Latest Post

 


রাণীশংকৈলে শোবার ঘর থেকে স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার 


ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে মেহেদী হাসান (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রের ঝুলন্ত  মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রবিবার (১২ জুন) রাতে পৌর শহরের আশা এনজিও অফিসের ভাড়া বাড়ির শোবার ঘর থেকে স্কুলছাত্রের সেই ঝুলন্ত মরদেহ  উদ্ধার করা হয়।

মৃত স্কুলছাত্র মেহেদী হাসানের ঝুলন্ত  মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন 

রাণীশংকৈল থানা পরিদর্শক  ওসি এস এম জাহিদ ইকবাল। 

মৃত মেহেদী হাসান রাণীশংকৈল কেন্দ্রীয় হাইস্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্র ছিল। সে রাউতনগর গ্রামের হবিবর রহমানের ছেলে।



সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, ঘটনার দিন রাত ১০টার দিকে ওই ভাড়া বাড়িতে ছোট ভাই মেহেদী হাসান ও বড় ভাই তারেক হাসানের মধ্যে ১০০ টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পরে মেহেদী তার শোবার ঘরে চলে যায়। মা মাজেদা বেগম, তারেক ও অন্যরা অন্য ঘরে টিভি দেখছিলেন। ঘণ্টাখানেক পরে মেহেদীকে ভাত খাওয়ার জন্য ডাকতে গেলে তার ঘরের দরজা বন্ধ পাওয়া যায়। ওই ঘর থেকে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে রাত ১২টার দিকে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে থানার ওসি সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে এসে ওই ঘরের দরজা ভেঙে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে মেহেদীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেন।

থানা পরিদর্শক (ওসি) এস এম জাহিদ ইকবাল বলেন, ‌‌‘এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে। লাশ দাফনের জন্য এডিএম'র অনুমতি সাপেক্ষে স্কুলছাত্রের মরদেহ পারিবারিকভাবে দাফনের ব্যবস্হা করা হয়। ।

আরো পড়ুন:


 



রাঙ্গুনিয়ায় প্রেমিকার প্রেম প্রত্যাখান, এসিডে জবাব দিল প্রেমিক

দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক চলার পর প্রেমিকা জানতে পারে প্রেমিক বিবাহিত। আর বিবাহিত জানার পর প্রেমে প্রতারণার শিকার হয়ে প্রেমিকের কাছ থেকে সরে আসতে চায় প্রেমিকা ইয়াছমিন আকতার (২০)। দীর্ঘদিনের প্রেম প্রত্যাখান করে সরে আসায় ক্ষুব্ধ হয়ে রাতের আধাঁরে ঘরের জানালা দিয়ে এসিড ছুঁড়ে প্রেমিকার শরীর ঝলসে দিল প্রেমিক মোঃ আজিম (৩০) নামের এক বখাটে। 

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (৪ মে) চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের ডিঙ্গললোঙ্গো গ্রামে।

জানা গেছে, উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড ডিঙ্গললোঙ্গো এলাকার আবুল বাশারের মেয়ে ইয়াছমিন আকতারের সাথে পার্শ্ববর্তী চন্দ্রঘোনা উপজেলার ৫ নং ওয়ার্ডের খাস্তাকাটা এলাকার রুহুল আমিননের বখাটে ছেলে আজিমের সাথে বছর খানেক আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। আজিম পেশায় একজন সিএনজি চালক। এক পর্যাযে ইয়াছমিন জানতে পারে আজিম বিবাহিত এবং তার ঘরে স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। বিষয়টি শোনার পর ইয়াছিন আজিমকে তা জানায়, আজিমও বিষয়টি স্বীকার করে। এরপর তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরী হয়, এবং ইয়াছমিন আজিমের কাছ থেকে সরে আসে। ঈদকে উপলক্ষ্য করে গতকাল রাতে ইয়াছমিনের সাথে জানালা দিয়ে দেখা করে বিয়ের প্রস্তাব দেয় আজিম। এতে ইয়াছমিন রাজি না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে প্রেমিক আজিম এসিড ছুঁড়ে মারলে, মুহূর্তেই ঝলসে যায় ইয়াছমিনের শরীরে বিভিন্ন অঙ্গ। ভিকটিম বর্তমান চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 

এ ঘটনায় ভিকটিমের বড় ভাই মোঃ আবু তাহের বাদী হয়ে রাতেই রাঙ্গুনিয়া থানায় মামলা করলে বৃহস্পতিবার (৫ মে) ভোরে পুলিশ আসামি মোঃ আজিমকে গ্রেফতার করে। 

এ ব্যাপারে ভিকটিমের ভাই মোঃ আবু তাহের বলেন, আমি রাত ২ টার দিকে হঠাৎ করে আমার বোনের চিৎকার শুনতে পেয়ে রুমে ছুটে গেলে দেখি আমার বোনের শরীরের অর্ধেক অংশ ঝলসে গেছে। আমার বোন জানায়- আজিম নামের এক বখাটে তাকে জানালা দিয়ে এসিড ছোডে মেরে পালিয়েছে। তখন বোনকে চিকিৎসার জনয় চন্দ্রঘোনার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমার বোনের সুন্দর জীবন নষ্ট করে দিয়েছে বখাটে আজিম। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহাবুব মিলকী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এসিডের বিষয়টি পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে কোনো দাহ্য প্রদার্থ দিয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হওয়ার পর ভোরেই নিজ বাড়ি থেকে আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁকে আজ চট্টগ্রাম আদালতে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরো পড়ুন:


 


ঠাকুরগাঁওয়ে বজ্রপাতে যুবকের মৃত্য 


ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বৃষ্টির সময় বজ্রপাতে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (১২ জুন) বিকালে সদর উপজেলার নারগুন ইউনিয়নের উত্তর মণ্ডলপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বজ্রপাতে আল আমিন নামে এক যুবকের 
 মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদর থানা পরিদর্শক (ওসি) তানভিরুল ইসলাম।

বজ্রপাতে নিহত যুবকের নাম আল আমিন (২৮) উত্তর মণ্ডলপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, নিহত আল আমিন  বিকেলবেলা ঘাস কাটার জন্য মাঠে যায়। হঠাৎ করে প্রচন্ড ঝড়ো হাওয়াসহ বজ্রপাত শুরু হলে মাঠে থেকে সে বাড়ির দিকে রওনা হয় । বাড়িডে আসার আগেই বিকট শব্দে বজ্রপাত আল আমিনের উপর পড়লে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। খবর পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে রাণীশংকৈল থানা পরিদর্শক (ওসি) তানভিরুল ইসলাম মুঠোফোনে জানান পরিবারের কারো কোন অভিযোগ না থাকায় নারগুন ইউপির চেয়ারম্যান সেরেকুল ইসলামের মাধ্যমে লাশ দাফনের 
 লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়। এবিষয়ে কোন মামলা হয়নি।


আরো পড়ুন:

  1. ফেনীর ফুলগাজীতে দুই মহিলা ছিনতাইকারী গ্রেফতার
  2. Afran Nisho: ভারতীয় ওয়েব সিরিজে আফরান নিশো
  3. জয়নাল হত্যা মামলার সব আসামি খালাস; পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থার নির্দেশ
  4. ফেনীর দাগনভূঁঞায় মোটরসাইকেল চোরাই চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার 
  5. বালিয়াডাঙ্গীতে এক পরিবারের চার সন্তানই প্রতিবন্ধী
  6. পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ ইউরোপকে সরাসরি হুমকি দিচ্ছে 
  7. Russia Ukrain: বাংলাদেশি জাহাজে হামলার জন্য ইউক্রেনকে দুষছে রাশিয়া 
  8. সাড়ে ১২ কোটি মানুষ টিকার আওতায়
  9. নিয়ন্ত্রণহীন ভোজ্য তেলের বাজার
  10. ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী

 


ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো  পর্তুগিজ ফুটবল তারকাকে ধর্ষণের মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আদালত


অভিযোগকারীর উকিল ফাঁস হয়ে যাওয়া তথ্য ও চুরি যাওয়া রেকর্ড ব্যবহার করায় আদালতে রোনালদোর বিপক্ষে আনা অভিযোগ ধোপে টেকেনি।

ক্যাথরিন মায়োর্গা নামের এক নারী ২০০৯ সালে অভিযোগ আনেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই ফুটবলার লাস ভেগাসের একটি হোটেলে তাকে ধর্ষণ করেছেন।

রোনালদো অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং তার বিরুদ্ধে কখনোই কোনও ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

খবর এসেছিল ২০১০ সালে আদালতের বাইরে সেই নারী বিষয়টি নিয়ে সমঝোতায় আসেন, তখন তাকে ৩ লাখ ৭৫ হাজার ডলার দেয়া হলেও এরপরও আরও অনেক অর্থ দাবি করেন তিনি।

মিজ মায়োর্গা বলেছিলেন, অভিযোগে আসা ঘটনার পরপরই তিনি সমঝোতা করতে একমত হন, যদিও সে সময়ে তার মানসিক পরিস্থিতি এই মধ্যস্ততায় সক্রিয়ভাবে যোগ দেয়ার উপযুক্ত ছিল না এবং তিনি এই প্রস্তাব মেনে নেয়ার জন্য একটি চাপ অনুভব করেছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ডিস্ট্রিক্ট জাজ জেনিফার ডোর্সে লিখেছেন, অভিযোগ দায়ের করার আগে মিস মায়োর্গার আইনজীবী লেসলি স্টোভাল, 'চুরি করা' তথ্য ও উপাত্ত সংগ্রহ করেন যা ছিল গোপনীয় ও প্রাধিকারপ্রাপ্ত।

বিচারক রায়ে লিখেছেন, ৩৭ বছর বয়সী রোনালদোর ক্ষতি করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী, বারবার চুরি করা ও বিশেষ কিছু ডকুমেন্ট দিয়ে মামলা চালিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন তিনি এবং যা রোনালদোর ব্যাপারে 'অনাস্থা' তৈরি করেছিল।

শুক্রবার ৪২ পাতার রায় প্রকাশ করা হয় এবং বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এসেছে, বিচারক ডোর্সে বাদীপক্ষের আইনজীবী মি. স্টোভালের বিপক্ষে "তথ্যের অপব্যবহার ও মামলার প্রক্রিয়া স্পষ্টভাবে বিভ্রান্তি তৈরির" অভিযোগে এনেছেন।

যার ফলে, "মায়োর্গা এই মামলা চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারিয়েছেন।"

গত বছর, এক ম্যাজিস্ট্রেট মি. স্টোভালের কৃতকর্মের জন্য আদালতে মামলা খারিজ করার সুপারিশ করেছিলেন।

বিবিসি মি. স্টোভারের মন্তব্যের জন্য তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কৌসুঁলিরা ২০১৯ সালে বলেন, রোনালদো কোনও শাস্তি পাবেন না এই বিষয়ে, কারণ বাদীপক্ষের "যুক্তিসঙ্গত সন্দেহের বাইরে ঘটনা প্রমাণিত নয়"।

লাস ভেগাসে ক্লার্ক কাউন্টি ডিসট্রিক্ট অ্যাটর্নির অফিস থেকে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালে মিস মায়োর্গা হামলার অভিযোগ তুলেছিলেন, কিন্তু তিনি কোথায় হয়েছে ও কে করেছেন এসব বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন, যে কারণে পুলিশ তখন 'কোনও তাৎপর্যপূর্ণ তদন্ত' করতে পারেনি। কিন্তু ২০১৮ সালে তার অনুরোধে আবারও অভিযোগ খতিয়ে দেখা হয়।

জার্মানির দার স্পাইজেল নামের একটি ম্যাগাজিনের ২০১৭ সালের একটি আর্টিকেল অনুযায়ী ২০১০ সালে মিস মায়োর্গা রোনালদোর সাথে আদালতের বাইরে একটি সমঝোতায় এসেছিলেন, যেখানে বলা হয়েছিল তিনি বিষয়টি নিয়ে কখনোই বাইরে কোনও অভিযোগ তুলবেন না।

মিস মায়োর্গার আইনজীবী বলেন, 'মি টু' আন্দোলনের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি আবারও মামলা চালিয়ে নেয়ার ব্যাপারে আগ্রহী হন।

আরো পড়ুন:

  1. ফেনীর ফুলগাজীতে দুই মহিলা ছিনতাইকারী গ্রেফতার
  2. Afran Nisho: ভারতীয় ওয়েব সিরিজে আফরান নিশো
  3. জয়নাল হত্যা মামলার সব আসামি খালাস; পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থার নির্দেশ
  4. ফেনীর দাগনভূঁঞায় মোটরসাইকেল চোরাই চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার 
  5. বালিয়াডাঙ্গীতে এক পরিবারের চার সন্তানই প্রতিবন্ধী
  6. পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ ইউরোপকে সরাসরি হুমকি দিচ্ছে 
  7. Russia Ukrain: বাংলাদেশি জাহাজে হামলার জন্য ইউক্রেনকে দুষছে রাশিয়া 
  8. সাড়ে ১২ কোটি মানুষ টিকার আওতায়
  9. নিয়ন্ত্রণহীন ভোজ্য তেলের বাজার
  10. ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী


 



মহানবীকে (সা) নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে বাংলাদেশ মিছিল


মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা:) কে নিয়ে ভারতে কটুক্তি'র প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁও  মুসলিম সমাজের বিভিন্ন সংগঠনের

ব্যানারে স্থানীয় মুসুল্লিরা বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন।

ভারতের মুখ্যপাত্র নুপুর শর্মা ও মিডিয়া সেল প্রধান নবীন জিন্দান বিশ্ব মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা:) কে নিয়ে বাজে মন্তব্যের প্রতিবাদে আজকের বিক্ষোভ কর্মসুচি পালন করেন ইসলামী বেশ কয়েকটি দল ও স্থানীয় মুসুল্লিরা । 



শুক্রবার জুম্মা’র নামাজ শেষে পৌর শহরের আর্টগ্যালারী, পুরাতন বাসস্ট্যান্ড ও সত্যপীর ব্রীজ এলাকাসহ বেশ কয়েকটি স্থান থেকে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে শত শত মুসল্লিরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা শহরের চৌরাস্তা ও বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় মানববন্ধনে অংশ নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে এক প্রতিবাদ সমাবেশ করেন। 



পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে স্থানীয় মুসুল্লিরা বক্তব্য রাখেন। এতে মসজিদের ইমাম ওলামাসহ শতশত মুসুল্লিগণ অংশগ্রহন করেন। এসময় তারা ভারতে মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা:) কে কটুক্তির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং ধিক্কার জানান। নুপুর শর্মা’র বিচারের দাবী জানান তারা।


মানববন্ধনে অংশ নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা বলেন, ভারতের মত একটি সভ্য রাষ্ট্রে দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা:) কে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করে গোটা বিশ্বের মুসলিমকে আঘাত করেছে। 

যা কোনভাবেই মেনে নেয়া সম্ভব নয়। আজ শুধু বাংলাদেশ নয় গোটাবিশ্বে তাদের প্রতি ঘৃণার জন্ম নিয়েছে। এখন পর্যন্ত ভারত সরকার তাদের বিরুদ্ধে কার্যত প্রদক্ষেপ গ্রহন করেনি।

অবিলম্বে তাদের শাস্তি নিশ্চিত করা না হওয়া পর্যন্ত ভারতের সকল পণ্য বয়কট করার আহবান জানান। 

এছাড়া বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত কোন প্রতিবাদ না করায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয় । মহানবীকে নিয়ে অবমাননাকারির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া না হলে আরও কঠোরতম কর্মসূচি দেয়ার হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন মুসলিম সংগঠনের নেতারা।


আরো পড়ুন:

 



শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হল উত্তর রাঙ্গুনিয়া হাই স্কুলের নির্বাচন


ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উত্তর রাঙ্গুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন জাঁকজমকপূর্ণ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১১ জুন) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলে। পরে ব্যালট গণনা শেষে বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে প্রিজাইডিং অফিসার নুরুল ইসলাম চৌধুরী (উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার) ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

উত্তর রাঙ্গুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের অভিভাবক সদস্য পদে মোট ৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মহিলা পদে একক প্রার্থী হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ফুল মালা বেগম।

নির্বাচিতরা হলেন- মো. খোরশেদ আলম ৩০৫ ভোট পেয়ে প্রথম,আলমগীর হোসেন বাবু ২৮০ ভোট পেয়ে ২য়, মীর গোলাম মোস্তফা বাবুল ২৬৯ ভোট পেয়ে ৩য় এবং ফজলুল কাদের ২৩৩ ভোট পেয়ে ৪র্থ স্থানে অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচিত হোন। 

নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্বে থাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে সাথে নিয়ে সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পর্ণ হয়েছে। প্রত্যেক অভিভাবক ভোটারের রায়ের ভিত্তিতে সদস্যরা নির্বাচিত হয়েছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ৮২০ জন, তন্মধ্যে ভোট প্রদান করেছেন ৪৭৬ জন। সরাসরি ভোটে ৪ জন অভিভাবক সদস্য নির্বাচিত হোন।

তিনি আরও বলেন, সম্পুর্ণ নিরপেক্ষ ও সততার সাথে ফলাফল ঘোষণা করা হলো। পাশাপাশি তিনি প্রত্যেক সদস্যকে সহযোগীতার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন এবং ভবিষ্যতে সবাইকে স্কুলের স্বার্থে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

নির্বাচিত অভিভাবক সদস্যরা যৌথভাবে বিদ্যালয়ের সার্বিক সহযোগীতা ও ইভটিজিংয়ের ব্যাপারে কঠোর হওয়ার ঘোষণা দেন।


আরো পড়ুন:

 


রাজিবপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে হামলা,ভাঙচুরের ঘটনায়  সংবাদ সম্মেলন।


রাজিবপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বহিরাগত উচ্ছৃংখল ছাত্রদের সন্ত্রাসী হামলা/ভাঙচুর ও  প্রধান শিক্ষককে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন। আয়োজনে রাজিবপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী।আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২ ঘটিকার সময় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সংবাদ সম্মেলন করেছেন।


শিক্ষার্থীর পক্ষে বলা হয়েছে, বর্তমান বিদ্যালয় পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং সুন্দরভাবে পরীক্ষা চলছে। এটা নিয়ে আর আতঙ্ক নেই।

আমরা বিভিন্নভাবে জেনেছি পরীক্ষার ফি বেশি নেওয়া হয়নি। বহিরাগতদের উস্কানিতে বিদ্যালয়ে ভাংচুর করায় থানায় মে অভিযোগ করেছিলেন আমরা প্রধান শিক্ষকের কাছে ক্ষমা চেয়েছি তিনি ক্ষমা করে দিয়েছেন এবং অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

আমরা বহিরাগতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

পরিশেষে বিদ্যালয়ের মঙ্গল কামনা করছি।


সংবাদ সম্মেলনে প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মোঃ আজীম উদ্দিন বলেন, সন্মানিত রাজিবপুর উপজেলাবাসী  আজকে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছি, কিছু বিষয় আপনাদের অবগত করার জন্য। আপনারা জানেন গত (৪ জুন ২০২২) শনিবারে রাজিবপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ১০ ঘটিকার সময় অর্ধবার্ষিক চলাকালীন অবস্থায় বহিরাগত উচ্ছৃংখল ছাত্র, সাংবাদিক, অভিভাবক আমি ইতি মধ্যে তাদের চিহ্নিত করেছি।


তাদের উস্কানিতে ওগো ছাত্রদেরকে ভুল বুঝিয়ে প্রধান শিক্ষক পনেরশত টাকা নিচ্ছে এই মিথ্যা প্রচার করে ছেলেদের উত্তেজিত করে পরীক্ষার হল থেকে ইউএনোর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাদের ইউএনোর সাথে মত বিনিময় করার আগেই তাদের স্লোগান শিখিয়ে দেওয়া হয়। 

প্রধান শিক্ষক পনেরশো টাকা পরীক্ষা নিয়ে নিচ্ছে আমরা পরীক্ষা দেবো না এছাড়াও শিক্ষকদের নামে বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় স্লোগান দিয়ে বিদ্যালয় প্রবেশ করায়। ছাত্ররা বলেছিল আমরা ইউএনও স্যারের সাথে মত বিনিময় করে দেখি কি বলে কিন্তু তাদের কথা মানা হয়নি। উস্কানীদাতারা তাদেরকে বিদ্যালয়ের প্রবেশ করিয়ে অনুষ্ঠিত পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকে খাতা পত্র, বিদ্যালয়ের দরজা,জানালা ভাংচুর করে এবং ভয়ভীতি দেখিয়ে মেয়েদের রুম থেকে বের করে দেয়। শিক্ষকদের লাঞ্ছিত করে এবং আমার নামে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে আমাকে বিভিন্ন ভাবে চাঁদা দাবি করে  হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।

বিদ্যালয়ের এমন পরিস্থিতি দেখে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করি, পরে দাঁড়াও এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ ও মিথ্যা প্রচারণা চালানো হয়েছিল যে আমি পনের শত টাকা পরীক্ষার ফি নিচ্ছি। কিন্তু আদো একথা সত্য নয়, বানোয়াট, মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হয়েছে।অন্য অন্য স্কুলের সাথে সমঝোতা বজায় রেখে আমরা শিক্ষক মিলায়াতনে শিক্ষকদের সাথে পরামর্শ করে পরীক্ষার ফি,সেশন চার্জ ও অন্যান্য ফি নির্ধারণ করে দিয়েছি।

এখানে কিছু সাংবাদিক আমার বিরুদ্ধে টাকা বেশি নেওয়ার, কোথাও দূর্নীতিবাজ বলা হয়েছে। কোন সুনির্দিষ্ট প্রমাণ না নিয়ে বা না দেখিয়ে টাকা বেশি নেওয়া মিথ্যা প্রচার করা আইনত শুদ্ধ নয় এটা আমার সম্মানহানি করা হয়েছে। সহকারী শিক্ষক ও বিদ্যালয় ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। আমার বিদ্যালয়টি যাতে সরকারিকরণ না হয় তাই তারা চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে যারা অপপ্রচার চালিয়েছে তাদেরকে ডিজিটাল নিরাপত্তায় মামলা করব।

বিদ্যালয়ের ছেলেমেয়েরা শান্ত রয়েছে। পরীক্ষার ফি, সেশন চার্জ ও অন্যান্য ফি দিয়ে সতস্ফুর্ত ভাবে তারা পরীক্ষা দিচ্ছে।

আরো পড়ুন:

  1. ফেনীর ফুলগাজীতে দুই মহিলা ছিনতাইকারী গ্রেফতার
  2. Afran Nisho: ভারতীয় ওয়েব সিরিজে আফরান নিশো
  3. জয়নাল হত্যা মামলার সব আসামি খালাস; পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থার নির্দেশ
  4. ফেনীর দাগনভূঁঞায় মোটরসাইকেল চোরাই চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার 
  5. বালিয়াডাঙ্গীতে এক পরিবারের চার সন্তানই প্রতিবন্ধী
  6. পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ ইউরোপকে সরাসরি হুমকি দিচ্ছে 
  7. Russia Ukrain: বাংলাদেশি জাহাজে হামলার জন্য ইউক্রেনকে দুষছে রাশিয়া 
  8. সাড়ে ১২ কোটি মানুষ টিকার আওতায়
  9. নিয়ন্ত্রণহীন ভোজ্য তেলের বাজার
  10. ইউক্রেনে নাজুক অবস্থায় পড়ে গেছি: প্রতিমন্ত্রী


 



চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাবের সাথে পার্কভিউ হসপিটালের স্বাস্থ্যসেবা চুক্তি স্বাক্ষর 


চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাবের সদস্য ও তাদের পরিবারের  চিকিৎসাসেবা সহজলভ্য করতে চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাব লিমিটেডের সাথে পার্কভিউ হসপিটালের সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়।

আজ বুধবার (৮জুন) পার্কভিউ হসপিটালের বোর্ডরুমে এ সমঝোতা চুক্তির সাইনিং প্রোগ্রামে অনুষ্ঠিত হয়। 

এ চুক্তির আওতায় চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাবের সদস্যগণ ও তাদের পরিবারের সদস্যবর্গ পার্কভিউ হসপিটালে সর্বোচ্চ ২৫% পর্যন্ত ছাড় পাবেন।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাব লিমিটেডের প্রেসিডেন্ট  খন্দকার এম হেলাল সিআইপি এবং পার্কভিউ হসপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এটিএম রেজাউল করিম স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন।



এসময় চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাব লিমিটেডের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন কার্যকরী কমিটির সদস্য মো. ওসমান, নুরুল কবির, শাহাদাত হোসেন, জসিম উদ্দিন কুসুমপুরী ও সাজ্জাদ রনি।

এছাড়া উক্ত চুক্তির সাইনিং প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন পার্কভিউ হাসপাতাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এটিএম রেজাউল করিম, ল্যাব ডাইরেক্টর ডাঃ আহমেদ রহিম, কমপ্লায়েন্স ডাইরেক্টর ডাঃ সালাহউদ্দিন এমএইচ চৌধুরী, জেনারেল ম্যানেজার তালুকদার জিয়াউর রহমান শরীফ, হেড অফ মার্কেটিং জাহেদুল ইসলামসহ হসপিটালের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরো পড়ুন:


যোগাযোগ ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget