আমরা বন্ধ করে দেবো হয়তো।

শিক্ষার্থীরা স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে ফিরে যাক এই আশা ব্যক্ত করে শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতেই হয়, তখন আমরা ঘোষণা দিয়ে বন্ধ করে দেবো। কিন্তু যতক্ষণ সে প্রয়োজন অনুভব না হবে, আমরা বন্ধ করব না। আমরা চাই শিক্ষার্থীরা স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে ফিরে যাক।



প্রায় তিন বছর জেল খাটার পর মুক্তি পেয়েছেন সৌদি আরবের রাজকুমারী বাসমা বিনতে সৌদ ও তার মেয়ে সুহৌদ। কেন তাকে বন্দি করা হয়েছিল তা জানানো হয়নি, এমনকি রাজকুমারী বাসমা ও তার মেয়ে সুহৌদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগও আনা হয়নি।

২০১৯ সালের মার্চে চিকিৎসার জন্য সুইজারল্যান্ডে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সৌদি রাজকুমারী। তখন তাকে আটক করা হয়।

রাজকুমারী বাসমাকে ২০১৬ সাল থেকে দেশটির সংবিধান সংশোধনের পক্ষে জোরালো অবস্থান নিতে দেখা যায়। বিভিন্ন সময় তিনি সরকারের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের খোলামেলা সমালোচনাও করেছেন।

মানবাধিকার ইস্যু এবং সংবিধান সংস্কারের পক্ষে তার জোরালো অবস্থানের সঙ্গে এই বন্দিত্বের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে অনেকে মনে করেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাসমার পরিবার ২০২০ সালে জাতিসংঘকে এক লিখিত বিবৃতিতে জানিয়েছিল, বিভিন্ন অনিয়মের সমালোচনার কারণে তাকে কারাবন্দি করা হয়ে থাকতে পারে।

এছাড়া সাবেক ক্রাউন প্রিন্স মোহামেদ বিন নায়েফ, যাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে বলে ধারণা করা হয়, তার সঙ্গে প্রিন্সেস বাসমার ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কারণেও তিনি সরকারের রোষানলে পড়েছেন বলে অনেকে মনে করেন।

২০২১ সালের এপ্রিলে, ৫৭ বছর বয়সী প্রিন্সেস বাসমা সৌদি বাদশাহ সালমান এবং ক্রাউন প্রিন্স মোহামেদ বিন সালমানের কাছে নিজের মুক্তি চেয়ে আবেদন করেন। আর্জিতে তিনি লেখেন, তিনি অন্যায় কিছু করেননি এবং তার শরীর খুবই খারাপ।

তবে, ২০১৯ সালে কী ধরনের শারীরিক সমস্যার চিকিৎসা করাতে তিনি বিদেশে যেতে চেয়েছিলেন তা জানা যায়নি।

মানবাধিকার সংস্থা এএলকিউএসটি টুইটারে তার মুক্তির খবর দিয়ে লিখেছে, রাজধানী রিয়াদের বাইরে আল-হাইর কারাগারে যখন ছিলেন তখন তাকে প্রাণ সংশয়ে থাকা অবস্থাতেও চিকিৎসা দেওয়া হয়নি।

সৌদি আরবভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থাটি আরও লিখেছে, বন্দি থাকা অবস্থায় তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ গঠন করা হয়নি।

বাদশাহ সৌদ, যিনি ১৯৫৩ সাল থেকে ১৯৬৪ সাল পর্যন্ত সৌদি আরবের শাসক ছিলেন, তার কনিষ্ঠ কন্যা রাজকুমারী বাসমা।


শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। এখন নায়িকা হিসেবে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন। দেখতে দেখতে ছোট্ট দীঘি এখন ব্রাইডাল সিজনে বউও সাজেন নিয়মিত। দেশের বড় বড় পত্রিকায় সেসব ছবি ছাপাও হচ্ছে। কথা প্রসঙ্গে দীঘি জানালেন মজার তথ্য, এবারের ব্রাইডাল সিজনে তিনি পর পর আটবার বউ সেজেছেন। মেকওভারের দায়িত্বে ছিলেন দেশের নামকরা সব মেকআপ শিল্পী।

দীঘি বলেন, ‘প্রথমবার বউ সেজেছিলাম গত বছরের এপ্রিলে। সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করার পর দারুণ সাড়া পাই। মূলত তার পর থেকেই একের পর এক বউ সাজার প্রস্তাব পাই বিভিন্ন বিউটি পার্লার ও পত্রিকা থেকে।’


দীঘি আরো বলেন, ‘একজন মেয়ের বউ সাজতে ভালো লাগবে এটাই স্বাভাবিক। হাতে মেহেদি, গায়ে ভারী ভারী সব গয়না, জামদানি শাড়ি—আমার তো খুশিতে মন ভরে যায়। মাঝেমধ্যে হেসে উঠি, সত্যিকারের বউ হওয়ার আগেই অনেক অভিজ্ঞতা হয়ে গেল।’ তবে সত্যিকারের বউ হতে আরো কয়েক বছর সময় নেবেন বলে জানান তিনি। বলেন, ‘জীবনের এই কঠিন সিদ্ধান্তটা একটু চিন্তাভাবনা করেই নিতে চাই। হুট করে কোনো কিছু করে ফেলার পাত্রী আমি নই।’

দীঘি এই মাসের শেষ সপ্তাহে আব্দুস সামাদ খোকনের ‘শ্রাবণ জ্যোৎস্নায়’ ছবির শুটিংয়ে যোগ দেবেন। হাতে আছে আরো একটি ছবি—‘মুজিব ভাই’।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন জনপ্রিয় গায়ক অরিজিৎ সিং। পাশাপাশি তার স্ত্রীও কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজেই করোনাভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছেন অরিজিৎ। এই গায়ক-সুরকার লিখেছেন, ‘আমি এবং আমার স্ত্রী কোভিড পজিটিভ। আমরা একদম ঠিক আছি এবং নিজেদের কোয়ারেন্টাইনে রেখেছি।’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মৃদু উপসর্গ ছাড়া এমনিতে ভালোই আছেন অরিজিৎ। এদিকে এই সংগীতশিল্পীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশের পর থেকেই  ভক্তরা তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করছেন।

ভারতের করোনার তৃতীয় ঢেউ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এরই মধ্যে বলিউড ও ভারতীয় বাংলা সিনেমার বেশ কয়েকজন তারকা অভিনয়শিল্পী মরণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তাদের প্রত্যেকেই ঝুঁকিমুক্ত রয়েছেন।


করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে গতবছর অনলাইন মাধ্যমে চালু হয়েছিল “ফ্লিম অ্যান্ড ফ্রেমস ডিজিটাল অ্যাওয়ার্ড শো”। নীল রায় এবং তন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিচালনায় সম্প্রচার শুরু হওয়া এই ডিজিটাল অ্যাওয়ার্ড শোতে রয়েছে বিভিন্ন পপুলার ক্যাটাগরি। সেখানে ভক্তরা নিজেদের পছন্দের তারকাদের অনলাইনে ভোট দিতে পারবেন। আর বাংলা ইন্ডাস্ট্রির এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের গ্র্যান্ড লঞ্চের একটি ঝলক উঠে এলো অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জীর ইনস্টাগ্রাম পেজে।

নায়িকা হিসেবে শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী বরাবরই বেশ হাসিখুশি,মিষ্টি এবং ক্যান্ডিড স্বভাবের। টলিউডের মিষ্টি স্বভাবের এই অভিনেত্রী অনুষ্ঠানের ক্যান্ডিড প্রশ্নোত্তর পর্বে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এর কাছে ফাঁস করলেন জীবনের বহু সুপ্ত ইচ্ছে। আর শ্রাবন্তীর ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা সেই ভিডিও এদিন নেটমাধ্যমে হল ভাইরাল। এদিন শ্রাবন্তী কেমন শাশুড়ি হবেন এই প্রশ্ন পরমব্রত নায়িকার উদ্দেশ্যে রাখলে তিনি জানান ঝিনুকের বিয়ের পরেও তিনি হট প্যান্ট পরিহিত বোল্ড স্বভাবের শাশুড়ি হবেন।

চনমনে বোল্ড লুকে থাকা শাশুড়ির সেগমেন্ট নায়িকার ভীষণ পছন্দের। এছাড়াও নিজের প্রিয় খাবার হিসেবে ভাত এবং খাসির মাংস থেকে শুরু করে প্রিয় মানুষ হিসেবে নিজের ছেলে ও তিনপোষ্য এবং বাবা-মার কথা উল্লেখ করেন অভিনেত্রী।

 

জালিয়াত ব্যবসায়ী সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে তাঁর ছবি নিয়ে উত্তাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। বিতর্ক এবং কুৎসা থামাতে তাই এবার বিবৃতি দিলেন স্বয়ং অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ। ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে আজ একটি বিবৃতি প্রকাশ করেন জ্যাকলিন। তিনি লেখেন, ‘এই দেশ এবং তার মানুষ বরাবর আমায় ভালবাসা এবং সমর্থন দিয়েছেন। এর মধ্যে আছে মিডিয়ার মানুষও যাদের থেকে আমি অনেক কিছু শিখেছি। বর্তমানে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি, আমি নিশ্চিত বন্ধু এবং ভক্তরা আমার পাশে থাকবেন।’

এর পরে জ্যাকলিন আরও লেখেন, ‘এই বিশ্বাস নিয়েই আমি আমার মিডিয়া বন্ধুদের অনুরোধ করছি, আমার গোপনীয়তা এবং ব্যক্তিগত পরিসরে অনুপ্রবেশ করে এমন ছবি ছড়াবেন না। ভালবাসার মানুষের সঙ্গে এমনটা নিশ্চয়ই করবেন না, আমি নিশ্চিত আমার সঙ্গেও করবেন না। ন্যায় এবং সুস্থ বুদ্ধি বজায় থাকুক। ধন্যবাদ।’ তবে ইনস্টাগ্রামে এই বিবৃতি দিয়ে কমেন্ট সেকশন ‘অফ’ করে রেখেছেন শ্রীলঙ্কান অভিনেত্রী। অর্থাৎ তাঁর এই পোস্টে কেউ কোনও মন্তব্য করতে পারবে না। ২০০ কোটি টাকার তছরুপে জড়িত সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে নাম জড়িয়েছে জ্যাকলিনের। তিন বার ইডি-র দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজিরা দিতে হয়েছে তাঁকে। এর মধ্যে চন্দ্রশেখরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবি নিয়ে বিতর্কে উত্তাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। তাই এবার সাফাই দিতে ইনস্টায় পোস্ট।


জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ও অভিনেতা অভিষেক বচ্চন দম্পতির মেয়ে আরাধ্যা। সম্প্রতি তার নাচ ও গানের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বিভিন্ন সময় পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় বন্দি হয়েছেন ঐশ্বরিয়া কন্যা। তবে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওতে প্রথমবারের মতো অরাধ্যার কথা শুনলো নেটিজেনরা। ধারণা করা হচ্ছে, এটি এই স্টারকিডের স্কুলের বড়দিন উদযাপনের ভিডিও।

ভাইরাল ভিডিওটি শেয়ার দিয়ে অনেকেই আরাধ্যর প্রশংসা করেছেন। একজন লিখেছেন, ‘খুবই কিউট। এর আগে থাকে কথা বলতে ও গান গাইতে দেখিনি।’ অপর একজন মন্তব্য করেছেন, ‘সে একদম পরী, শুভ নববর্ষ বাবু।’ অন্য এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘সে খুবই চমৎকার এবং তার মায়ের মতোই সুন্দর। সে খুবই মেধাবী, তার উচ্চারণ খুবই ভালো লেগেছে।’

গত মাসে মেয়ের সঙ্গে বড়দিন উদযাপনের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘সবাইকে বড়দিনের শুভেচ্ছা। অনেক ভালোবাসা। সবার সুখ, সুস্বাস্থ্য এবং আনন্দ কামনা করছি। সৃষ্টিকর্তা মঙ্গল করুক।’

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ১১ নভেম্বর ঐশ্বরিয়ার সন্তানের জন্ম হবে কি না এসব বিষয়ে চলতে থাকে ব্যাপক আলোচনা। এ নিয়ে শত কোটি টাকার বাজিরও আয়োজন করে ফেলে বাজিকররা। অপরদিকে ঐশ্বরিয়া-অভিষেকের সন্তানের জন্মের সময় বচ্চন পরিবারের 'ব্যক্তিগত গোপনীয়তায়' যাতে কোনো ব্যাঘাত না ঘটে, সেজন্য কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। চিকিৎসক, সেবিকা, নিরাপত্তাকর্মী এবং পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের কাজের সময় আট ঘণ্টা থেকে বাড়িয়ে ১২ ঘণ্টা করা হয়। নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয় হাসপাতালে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপরেও।

ভারতের ব্রডকাস্ট এডিটর্স অ্যাসোসিয়েশনও ঐশ্বরিয়ার প্রথম সন্তান জন্ম দেওয়ার খবর প্রকাশের ক্ষেত্রে ১০ দফা নির্দেশনা জারি করে। সন্তান প্রসব নিয়ে আগাম সংবাদ প্রকাশ, ব্রেকিং নিউজ, টিকার, জ্যোতিষশাস্ত্র অনুযায়ী নবজাতকের ভাগ্য গণনার মতো বিষয় প্রকাশ ও প্রচার থেকে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোকে বিরত থাকতে বলা হয় এতে। অবশেষে সব জল্পনা শেষে ২০১১ সালের নভেম্বর ১৬ তারিখে কন্যা সন্তান জন্মের খবর প্রকাশ্যে আনে বচ্চন পরিবারের বধূ বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই।


মা হওয়ার খবর সামাজিক যোগাযোগের ইন্টারনেট মাধ্যম টুইটারে প্রকাশ করেন তার শ্বশুর অমিতাভ বচ্চন। তিনি লেখেন, তিনি ফুটফুটে একটি মেয়ের দাদা হয়েছেন। সেই টুইটে সবাইকে ধন্যবাদ জানাতেও ভোলেননি 'বিগ বি'। ছেলে অভিষেক বচ্চনও টুইটারে জানান তার মেয়ে হয়েছে।

ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের পরবর্তী সিনেমা ‘পোন্নিইন সেলবান’। এটি পরিচালনা করছেন মনি রত্নম। ঐশ্বরিয়া ছাড়াও সিনেমাটিতে চিয়ান বিক্রম, কার্তি, জায়াম রবি, অথর্ব্য মুরালি, নাসের, আর পার্থিবন, শরৎকুমার, কীর্তি সুরেশ, অমলা পাল এবং রাশি খান্না অভিনয় করছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget