Latest Post

 কৃষি বীজ ব্যাংকের  উদ্বোধন


Inauguration of Agricultural Seed Bank



ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে কৃষিই সমৃদ্ধি প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে কৃষি ইউনিয়ন বীজ ব্যাংকের উদ্বোধন করা হয়। 


বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) দুপুরে উপ-সহকারি কৃষি অফিসার সাদেকুল ইসলামের

সঞ্চালনায় উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে বীজ ব্যাংকের উদ্বোধন উপলক্ষে এক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। 


অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সজ্ঞয় দেবনাথ।


রাণীশংকৈল উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে ইউনিয়ন কৃষি বীজ ব্যাংকের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অতিরিক্ত পরিচালক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর দিনাজপুর অঞ্চল কৃষিবিদ প্রদীপ কুমার গুহ।

আরো পড়ুন: যা থাকছে নিপুণের ওয়েব সিরিজ ‘সাবরিনা’য় (ভিডিও)

অনুষ্ঠানে কাশিপুর ইউপি'র সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রউফের সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ প্রদীপ কুমার গুহ,

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন নাঈমুল সরকার অতিরিক্ত উপ-পরিচালক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ঠাকুরগাঁও, উপ-সহকারি কৃষি অফিসার রইসুল আজম পলাশ, কাশিপুর ইউনিয়নের আদর্শ কৃষক ও ইউপি সদস্য আবু সালেহ বাবুল, ধর্মগড় ইউনিয়নের সফল কৃষক নজরুল ইসলাম প্রমুখ।


এছাড়াও শতাধিক উপকারভোগী কৃষক-কৃষাণী কৃষি অফিসের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। 


বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন ইউনিয়ন পর্যায়ে বীজ সংরক্ষণ করার জন্য এবং সময়মত বীজ স্বল্পদামে কৃষকেরা যেন পেয়ে  থাকে এজন্য উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে বীজ সংরক্ষণ ব্যাংকের উদ্যোগ নেয়া হয়েছ। 

আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

যার ফলে কৃষকেরা নিজের বীজ ব্যাংকে রাখতে পারবেন ও সময় করে নিজের বীজের চাহিদা পূরণ শেষে সেইবীজ বিক্রি করে লাভবানও হবেন। 


বীজ সংকট মোকাবেলা সেইসাথে  কৃষকদের অনুপ্রাণিত ও লাভবান করতেই কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথের এই ব্যতিক্রম উদ্যোগ কে সকলে সাধুবাদ জানান। 


অনুষ্ঠান শেষে কৃষকদেরর মাঝে উন্নত জাতের বিভিন্ন আউস ধানের  বীজ বিতরণ করা হয়।


আরো পড়ুন:


 দ্রুতই ফিরিয়ে আনা হবে হাদিসুরের মরদেহ

Hadisur's body will be brought back soon



ইউক্রেনে জাহাজে আটকেপড়া ২৮ নাবিক দেশে ফিরেছেন। বুধবার দুপুর ১২টায় তাদের বহনকারী টার্কিশ এয়ারলাইন্সের টিকে-৭২২ ফ্লাইটটি রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে। 


রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্ট থেকে নাবিকদের ফ্লাইটটি ইস্তাম্বুল-দুবাই হয়ে বুধবার ঢাকা অবতরণ করে। তাদের জন্য বাইরে অপেক্ষায় ছিলেন পরিবারের সদস্য, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের কর্মকর্তা এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা। শতাধিক সংবাদকর্মীও ছিলেন বিমানবন্দরে।


জাহাজে হামলার ঘটনায় মারা যাওয়া থার্ড ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মাদ হাদিসুর রহমানের লাশ ইউক্রেনের একটি বাংকারের ফ্রিজারে রাখা হয়েছে। সুবিধাজনক সময়ে লাশটি দেশে ফিরিয়ে আনা হবে। 


জীবনশঙ্কা থেকে দেশে ফিরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন ২৮ নাবিক। ঢাকায় বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে গেটের সামনে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের তারা বলেন, এভাবে এত দ্রুতসময়ে দেশে ফিরতে পারব ভাবিনি। দ্রুততম সময়ে সবাইকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান তারা।

আরো পড়ুন: পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ ইউরোপকে সরাসরি হুমকি দিচ্ছে

সহকর্মীদের নিয়ে দেশে ফিরতে পেরে বাংলার সমৃদ্ধি জাহাজের মাস্টার জি এম নূর ই আলম স্বস্তি প্রকাশ করে বলেন, এত দ্রুত সুস্থভাবে সবার ফেরা সম্ভব হবে- সেটা আমরা ভাবতেও পারিনি। দ্রুততম সময়ে সবাইকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করায় সরকারপ্রধান থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।


জাহাজটির মাস্টার নূর ই আলম বলেন, ‘দেশে সুস্থভাবে ফিরতে পেরে অনেক আনন্দিত। প্রধানমন্ত্রীর সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনায় সংশ্লিষ্ট সবার তৎপরতায় নিরাপদে এবং দ্রুততম সময়ে দেশে ফিরতে পেরেছি। আমাদের পরিবার অপেক্ষায় ছিলেন, সবার চেষ্টায় ফিরতে পেরেছি এত অল্প সময়ের মধ্যে।’


রকেট হামলায় সহকর্মী হাদিসুরের মৃত্যু দেখা জাহাজটির মাস্টার আরও বলেন, ‘আমরা আতঙ্কিত ছিলাম। আমাদের সরকার যথেষ্ট পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরা এখানে সুস্থভাবে আসতে পেরেছি, এটাই বড় কথা।'


জাহাজে রকেট হামলা হওয়ার পর বিএসসি, নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সব সময় যোগাযোগ রাখা হয়েছিল জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। ইউক্রেন থেকে যুদ্ধ চলাকালে সেখান থেকে তাদের বের করে আনার জন্য পোল্যান্ড, অস্ট্রিয়া এবং রোমানিয়ায় বাংলাদেশের দূতাবাসের কর্মীরা যে পরিশ্রম করেছেন, সেজন্য তাদেরও ধন্যবাদ জানান মাস্টার।


মাস্টার বলেন, ‌‘সাধারণত আমার সঙ্গে সরকারের উচ্চপর্যায়ের কারো কথা হয় না, কিন্তু জাহাজে হামলার পর বিভিন্ন সময়ে আমাদের সার্বিক অবস্থা জানতে, আমরা কে কেমন আছি এসব জানতে... আমার সঙ্গে সরকারের কর্মকর্তারা কথা বলেছেন, সাহস দিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সব কাজ হয়েছে, সবার প্রতি আমি আসলেই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, এভাবে ফিরতে পারব ভাবি নাই।’


তিনি বলেন, ‘এভাবে ফিরে আসা ছিল অকল্পনীয়। কারণ অনেক বড় বড় দেশ আছে যাদের নাগরিক এখনো দেশে ফিরতে পারেনি। আমাদের ছোট দেশ, কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও ডিপ্লোম্যাটদের (কূটনীতিক) সহযোগিতায় এটি সম্ভব হয়েছে।’


নিজেরা নিরাপদে দেশে ফিরতে পারলেও সহকর্মী হাদিসুর রহমানের লাশ ইউক্রেনে রেখে আসতে হওয়ায় নূর ই আলম দুঃখ প্রকাশ করে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। পাশাপাশি সরকার ও শিপিং করপোরেশনের কাছে তিনি আবেদন জানান, হাদিসুরের লাশ দ্রুত যেন দেশে আনা হয় এবং তার পরিবারকে যেন উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়।


প্রসঙ্গত, তুরস্ক থেকে গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে জলসীমায় নোঙর করে ১৮০ মিটার দৈর্ঘ্যরে বাল্ক ক্যারিয়ার জাহাজ বাংলার সমৃদ্ধি। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে অলভিয়া বন্দরের বাণিজ্যিক কার্যক্রম স্থগিত হয়ে যায়।

আরো পড়ুন: ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী

জাহাজটি ২৯ জন নাবিক ও ক্রু নিয়ে সেখানেই নোঙর করা অবস্থায় আটকা পড়ে। গত ২ মার্চ বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিট ও ইউক্রেন সময় ৫টা ২৫ মিনিটে ‘বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজে রকেট হামলা হয়। এতে জাহাজটিতে আগুন ধরে যায়। শুরুতে নাবিকরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। অলভিয়া বন্দর থেকে একটি টাগবোট এসে আগুন নেভানোর কাজে অংশ নেয়। নাবিকদের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। হামলায় জাহাজের ব্রিজ ধ্বংস হয়ে যায়। মারা যান হাদিসুর রহমান।


জাহাজে আটকে থাকা বাকি ২৮ নাবিক ও ক্রু আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ৩ মার্চ সন্ধ্যায় টাগবোটের সাহায্যে তাদের তীরে আনার পর অলভিয়া এলাকার একটি বাংকারে রাখা হয়। সেখান থেকে ৫ মার্চ সকালে পাশের দেশ মলদোভা হয়ে রোমানিয়ার উদ্দেশে রওনা দেন তারা। ৬ মার্চ সকালে তারা রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্টে পৌঁছান। সেখানে একটি হোটেলে তাদের রাখা হয়। হোটেলে বিশ্রাম শেষে তাদের বাংলাদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।


আরো পড়ুন:

 দ্রুতই ফিরিয়ে আনা হবে হাদিসুরের মরদেহ

Hadisur's body will be brought back soon



ইউক্রেনের ওলভিয়া সমুদ্রবন্দরে হামলার শিকার ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজের নিহত থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহ দ্রুত দেশে ফেরাতে তিনটি মিশন একসঙ্গে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (পূর্ব-ইউরোপ) শিকদার বদিউজ্জামান।


তিনি বলেন, ‘হাদিসুর রহমানের মরদেহ এখনো ইউক্রেনে রয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব আমরা তার মরদেহ দেশে ফেরাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবো। এ বিষয়ে আমরা আন্তরিক। বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে আমাদের তিনটি মিশন একসঙ্গে কাজ করছে।’

বাংলার সমৃদ্ধি জাহাজের ২৮ নাবিক রোমানিয়া থেকে বাংলাদেশে ফেরত আসার পর বুধবার (৯ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিআইপি টার্মিনালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।


শিকদার বদিউজ্জামান বলেন, ‘হাদিসুরের মরদেহ কতদিনের মধ্যে নিয়ে আসা সম্ভব হবে, তা টাইম ফ্রেম বেধে বলা মুশকিল। কারণ আপনারা জানেন ইউক্রেনে যুদ্ধ চলছে। সেখানে কেউ প্রবেশ করতে পারছেন না। তবে তার মরদেহ দেশে আনতে আমাদের আন্তরিকতা শতভাগ।’

আরো পড়ুন: ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী

তিনি বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। কারণ ইউক্রেনে যে যুদ্ধাবস্থা, সেই পরিস্থিতি থেকে বাংলাদেশের একটি সম্পদ বাংলার সমৃদ্ধির নাবিকরা আটকে পড়েছিলেন। তাদের পোল্যান্ড, সোমালিয়া ও অস্ট্রিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের দূতাবাসসহ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় উদ্ধার করে দেশে ফিরিয়ে আনতে পেরেছি।’


হাদিসুরের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রথমে আমরা তার মরদেহ দেশে ফেরানোর ব্যাপারে কাজ করছি, সেটা সম্পন্ন হোক। তারপর ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য যা করণীয়, তা আমরা করবো।’

দেশে ফেরা নাবিকদের বিষয়ে শিকদার বদিউজ্জামান বলেন, ‘২৮ নাবিক পুরোপুরি সুস্থ। তবে তারা ট্রমাটাইজড। তাদের মেডিকেল টেস্টসহ অন্যান্য প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে।’


নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী দেশে ফেরা ২৮ নাবিক হলেন- জি এম নুর ই আলম, মো. মনসুরুল ইসলাম খান, সেলিম মিয়া, রামকৃষ্ণ বিশ্বাস, মো. রোকনুজ্জামান রাজীব, ফারিয়াতুল জান্নাত তুলি, ফয়সাল আহমেদ সেতু, মো. ওমর ফারুক, সৈয়দ আশিফুল ইসলাম, রাজীবুল আউয়াল, সালমান সরওয়ার সামি, ফারজানা ইসলাম মৌ, মো. শেখ সাদী, মো. মাসুদুর রহমান, মো. জামাল হোসাইন, মোহাম্মদ হানিফ, মো. আমিনুর ইসলাম, মো. মোহিন উদ্দিন, হোসাইন মোহাম্মদ রাকিব, সাজ্জাদ ইবনে আলম, নাজমুল উদ্দিন, মো. নজরুল ইসলাম, সারওয়ার হোসাইন, মো. মাসুম বিল্লাহ, মোহাম্মদ হোসাইন, মো. আতিকুর রহমান, মো. শফিকুর রহমান ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন।


এর আগে বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে ২টায় ২৮ নাবিককে নিয়ে দেশের পথে উড়াল দেয় বিমানটি। রাতেই বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করে বাংলাদেশ মার্চেন্ট মেরিন অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন বিএমএমওএ সাধারণ সম্পাদক মেরিন ইঞ্জিনিয়ার মো. সাখাওয়াত হোসাইন জানিয়েছিলেন, মধ্যপ্রাচ্যের একটি দেশে ট্রানজিট হয়ে বুধবার দুপুরে ২৮ নাবিককে বহনকারী ফ্লাইটটি ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে।

আরো পড়ুন: পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ ইউরোপকে সরাসরি হুমকি দিচ্ছে

এদিকে মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ইউক্রেনে রাখা বিধ্বস্ত জাহাজটির থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহও দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে।


বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) মালিকানাধীন জাহাজ ‘বাংলার সমৃদ্ধি’ ডেনিশ কোম্পানি ডেল্টা করপোরেশনের অধীনে ভাড়ায় চলছিল। মুম্বাই থেকে তুরস্ক হয়ে জাহাজটি গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের ওলভিয়া বন্দরে নোঙর করে। ওলভিয়া থেকে সিমেন্ট ক্লে নিয়ে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইতালির রেভেনা বন্দরের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা ছিল জাহাজটির।


এরই মধ্যে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরু হলে ২৯ জন ক্রু নিয়ে ওলভিয়া বন্দরে আটকাপড়ে জাহাজটি। পরবর্তী সময়ে গত ২ মার্চ রকেট হামলায় জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমান নিহত হন। তবে আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সহযোগিতায় অন্য হাদিসুরের মরদেহসহ জীবিত ২৮ জনকে ৩ মার্চ অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়।


গত শনিবার (৫ মার্চ) বাংলাদেশ সময় দুপুরে ইউক্রেনের ওলভিয়া বন্দর সংলগ্ন বাংকার (শেল্টার হাউস) থেকে বেরিয়ে মালদোভার পথে যাত্রা করেন ওই ২৮ নাবিক। সবশেষ গত রোববার (৬ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে তারা ইউক্রেন সীমান্ত পেরিয়ে মালদোভা হয়ে দুপুরের পর রোমানিয়া পৌঁছান।


আরো পড়ুন:

 কঠিন বর্জ্য ও ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনা  বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত 

Meeting on solid waste and e-waste management



পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের ফরিদপুর পরিবেশ অধিদপ্তরের আয়োজনে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিধিমালা বাস্তবায়নে অংশীজনদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ফরিদপুর সার্কিট হাউসে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষের অংশগ্রহনে মতবিনিময় সভায় ফরিদপুর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক এ.এইচ.এম রাসেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত সচিব মো. মনিরুজ্জামান। 

সভায় বক্তারা মত দেন, বর্জ্যরে অব্যবস্থার কারণে আমাদের শিঘ্রই কঠিন সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে, তাই বজ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে এখনি সতর্ক হওয়া দরকার। 

আরো পড়ুন:

 আওয়ামী যুবলীগের প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত


Protest procession and assembly of Awami Juba League was held



নওগাঁর নিয়ামতপুরে আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিএনপি-জামাতচক্রের দেশবিরােধী ষড়যন্ত্র নৈরাজ্য ও অপতৎপরতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার( ৮ মার্চ) বিকালে উপজেলার খড়িবাড়ী বাজারে ৮ নং বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের আয়োজনে এ প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের(ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি মাসুদ রানার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রতনের পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নিতাই চন্দ্র দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক সোনাতন টুডু।

আরো পড়ুন: যা থাকছে নিপুণের ওয়েব সিরিজ ‘সাবরিনা’য় (ভিডিও)

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বাহাদুরপুর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ, শেখ রাসেল স্মৃতি সংঘ ও নাকইল গ্রামের শামসুল ইসলাম, সিদ্দিক হোসেন, রমজান, খাইরুল ইসলাম সহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের, যুবলীগ, শ্রমিক লীগের নেতাকর্মীরা।


সমাবেশে বক্তারা বলেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকার কারণে আজকে দেশের জনগণ ভাল আছে। দেশের উন্নয়ন ও জনগণের ভাল থাকাটা অনেকের গায়ের জ্বালা তাই ইস্যুবিহীন আন্দোলন করে যাচ্ছে বিএন‌পি জামায়াত জোট। বিএনপি-জামায়াতের সকল ষড়যন্ত্র জবাব দিতে প্রস্তুত রয়েছে নিয়ামতপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ। বিএনপি-জামায়াত দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।শেখ হা‌সিনার নির্দেশ বাস্তবায়নে আমাদের সকলকে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে।


আরো পড়ুন:


 তুরস্কে রুশ-ইউক্রেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে শান্তি আলোচনা আজ

Russia-Ukraine Foreign Minister-level peace talks in Turkey today



রুশ ও ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা তুরস্কে শান্তি আলোচনায় অংশ নিচ্ছেন বৃহস্পতবার। ইউক্রেনে রুশ হামলার পর এটিই হবে উভয় পক্ষের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ের বৈঠক। এতে অংশগ্রহণ করবেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীও।


দু’দেশের প্রতিনিধিরা ইতোমধ্যে তুরস্কে পৌঁছেছেন। তুরস্কের আনাতোলিয়া শহরে উভয়পক্ষের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িফ এরদোগান রুশ-ইউক্রেন আলোচনায় মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করছেন। তিনি আশা করছেন, আলোচনার মধ্য দিয়ে রক্তক্ষয়ী এ সংকট মোকাবেলা সম্ভব হবে। এছাড়া এটি অস্ত্রবিরতিতেও সহায়ক হবে।


আরো পড়ুন: তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে গ্যাস বন্ধের হুমকি রাশিয়ার


এর আগে উভয়পক্ষের মধ্যে বেলারুশে একাধিক বৈঠক হয়েছে। তবে সেসব বৈঠকে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী অংশ নিলেও রাশিয়ার মন্ত্রী পর্যায়ের কেউ অংশ নেয়নি।


আনাতোলিয়ার এ বৈঠকে থাকছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুশওলুও। ন্যাটো সদস্য তুরস্কের সাথে রাশিয়া ও ইউক্রেন উভয়েরই রয়েছে ভালো সম্পর্ক।

রাশিয়া গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে। দু’সপ্তাহের অব্যাহত রুশ হামলায় ইউক্রেনের লাখ লাখ লোক প্রতিবেশী দেশসমূহে আশ্রয় নিয়েছে।


দু’দেশের অব্যাহত যুদ্ধের মধ্যেই তুরস্কে এ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।


শান্তির পথে অগ্রগতি

ইউক্রেন ও রাশিয়া রণাঙ্গনে মুখোমুখি লড়াই চালিয়ে গেলেও যুদ্ধ বন্ধ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা চলছে। সর্বশেষ মঙ্গলবার দুই দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যকার শান্তি আলোচনায় বেশ অগ্রগতি হয়েছে। পরস্পরের দাবিগুলো চুলচেরা পর্যালোচনা করছেন তারা। মস্কো ও কিয়েভের পক্ষ থেকে পরিস্কার করে বলা না হলেও উভয় পক্ষ শান্তি স্থাপনে তাদের আগ্রহের কথা জানিয়েছে। এ অবস্থায় রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ ও ইউক্রেনীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা আজ তুরস্কে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসছেন। আশা করা হচ্ছে, এ বৈঠকে তাদের দূরত্ব আরও কমতে পারে।

এরই মধ্যে গতকাল দোনেৎস্ক অঞ্চলে মারিউপোল মা ও শিশু হাসপাতালে বিমান হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ১৭ শিশু আহত হয়েছে। ইউক্রেনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, ওই হাসপাতালে রাশিয়া বিমান হামলা চালিয়েছে। তবে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মস্কোর পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

গতকাল ওয়াশিংটন সফররত ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস বৈঠক করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের সঙ্গে। পরে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, হাসপাতালে হামলা একেবারে ঘৃণ্য কর্মকাণ্ড। আমরা পুতিনকে ইউক্রেনে ব্যর্থ করা এবং দেশটির সার্বভৌমত্ব পুনরুদ্ধার না করা পর্যন্ত বিশ্রাম নেব না।

হামলায় শিশু ওয়ার্ড ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, এখনও হাসপাতালের ধ্বংসস্তূপের নিচে বহু শিশু রয়েছে। নৃশংসতা ! বিশ্ব আর কতদিন সন্ত্রাসকে উপেক্ষা করে সহযোগী হয়ে থাকবে? পরে তিনি ফের ইউক্রেনকে নো ফ্লাই জোন ঘোষণার দাবি করেন।

যুদ্ধের পাশাপাশি কূটনৈতিক সমাধানের জন্যও চেষ্টা চলছে। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট গত কয়েক দিনের মধ্যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভদ্মাদিমির পুতিন ও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে শান্তি স্থাপন বিষয়ে বিস্তর আলাপ-আলোচনা করেছেন। তার ভিত্তিতে ইসরায়েলি কর্মকর্তারা গতকাল জানিয়েছেন, আলোচনা এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে।

আরো পড়ুন: নাবিক ইউক্রেন থেকে উদ্ধার ২৮ বাংলাদেশি নাবিক দেশে ফিরছেন আজ

ইসরায়েলি কর্মকর্তাদের উদ্ৃব্দত করে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম অ্যাক্সিওসের খবরে বলা হয়েছে, 'দুই পক্ষের মধ্যেই অবস্থান নরম হতে দেখা গেছে।' খবরে বলা হয়েছে, রুশ পক্ষ বলছে, তারা শুধুই দোনবাস অঞ্চলকে অসামরিকীকরণ করতে চায়।

যদিও এর আগে রুশ অভিযানের শুরুতে পুতিন বলেছিলেন, ইউক্রেনের অসামরিকীকরণ ও নাৎসিমুক্ত করাই রাশিয়ার সামরিক অভিযানের উদ্দেশ্য। তিনি আরও বলেছিলেন, ইউক্রেনকে রাশিয়ার অংশ হিসেবে ক্রিমিয়াকে স্বীকৃতি দিতে হবে এবং লুহানস্ক ও দোনেৎস্কের স্বাধীনতাকেও স্বীকৃতি দিতে হবে।

ইসরায়েলের কর্মকর্তারা বলছেন, জেলেনস্কির পক্ষে পুতিনের এ প্রস্তাব মেনে নেওয়া কঠিন ছিল। তবে এতে কিয়েভে ক্ষমতার পরিবর্তনের কথা নেই এবং ইউক্রেনকেও তার সার্বভৌমত্ব বজায় রাখার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে খবর প্রকাশিত হয়েছে, জেলেনস্কি সরাসরি পুতিনের সঙ্গে আলোচনা করতে চেয়েছেন। কিয়েভ বলছে, কূটনৈতিক সমাধানে প্রস্তুত রয়েছে ইউক্রেন।


ইসরায়েলি দৈনিক জেরুজালেম পোস্ট কিছু সূত্রকে উদ্ৃব্দত করে বলছে, রুশ প্রস্তাবটি চূড়ান্ত এবং জেলেনস্কি এটি না মানলে পুতিন সামরিক অভিযান তীব্রতর করবেন।

গতকাল ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকেও বলা হয়েছে, আলোচনা চলছে। শিগগিরই দু'পক্ষের প্রতিনিধিরা ফের মুখোমুখি বৈঠকে বসবেন।

রাশিয়ার সঙ্গে শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিধ্বংসী যুদ্ধের মধ্যে সুর নরম করেছেন জেলেনস্কিও। গত সোমবার এবিসি নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ইউক্রেনকে ন্যাটোর সদস্য করার জন্য তিনি আর চেষ্টা করবেন না। অথচ তার দেশে রাশিয়ার হামলার প্রধান যুক্তিই এটি। একই সঙ্গে জেলেনস্কি বলেছেন, দোনেৎস্ক ও লুহানস্কের বিষয়েও ছাড় দিতে রাজি আছেন তিনি। অর্থাৎ এ দুই অঞ্চলকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিতে রাশিয়ার যে দাবি, সেটি তিনি মেনে নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন।


গতকাল ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেশকভ বলেছেন, রাশিয়া ইউক্রেনের সরকার পরিবর্তন করতে চায় না। এটি এই শান্তি আলোচনায় বড় ধরনের অগ্রগতি ঘটাতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে বলে আশা করা হচ্ছে। এ আলোচনার মধ্যস্থতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে আঙ্কারা। তারাও সমঝোতার ব্যাপারে আশাবাদী। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান আশা করছেন, আনতালিয়ার আজকের বৈঠকে স্থায়ী যুদ্ধবিরতির একটি পথ খুলে যাবে।

গতকাল রুশ প্রেসিডেন্ট ভদ্মাদিমির পুতিনের সঙ্গে ভার্চুয়ালি বৈঠক করেছেন আফ্রিকান ইউনিয়নের (এইউ) প্রধান ও সেনেগালের প্রেসিডেন্ট ম্যাকি শল। এ সময় তিনি পুতিনকে যুদ্ধবিরতি স্থায়ী করার আহ্বান জানিয়েছেন। পরে এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, এইউ প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুতিনকে স্থায়ী যুদ্ধবিরতিতে চাপ দেওয়ার জন্য আজ (বুধবার) সকালে ফোন দিয়েছিলাম। তিনি (পুতিন) মনোযোগ সহকারে বক্তব্য শুনেছেন এবং যুদ্ধ থেকে বেরিয়ে যেতে সমঝোতামূলক আলোচনায় আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।


আরো পড়ুন: যা থাকছে নিপুণের ওয়েব সিরিজ ‘সাবরিনা’য় (ভিডিও)


পরে ইউক্রেনের সার্বভৌমত্ব নিশ্চিত এবং উভয় পক্ষকে আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দেয় এইউ। পাশাপাশি তাৎক্ষণিক যুদ্ধবিরতি এবং জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে উন্মুক্ত আলোচনার দাবি জানায় সংস্থাটি।


শরণার্থী বেড়ে সাড়ে ২১ লাখ :ইউক্রেনে রুশ হামলায় অভ্যন্তরীণভাবে উদ্বাস্তুর সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যাপক হারে শরণার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। মঙ্গলবার চার শহরে ১২ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতির পর গতকাল ছয় শহরে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় মস্কো-কিয়েভ।


মঙ্গলবার সাময়িক যুদ্ধবিরতি কার্যকর করার কারণে বহু মানুষ সংঘাতকবলিত এলাকা ছাড়তে সক্ষম হয়েছে। গতকাল জাতিসংঘ জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় তাদের ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করে এক লাখ ৪৩ হাজার ৯৫৯ জন শরণার্থী হয়ে ইউক্রেন ছেড়েছেন। এ পর্যন্ত সব মিলিয়ে সাড়ে ২১ লাখ মানুষ দেশ ছেড়েছে। দেশছাড়া ইউক্রেনীয়দের অর্ধেকের বেশি প্রতিবেশী পোল্যান্ডে আশ্রয় নিয়েছে। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর বলছে, রুশ হামলায় উদ্বাস্তু হয়ে বর্তমানে ১২ লাখ ৯৪ হাজারের বেশি মানুষ পোল্যান্ডে অবস্থান করছে।


ছয় শহরে যুদ্ধবিরতি :বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, কিয়েভ, সুমি, ইজিয়াম, ইনারোদার, মারিউপোল ও ভলনোভাখা- এই ছয় শহরে সাময়িক যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়। গতকাল স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চলে এই যুদ্ধবিরতি। রাশিয়ার আক্রমণ ও ইউক্রেনের প্রতিরোধের মধ্যে অবরুদ্ধ এসব শহর থেকে স্থানীয় বাসিন্দাদের সরিয়ে নিতে এ যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় তারা। সূত্র বিবিসি, এএফপি, রয়টার্স, স্পুটনিক নিউজ ও ইন্টারফ্যাক্স।


আরো পড়ুন:

 দুই হাজার কোটি টাকা পাচার মামলা

Two thousand crore rupees smuggling case


ফরিদপুরের আলোচিত ২ হাজার কোটি টাকা পাচার মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামী ও সাবেক এলজিআরডি মন্ত্রীর ছোট ভাই খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 


মঙ্গলবার (৮ মার্চ) সকালে ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

আরো পড়ুন: ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, সোমবার (৭মার্চ) দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দুপুরে ফরিদপুরের কোতয়ালী থানায় এ সংক্রান্ত  এক প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করেছে জেলা পুলিশ। সেখানে বিস্তারিত জানোনো হবে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ (প্রশাসন ও অপরাধ) জামাল পাশা।


উল্লেখ্য, এর আগে ২০২১ সালের ৩ মার্চ দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের মামলায় সাবেক এলজিআরডি মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ভাই মোহতেশাম হোসেন বাবরসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করে সিআইডি পুলিশ।


ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের সংশ্নিষ্ট শাখায় এ অভিযোগপত্র দাখিল করেন সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার উত্তম কুমার বিশ্বাস।


আরো পড়ুন:

যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget